ফাঁস হয়ে গেল অভিনেত্রীর দাম্পত্য সিক্রেট, নিখিলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের হুমকি দিল নুসরাত

Nusrat Jahan Nikhil Jain

বিগত বেশ কয়েক মাস ধরেই নিখিল (Nikhil Jain) এবং নুসরাতের (Nusrat Jahan) দাম্পত্য সম্পর্ককে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু জলঘোলা হয়েছে। নেটিজেনরা যেমন নেট মাধ্যমে তাদের সুখী দাম্পত্য সম্পর্কের সাক্ষী হয়েছিলেন (যদিও মাত্র কয়েক মাসের জন্য), তেমনই নিখিল এবং নুসরাতের সম্পর্কের চড়াই-উৎরাইও প্রথম নেটিজেনদের চোখেই ধরা পড়েছিল। একসময় নেটিজেনদের কাছে যারা ছিলেন “সুখী দম্পতি”, “কাপল গোল” ইমেজের অধিকারী, আজ নুসরাতের কথায় তারা শুধুই “সহবাস সঙ্গী”!

নিখিলের থেকে নুসরাতের আলাদা থাকা থেকে শুরু করে অভিনেত্রীর জীবনে নতুন প্রেমিকের আগমন, তাদের নতুন নতুন প্রেমের সম্পর্ক এবং হালফিলে অভিনেত্রীর মা হওয়ার খবর, সবটাই নেটিজেনদের জানা। যদিও এ প্রসঙ্গে নুসরত এ পর্যন্ত টু শব্দটিও করেননি। তবে নিখিলের মুখ থেকে বেরিয়ে এসেছে অনেক কথা। তিনি প্রকাশ্যে জানিয়ে দিয়েছেন যে নুসরাত এবং তিনি বিগত ৬ মাস ধরে আলাদা থাকেন। তার কথা থেকেই নুসরাতের হবু সন্তানের পিতৃত্ব সম্পর্কেও উঠেছে প্রশ্ন।

তার উপর আবার সম্প্রতি নিখিল এবং নুসরাতের আইনি বিচ্ছেদজনিত মামলার প্রসঙ্গটিও ধরা পড়েছে নিখিলের কথা মারফত। নিখিল জানিয়েছেন যে, ‘‘যে দিন জানলাম, নুসরত আমার সঙ্গে থাকতে চায় না, অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চায়, সে দিনই দেওয়ানি মামলা দায়ের করেছি আমি। যেহেতু ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি তাই অ্যানালমেন্টের মাধ্যমে আলাদা হব।’’ আগামী জুলাই মাসে এই মামলার শুনানি হবে, এটাও জানিয়েছেন নিখিল।

নুসরাতের বিরুদ্ধে তার অভিযোগ রয়েছে প্রচুর। সংবাদমাধ্যমের কাছে তিনি স্ত্রীর প্রতি তার অভিযোগ জানিয়েছেন। জানিয়েছেন, ‘‘নুসরত বহু দিন ধরে আমার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করছে।’’ তার দাবি, নুসরাতের ছোটবোন নুজহতে পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি। নুসরাতের পরিবারের জন্যেও প্রচুর অর্থ তাকে বহন করতে হয়েছে! নেট মাধ্যমে নিখিল এতদিন একতরফাভাবেই নিজের বক্তব্য পেশ করে চলেছিলেন। অপর পক্ষে নিশ্চুপ ছিলেন নুসরাত।

তবে সম্পর্কের ভাঙনের এই পর্যায়ে এসে অবশেষে নীরবতা ভাঙলেন নুসরাত জাহান। সাংবাদিকের সামনে এবার তিনি তার স্বামীর বিরুদ্ধেই পাল্টা অভিযোগ করে বসলেন। নুসরাতের অভিযোগ, নিখিলের পরামর্শ মেনে তিনি তার সমস্ত পারিবারিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য নিখিলের কাছেই রেখেছিলেন। সেই অ্যাকাউন্টগুলিকে নিয়ে নিখিল কি করছেন, সে খবর তার কাছে পৌঁছতই না। নিখিল বরাবর তার ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে তাঁকে না জানিয়েই টাকা তুলেছেন বলে অভিযোগ করলেন নুসরাত।

Tollywood Actress Nusrat Jahan Nikhil Jain Divorce

নুসরাতের দাবি, তার ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে তারই অ্যাকাউন্টের টাকার অপব্যবহার করেছেন নিখিল! এ সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য প্রমাণ তিনি আদালতে তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন। “যে মানুষ দাবি করছেন ‘ধনী’ বলে আমি তাঁকে ব্যবহার করেছি, আমাদের বিচ্ছেদের পরেও তাঁকে কেন লুকিয়ে আমার টাকা ব্যবহার করতে হয়?”, প্রশ্ন তুলেছেন নুসরাত জাহান। তিনি আরও জানিয়েছেন, নিখিলের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরেও অভিনেত্রী নিজের অলংকার সামগ্রী, ব্যক্তিগত সম্পদ, মা-বাবা এবং বন্ধু-বান্ধবদের থেকে প্রাপ্ত উপহার এখনো পর্যন্ত নিয়ে আসতে পারেননি। নুসরাত আরও বলেছেন, ধনি বলেই যে কেউ অপর একজন একা মহিলাকে যা খুশি তাই বলে অপমান করতে পারবেন, এমন অধিকার কেউ কাউকে দেয়নি!

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি নিখিলের এক বন্ধু দাবি করেন যে, সাম্প্রতিককালে নুসরাতের গোয়া ভ্রমণের জন্য বিমানের টিকিট ও রিসর্ট বুক করে দিয়েছিলেন নিখিল। এ প্রসঙ্গে নুসরাতের জবাব, “আমি কোথাও বেড়াতে বা পেশাগত কারণে গেলে, তার খরচ নিজেই বহন করি। কেউ এক জন দাবি করেছেন, আমার ভ্রমণের খরচ অন্য কেউ দেয়, সেটা সম্পূর্ণ মিথ্যে”। নুসরাতের দাবি, “আমি বরাবর আমার বোনের পড়াশোনার এবং পরিবারের সমস্ত খরচ একা হাতে বহন করেছি। যে ব্যক্তির সঙ্গে আমার কোনও সম্পর্কই নেই, কেনই বা তাঁর ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে যাব আমি? অভিযোগ তুললে প্রমাণ দিতে হবে”। তার সাফ বক্তব্য, “এই সাফল্য সম্পূর্ণ আমার নিজের। এই সাফল্যের আলোয় আমি কাউকে আলোকিত হতে দেব না”।

Nikhil Jain Nusrat Jahan

সম্প্রতি নুসরাত সম্পর্কে নিজের অভাব অভিযোগ জানাতে গিয়ে নিখিল জৈন নিজেকে “সাধারণ মানুষ” হিসেবে উল্লেখ করেন। আজ নাম না নিয়ে নিখিলকে কটাক্ষ করে নুসরাতের মন্তব্য, যারা প্রকৃত অর্থেই “সাধারণ মানুষ” হন, তারা কখনই এমন বিষয় নিয়ে চর্চা করেন না যেখানে তিনি জড়িত নন। সেই “সাধারণ মানুষ” আজ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত তাকে অপমান করে সকলের চোখে “নায়ক” হতে চাইছেন! স্ত্রীর এমন পাল্টা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যমের কাছে আর মুখ খোলেননি নিখিল জৈন। তার বক্তব্য, ‘‘আমি যা বলার আদালতে গিয়ে বলব। নুসরতের এই বিবৃতি নিয়ে স‌ংবাদমাধ্যমে আর একটা কথাও বলব না।’’