প্রোমোর চোটে তিতিবিরক্ত দর্শকদের মাথা গরম, কবে শুরু হচ্ছে ‘মন ফাগুন’

সাংসারিক কুটকাচালির বাইরে দর্শককে প্রেমের সাগরে ভাসাতে নতুন প্রেমের গল্প নিয়ে আসছে স্টার জলসা (Star Jalsha)। ধারাবাহিকের নাম “মন ফাগুন” (Mon Phagun)। ধারাবাহিকের দুই লিড “ঋষিরাজ” আর “পিহু”র প্রেমের গল্প শোনাবে “মন ফাগুন”। আজ থেকে প্রায় ২ মাস আগেই ধারাবাহিকের প্রোমো রিলিজ করেছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। ধারাবাহিকে নায়কের ভূমিকায় রয়েছেন শণ ব্যানার্জি (Sean Banerjee)। আর নায়িকার ভূমিকায় রয়েছেন নবাগতা মেক্সিকান সুন্দরী সৃজিলা গুহ (Srijila Guha)।

“ঋষিরাজ” আর “পিহু”র প্রেম কাহিনীর মাধ্যমেই দর্শকের মনে ভালোবাসার রং ছড়িয়ে দেওয়ার সংকল্প নিয়েছে অ্যাক্রোপলিস এন্টারটেইনমেন্ট। প্রেম-কাহিনী এই নির্ভর ধারাবাহিকের প্রোমোতেও তাই একরাশ প্রেমের পরশ রয়েছে। আজ থেকে প্রায় ২ মাস আগে যখন ধারাবাহিকের প্রথম প্রোমো রিলিজ হয়, তখন থেকেই ধারাবাহিকটিকে কেন্দ্র করে দর্শকের আগ্রহের পারদ চড়েছে। তবে দীর্ঘ ২ মাস ধরে কেবল একের পর এক প্রোমো দেখতে দেখতে বর্তমানে তিতিবিরক্ত হয়ে উঠেছেন দর্শক!

“মন ফাগুন” এর রোমান্টিক প্রোমো তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে “বাতাসে গুনগুন” এর মতো রোমান্টিক গান। দীর্ঘ ২‌ মাসে যে কয়েকটি প্রোমো রিলিজ করেছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ, তাতে শুধু এই একই গান বেজে চলেছে! তার সঙ্গে নায়িকাকে প্রায় “১০ হাত লম্বা শাড়ি উড়িয়ে” পর্দার এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত পর্যন্ত ছোটাছুটি করতে দেখতে দেখতে দর্শক ধীরে ধীরে ধারাবাহিকের উপর থেকেই যেন আগ্রহ খুইয়ে বসেছেন! মন ফাগুন এর প্রোমোকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

দীর্ঘ এই ২ মাসে ধারাবাহিকের সম্প্রচারণ তো দূরে থাক, ট্রেলার অব্দি রিলিজ করেনি প্রোডাকশন হাউজ। যার ফলে ধারাবাহিকের গল্প সম্পর্কে কিছুই আন্দাজ করতে পারছেন না দর্শক! দর্শকদের মধ্যে থেকে অনেকেই ব্যঙ্গ করে বলছেন, “টেলিভিশনের ইতিহাসে সব থেকে দীর্ঘসময়কালীন প্রোমো চলছে। যেখানে নায়িকার শুধুই শাড়ির রঙের পরিবর্তন হচ্ছে”! অ্যাক্রপলিস এন্টারটেইনমেন্ট এ পর্যন্ত যে কয়টি প্রোমো রিলিজ করেছে, তাতে গোলাপি, হলুদ, নীল, লাল রংয়ের শাড়ি পড়ে লম্বা আঁচল উড়িয়ে নায়িকাকে শুধুই ছোটাছুটি করতে দেখা যাচ্ছে!

“ঋষিরাজ আর পিহুর সাথে মন হারাতে রাজি তো? আসছে মন ফাগুন”! একঘেয়ে প্রোমো দেখে রেগেমেগে এক নেটিজেন তো বলেই বসলেন, “আর আসতে হবে না। মানুষজন করোনা-লকডাউন নিয়েই নাজেহাল। এত ঝামেলার মধ্যে মন হারাতে ইচ্ছুক নয় কেউ”! একজন লিখেছেন, “দুনিয়া উল্টে যাবে। লকডাউন ২.০ শুরু হয়ে যাবে। তাও এদের আসছে আসছে বন্ধ হবে না!!” এমনই সব মজার মজার কমেন্ট দেখা যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত ধারাবাহিকের প্রোমোর নিচে।

এক তিতিবিরক্ত নেটিজেন লিখেছেন, “যখন আসবে আসবে! এত আসছে আসছে করার কি হয়েছে”! একজন তো আবার নায়িকার লম্বা শাড়ির আঁচল দেখে কটাক্ষ করে মন্তব্য করেছেন, “উড়ন্ত ওড়নায় ঝুলন্ত হিরো”! এক নেটিজেন কমেন্ট করেছেন, “ফাগুন কেটে এখন বর্ষার সিজন চলছে”। টিভি খুললেই প্রোমোতে বারবার “বাতাসে গুনগুন” শুনতে শুনতেও বিরক্ত হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। সে কথাও জানিয়েছেন তারা।

আরও পড়ুন : রূপে লক্ষ্মী গুনে সরস্বতী,‘মন ফাগুন’-এর সৃজলা সৌন্দর্যে হার মানাল বলিউড নায়িকাদেরও

এক নেট নাগরিক প্রশ্ন করেছেন, “প্রোমোতে নায়িকার শাড়ি সবসময় উড়তে থাকে কেন? শাড়ির আঁচল উড়ানোর মত এত হাওয়া কোথায় বইছে?” “গুনগুন আর কতদিন বাতাসে উড়বে?” এই প্রশ্নও রেখেছেন এক নেট জনতা। আবার জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার (Sandy Saha) আঁচল উড়ানো একটি ছবি ব্যবহার করেও মিম বানিয়েছেন নেটিজেনরা! সব মিলিয়ে “মন ফাগুন” ধারাবাহিকের প্রোমো দেখতে দেখতে নেটিজেনদেরর একাংশ যেন ধারাবাহিকের উপর থেকে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন।

আরও পড়ুন : মেকআপ ছাড়া ‘মন ফাগুন’এর নায়িকা কেমন দেখতে, রইলো ভিডিও