বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর মুখে স্বামী! মুছতে চলেছে সর্বজয়ার সিঁথির সিঁদুর

জি বাংলার (Zee Bangla) সর্বজয়া (Sarbojaya) ধারাবাহিকে এখন টানটান উত্তেজনা চলছে। জয়ার স্বামী সঞ্জয় গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। দুর্গাপূজার আবহে পারিবারিক ষড়যন্ত্রের শিকার হতে হয়েছে জয়ার স্বামীকে। জয়ার মাথায় ঝাড়বাতি ভেঙে পড়তে দেখে স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে ছুটে যান সঞ্জয়। জয়াকে বাঁচাতে পারলেও নিজেকে রক্ষা করতে পারেননি তিনি।

ঝাড়বাতির আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন সঞ্জয়। পুজোর সব আনন্দ এক লহমার মধ্যেই মাটি। আপাতত অনেক বড় অপারেশন করাতে হবে তার। এই অপারেশনের খরচ বাবদ মোটা অংকের অর্থ প্রয়োজন। অথচ সেই অর্থের যোগান দিয়ে উঠতে পারছেনা জয়া। পরিবারের সদস্যদের থেকে সাহায্য চাইলেও তারা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এত টাকা এই মুহূর্তে জোগাড় করা সম্ভব হলো না!

এক অত্যন্ত ধনী পরিবারের পুত্রবধূ জয়া। তবে নিতান্তই সাধারণভাবে জীবন যাপন করে সে। পরিবারের আর পাঁচটা সদস্যের মতো বিলাসিতা তার পোষায় না। তাই পরিবারের প্রায় বেশিরভাগ সদস্যেরই চক্ষুশূল সে। তাই তো জয়াকে পথের কাঁটার মতো সরিয়ে দিতে চেয়েছিলেন তার শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা। যদিও জয়ার কোনও ক্ষতি হয়নি। তবে তার স্বামী এখন জীবন-মরণ সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে চিকিৎসার টাকা জোগাড় না হওয়াতে তার চিকিৎসাতেও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। পরিবারের সদস্যরা একপ্রকার টাকা দিয়ে সাহায্য করতে অস্বীকার করেছে। এত টাকা একসঙ্গে কোথা থেকে জোগাড় করবে জয়া? তাহলে কি বিনা চিকিৎসাতেই প্রাণ যাবে সঞ্জয়ের? দশমীতেই কি তাহলে মুছে যাবে জয়ার সিঁথির সিঁদুর? প্রশ্ন উঠছে দর্শকদের মনে।

সঞ্জয়ের এমন গুরুতর অ্যাক্সিডেন্টের পর ধারাবাহিকের মোড় কোন দিকে ঘোরে তা জানতে উদগ্রীব দর্শক। ধারাবাহিক সম্প্রচারের শুরুর দিন থেকেই ধারাবাহিক নিয়ে দর্শকের মনে উন্মাদনা তুঙ্গে। কারণ এই ধারাবাহিকের হাত ধরেই দীর্ঘ প্রায় এক দশক পরে আবার অভিনয় জগতে ফিরে এসেছেন দেবশ্রী রায়। প্রথম প্রথম তাকে নিয়ে বহু কটাক্ষ হলেও সব নস্যাৎ করে দিয়ে ধারাবাহিকের টিআরপিতে ঝড় তুলে নিজেকে ফের প্রমাণ করেছেন দেবশ্রী।