বলিউডের ঘোর দুর্দিন, একের পর এক ফ্লপ এই ৮টি ছবি, মাথায় হাত নির্মাতাদের

অক্ষয়, অমিতাভ থেকে সলমান, কোনও ম্যাজিকই কাজ করছে না, একের পর এক ফ্লপ এই ৮টি ছবি

Top Bollywood Movies that are Flopped on 2022

বলিউডের দুর্দিন যেন কিছুতেই কাটতে চাইছে না। বিগত কয়েক বছরে একাধিক নামিদামি তারকা প্রয়াত হয়েছেন। এদিকে সালমান, অক্ষয় কুমারদের ছবিও একের পর এক ফ্লপ হচ্ছে। সদ্য অক্ষয় কুমারের পৃথ্বীরাজ চৌহান এবং কঙ্গনা রানাওয়াতের ধাকড় নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। বিগ বাজেটের এই দুটি ছবি নিয়ে নির্মাতারা অনেক আশা রাখলেও ছবি দুটি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছে। এই দুই ছবি ছাড়াও বলিউডের আরও বেশকিছু বিগ বাজেটের ছবি রীতিমতো হতাশ করেছে (Bollywood Flop Movie List)। এক নজরে দেখে নিন তালিকাটা।

ধাকড় (Dhakad) : কঙ্গনা রানাওয়াতের কেরিয়ারের মোস্ট ফ্লপ এই ছবি রীতিমতো নিরাশ করেছে বলিউডকে। প্রথম সপ্তাহে দর্শক না আসায় হল মালিকরা ছবিটি তুলে দেন। ছবিটি বানাতে খরচ হয়েছিল ১০০ কোটি টাকা। মুক্তির পর থেকে এই পর্যন্ত মোটে ৪ কোটি টাকা উপার্জন করতে পেরেছে ছবিটি।

অন্তিম: দ্য ফাইনাল ট্রুথ (Antim The Final Truth) : সালমান খানের এই ছবি নিয়ে দারুণ উৎসাহিত ছিলেন তার ভক্তরা। সালমান ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছেন আয়ুষ শর্মা। তবে ছবিটি রীতিমতো নিরাশ করেছে দর্শকদের। বক্সঅফিসে চূড়ান্ত ফ্লপ হয়েছে ভাইজানের ছবি।

৮৩ (83) : ভারতীয় ক্রিকেটের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল শর্মার জীবনী অবলম্বনে ছবিটি বানানো হয়েছিল। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করে তাক লাগিয়েছেন রণবীর সিং। তবুও ছবিটি বক্স-অফিসে টিকতে পারেনি। দক্ষিণের ‘পুষ্পা’ ছবির বিপরীতে মোটেই দাঁড়াতে পারেনি ছবিটি। ৩০০ কোটি টাকা বাজেটের ছবি মাত্র ২০০ কোটি টাকা উপার্জন করতে পেরেছিল।

বান্টি অর বাবলি (Bunty Aur Babli) : রানী মুখার্জি এবং অভিষেক বচ্চনকে নিয়ে ২০০৫ সালের হিট ছবি ছিল ‘বান্টি অর বাবলি’। এই ছবির সিক্যুয়েল নিয়েও আশাবাদী ছিলেন পরিচালক। সাইফ আলি খান ও রানী মুখার্জিকে নিয়ে ছবির সিক্যুয়েল এলেও তা বক্স অফিসে মোটেও সাড়া ফেলতে পারেনি। মাত্র ২২ কোটি টাকা উপার্জন করতে পেরেছিল ছবিটি।

অ্যাটাক পার্ট ওয়ান (Attack Part One) : এই ছবির ট্রেলার কিন্তু নেট মাধ্যমে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। ৭০ কোটি টাকা বাজেটের এই ছবি নিয়ে বেশ আশা রেখেছিলেন দর্শকরা। কিন্তু এই ছবিটিও বক্স-অফিসে চূড়ান্ত ফ্লপ হয়। মোটে ২৩ কোটি টাকার ব্যবসা করে থেমে গিয়েছিল ‘অ্যাটাক’।

ঝুন্ড (Jhund) : অমিতাভ বচ্চন অভিনীত এই ছবিটি সমালোচকদের থেকে দারুণ প্রশংসা পেয়েছে। কিন্তু হলে দর্শক টেনে আনতে একেবারেই ব্যর্থ হয়েছে ছবিটি। ছবিটি বক্স-অফিসে কেবল ১৫ কোটি টাকা তুলতে পেরেছিল।

সত্যমেব জয়তে ২ (Satyamev Jayate 2) : এই ছবিটি বানাতে খরচ হয়েছিল প্রায় ৯৫ কোটি টাকা। ছবিতে ট্রিপল রোলে অভিনয় করেছেন জন আব্রাহাম। কিন্তু বক্সঅফিসে মাত্র ১৫ কোটি টাকার ব্যবসা করে থেমে যায় ‘সত্যমেব জয়তে ২’।

বচ্চন পান্ডে (Bachchan Pandey) : অক্ষয় কুমার, কৃতি শ্যানন, জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ, আরশাদ ওয়ারসিদের মত তারকারা থাকা সত্বেও ছবিটি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। ছবিতে অক্ষয় কুমারের লুক দারুণ পছন্দ হয়েছিল দর্শকদের। কিন্তু বক্সঅফিসে কেবল ৫০ কোটি টাকাই তুলতে পেরেছে এই ছবিটি। যেখানে ছবি বানাতে বাজেট ধরা হয়েছিল এর তিনগুণ।