ঐন্দ্রিলাকে খোলা চিঠি লিখলেন রান্নাঘরের সুদীপা, কী লেখা আছে তাতে

ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে খোলা চিঠি দিলেন সুদীপা চ্যাটার্জী, রইল সেই চিঠি

আর একদিন পেরোলেই পুরো একটি সপ্তাহ হবে পার। গত মঙ্গলবার ব্রেনস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল ঐন্দ্রিলা শর্মাকে (Aindrila Sharma)। তারপর থেকেই হাওড়ার ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে কাটছে তার দিন। আর ভেন্টিলেশনের বাইরে যারা রয়েছেন তারা অবিরাম অভিনেত্রীর ফেরার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন। জীবন যুদ্ধে জয়ী হয়ে এবারেও ফিরে আসবেন ঐন্দ্রিলা, স্থির বিশ্বাস তার কাছের মানুষদের।

ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন টলিউড, উদ্বিগ্ন তার অনুরাগীরা। বিশেষ করে টলিপাড়ায় সকলেই ঐন্দ্রিলার সুস্থতা কামনা করছেন। সোশ্যাল মিডিয়াতে ঐন্দ্রিলাকে উদ্দেশ্য করে খোলা চিঠি লিখছেন তারা। সেই তালিকা থেকে বাদ গেলেন না রান্না ঘরের (Rannaghor) সঞ্চালিকা সুদীপা চ্যাটার্জীও (Sudipa Chatterjee)। তিনিও সম্প্রতি ঐন্দ্রিলাকে উদ্দেশ্য করে তার মনের কথা লিখেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। কী লেখা আছে সেই বার্তায়?

রবিবার সুদীপা স্মৃতির পাতা থেকে তুলে নিয়ে এসেছেন ঐন্দ্রিলা এবং তার মায়ের রান্নাঘরে আসার একটি পুরনো ছবি। মাকে নিয়ে একবার সুদীপার রান্নাঘরে এসেছিলেন ঐন্দ্রিলা। তখন তোলা হয়েছিল এই ছবিটি। সেই ছবি ফেসবুকে শেয়ার করে সুদীপা লিখেছেন, “আদরের ঐন্দ্রিলা, কোনোদিন চিঠি লিখতে হবে ভাবিনি। একটা কথা তোমাকে কখনো বলা হয়নি- তোমাকে বড্ড ভালোবাসি। কখন যে তুমি মনের এতটা জুড়ে হয়ে গেলে- জানতেই পারিনি..”।

সুদীপা আরও লিখেছেন, “আজ একটা কথা না জানালে- খুব ভুল হবে। তুমি নিজে জানো- ঈশ্বর কেন বারবার তোমাকেই এত কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি রেখেও, জিতিয়ে দিচ্ছেন? কারন,তুমি সবার সামনে একটা দৃষ্টান্ত তৈরী করতে পারবে। হ্যাঁ,তুমিই পারবে। সবাই পারেনা। সবাই ঐন্দ্রিলা শর্মা হতে পারেনা। তোমাকে পারতেই হবে। নইলে, এতগুলো মন- যাঁরা সারাদিন তোমার ফিরে আসার জন্য সারাদিন প্রার্থনা করছেন, কিংবা ওই হাসপাতালের সবাই- যাঁরা তোমাকে ফিরিয়ে আনার জন্য,নিরলস পরিশ্রম করছেন- তাঁদের সবার এত effort,সব ব্যার্থ হয়ে যাবে।”

“সারা কলকাতা প্রার্থনা করছে তোমার জন্য, ঐন্দ্রিলা….সব্যসাচীর মতো একজন বন্ধু- তোমার জন্য অপেক্ষা করছেন। বৌদি(তোমার মা) তোমার বকুনি শুনবেন বলে, অপেক্ষা করছেন। তোমার পরিবার, তোমার fans, তোমার বন্ধুরা- সবাই অপেক্ষা করছে তোমার জন্য… shooting floor তোমার মিষ্টি হাসি- ক্যামেরাবন্দি করবে বলে, অপেক্ষা করছে। এত অপেক্ষা কখনও মিথ্যে হতে পারেনা। তুমি আসবে। অনেক আদর রইলো, আমার সোনা বোনটার জন্য”।

উল্লেখ্য একা সুদীপা নন, ঐন্দ্রিলার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রার্থনা করেছেন সুদীপ্তা চক্রবর্তী, অঙ্কুশ, জিৎ থেকে শুরু করে গৌরব রায়চৌধুরী, আদৃত রায়রাও। আনন্দবাজার অনলাইন সূত্রের খবর, ঐন্দ্রিলার অবস্থা এখন আগের তুলনায় স্থিতিশীল। তার জ্বর নেই, রক্তচাপ এবং শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক রয়েছে। ২ বার ক্যান্সারের সঙ্গে মরণপণ লড়াই করে হাসিমুখে ফিরেছেন ঐন্দ্রিলা। এবারেও তাকেই জয়ী দেখতে চান তার শুভাকাঙ্ক্ষীরা।