কত টাকার মালিক তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ, প্রকাশ্যে এলো সম্পত্তির পরিমাণ

টলিউডের অভিনেত্রী হিসেবে সায়নী ঘোষ বিগত কয়েক মাস ধরেই ট্রেন্ডিং-এ রয়েছেন। তাকে আষ্টেপিষ্টে আঁকড়ে ধরে থাকা নানান মন্তব্য বিতর্ক তাকে এই ট্রেন্ডিংয়ের কেন্দ্রবিন্দু করে তুলেছে। এরই মাঝে তিনি আবার শাসকদল তৃণমূল নাম লেখান এবং আসানসোল দক্ষিণের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামেন।

আসানসোল দক্ষিণের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমে তিনি সম্প্রতি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আর এই মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সাথে সাথে নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুসারে জমা দিয়েছেন হলফনামা। যে হলফনামা থেকে জানা যাচ্ছে অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের ঘরে রয়েছে প্রায় কোটি টাকার কাছাকাছি ঋণের বোঝা। এছাড়াও তার শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কেও জানা গিয়েছে এই হলফনামা থেকে।

স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি : হলফনামায় সায়নী ঘোষ জানিয়েছেন মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় তার হাতে নগদ ছিল ৩২,৭৭৫ টাকা। তার পাঁচটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গচ্ছিত অর্থের পরিমাণ ১০,৩৩,৮২৫.০৭ টাকা। NSS, পোস্ট অফিস এবং জীবন বীমা ক্ষেত্রে তার বিনিয়োগের পরিমাণ ৮,৫২,৩৭৬ টাকা। তার একটি গাড়ি রয়েছে যার দাম হল ৬,৭৭,৩৬৯ টাকা। সায়নী ঘোষের নামমাত্র সোনার গয়না রয়েছে, ৪ গ্রাম, যার বর্তমান বাজার মূল্য ২৩,১১২ টাকা।

কলকাতার যাদবপুর ইউনিভার্সিটির কাছে তার নামে একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। যার বর্তমান বাজারমূল্য হল ৩৪ লক্ষ টাকা। এছাড়া তাঁর নামে আর কোনো চাষযোগ্য অথবা অচাষযোগ্য জমি বা স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি নেই। কিন্তু তার ঘাড়ে রয়েছে বিপুল পরিমাণ ঋণ। হলফনামা থেকে জানা যাচ্ছে গাড়ি-বাড়ি এবং পার্সোনাল লোন হিসেবে তিনি ব্যাঙ্কের ৬৪ লক্ষ ৪৫ হাজার ৫৫৬.৫২ টাকা ঋণগ্রস্ত। এছাড়াও মা সুদীপা ঘোষের কাছে তিনি ১৯ লক্ষ ৩৮ হাজার ১৯৫ টাকা ধার নিয়ে বসে আছেন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা : নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্বন্ধে হলফনামায় তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ জানিয়েছেন তাতে জানা যাচ্ছে তিনি CISCE বোর্ড থেকে (১০+২) পাশ। ২০১১ সালে যাদবপুরের হিরেন্দ্র লিলা পত্রনাভিস স্কুল থেকে তিনি পাস করেন।