রাজ্যে খুলে যাচ্ছে সিনেমা হল, যাত্রানুষ্ঠান, বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

এই ঘোষণা এখনো পর্যন্ত দেশের মধ্যে প্রথম। লকডাউন পার করে সারা দেশে আনলক পর্যায় চললেও এখনও পর্যন্ত কোনো রাজ্য সিনেমা হল খোলার অনুমতি দেয়নি কোনও রাজ্য। দেশের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বড় ঘোষণা করলেন মমতা।

দেশে উত্তরোত্তর করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির ঠেকাতে জারি হয় লকডাউন। সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ হয়ে যায় সিনেমা হল যাত্রা মঞ্চ সংগীতানুষ্ঠান নৃত্যানুষ্ঠান এবং ম্যাজিক প্রদর্শনী অনুষ্ঠান গুলি। এরপর নিউ নরমালে আনলক পর্যায়ে বিভিন্ন পরিষেবায় ছাড় দেওয়া হলেও এই সমস্ত পরিষেবা কোন ছাড় পাওয়া যায়নি। অবশেষে আজ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুখবর শোনালেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ট্যুইট করে জানিয়েছেন “নিউ নরমালে ফিরতে আগামী ১ অক্টোবর থেকে যাত্রা, খেলাধুলো, মুক্তমঞ্চ, সিনেমা হল এবং সমস্ত রকমের সংগীত, নৃত্য, আবৃত্তি ও ম্যাজিক শো-এ সর্বাধিক ৫০ জন অংশগ্রহণকারীকে নিয়ে আয়োজনের অনুমতি দেওয়া হবে”।”

তবে বেশ কিছু শর্তও তিনি আরোপ করেছেন। শর্ত স্বরূপ তিনি জানিয়েছেন, “সিনেমা হল সহ এই সকল অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে মানুষের উপস্থিতি ৫০ জনের বেশি রাখা যাবে না। পাশাপাশি অংশগ্রহণকারীদের এবং দর্শকদের মাস্ক ব্যবহার করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং সমস্ত রকম কোভিড প্রটোকল মেনে চলা বাধ্যতামূলক।”

দেশে লকডাউন জারি হওয়ার পর থেকে এই সকল ক্ষেত্র সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর চরম দূর্দশার সম্মুখীন হতে হয় সাংস্কৃতিক জগতের শিল্পীদের। আর আগামী ১লা অক্টোবর থেকে এই সকল ক্ষেত্র ছাড়া পাওয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই খুশির হাওয়া সংস্কৃতি জগতে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এবছর কীভাবে দুর্গাপুজো হবে তা নিয়ে কয়েকদিন আগে পুজো উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই বৈঠকেই উৎসবের মরশুমে মঞ্চ শিল্পীদের হাত গুটিয়ে বসে থাকার বিষয়টি নিয়ে সরব হয় একটি মহল। এ দিনের ঘোষণায় তাদের উদ্দেশেই খুশির খবর শোনালেন মমতা।