কৃপা নয়, মাম্পির সঙ্গেই বিয়ে হবে রাজার, ফাঁস হয়ে গেল দাদানের ষড়যন্ত্র

‘স্বরূপনগরের মুখার্জি বাড়ি’তে বিয়ের সানাই শোনা যাচ্ছে। ‘রাজা’র বিয়ে বলে কথা! বেশ ধুমধাম করেই হচ্ছে সব আয়োজন। তবুও বরের মুখে হাসিটুকু নেই। আর থাকবেই বা কি করে? যার জন্য এত সব আয়োজন হলে সে খুশি হতো, তার বদলে অন্য আরেক পাত্রীর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছে তার! অন্তত সে এমনটাই জেনে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছে, শুধুমাত্র ‘দাদান’ এর কথাকে অমান্য করবেনা বলে।

কিন্তু সত্যিই কি তাই? ‘রাজা’ ‘মাম্পি’কে ভালবাসে, জানার পরেও ‘দাদান’ কি সত্যিই কখনও এতটা নিষ্ঠুর হতে পারেন? বিশেষত ‘কৃপা বসু’র ষড়যন্ত্রের কথা জেনেও তিনি ‘রাজা’কে কিভাবে এই বিয়ের জন্য জোর করতে পারেন? স্বভাবতই দর্শকের মনে এই প্রশ্ন উঠেছিল। একইসঙ্গে ‘রাজা-মাম্পি’ জুটির ভাঙ্গন নিয়েও দর্শকের মনে আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। যদিও ‘রাম্পি’ জুটির অনুরাগীরা অবশ্য ধরেই নিয়েছিলেন যে এই বিয়েতে ‘রাজা-মাম্পি’রই চার হাত এক হতে চলেছে। তবে এতদিন সাসপেন্স ধরে রেখেছিলেন ‘দাদান’ এবং ‘এসিপি সাহেব’।

‘দাদান’ এবং ‘এসিপি সাহেব’, ‘রাজা-মাম্পি’ জুটির পরিণয়ের মূল উদ্যোক্তা। এতদিন তারা সবকিছুই করেছেন অত্যন্ত গোপনে। কিন্তু বিয়ে তো আর চুপি-চুপি হওয়া সম্ভব নয়। ‘দাদান’ আর ‘এসিপি সাহেবে’র দলে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদেরও যে প্রয়োজন! তাইতো ‘কিয়ান’, ‘নোয়া’, ‘ডোডো’ আর ‘উজ্জয়িনী’ও আজ থেকে ‘মিশন রাম্পির বিয়ে’তে সামিল। ‘এসিপি সাহেব’ সব পরিকল্পনার কথা খোলসা করলেন আজ।

Desher Maati Mumpi

জানিয়ে দিলেন, ‘কৃপা’ নয়, এই বিয়েতে বধু বেশে আসবে ‘মাম্পি’ই। তাই ‘মাম্পি’ও যাতে বিয়ের সমস্ত রীতি-রেওয়াজে অংশ নেয়, তা দেখার দায়িত্ব তিনি তুলে দিয়েছেন ‘নোয়া-কিয়ান’ এবং ‘ডোডো-উজ্জয়িনী’র কাঁধে। এই পরিকল্পনার কথা শুনে প্রথমটা বিশ্বাসই করতে পারছিল না তারা। তারপর যখন বিশ্বাস হলো, তখন আর খুশির ঠিকানা রইলো না তাদের। আর এতদিন ধরে কার্যত ধারাবাহিকের এই টুইস্টের জন্যেই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে বসেছিলেন দর্শক।

অতএব ‘নোয়া-কিয়ান’ আর ‘ডোডো-উজ্জয়িনী’র কাঁধে এখন গুরুদায়িত্ব চেপেছে। কারণ বিয়ের জন্য ‘রাজা’কে যে যে রীতি-রেওয়াজ পালন করতে হবে, পাত্রী হিসেবে ‘মাম্পি’কেও সেই সব পালন তো করতেই হবে। অথচ এখনই কেউ যেন কিছু টের না পায়! গায়ে হলুদ পর্বে ‘রাজা’র গায়ে মাখানো হলুদের ছোঁয়া মাম্পির গালেও লাগলো। এ তো সবে মাত্র একটি ধাপ পেরোলো। এখনও তো বিয়ের আরও অনেক রীতি বাকি রয়ে গিয়েছে। অতএব, দর্শকের জন্য এখনও অনেক চমক অপেক্ষা করে রয়েছে।

এদিকে ‘দাদান’ও কিন্তু তলে তলে সমস্ত প্রস্তুতি নিয়েই রেখেছেন। ‘মাম্পি’র জন্য বিয়ের নতুন লাল বেনারসিও কিনে আনিয়েছেন তিনি। অতএব দর্শকের দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হতে চলেছে খুব শীঘ্রই। বধুবেশে ‘মাম্পি’ এবং বরবেশে ‘রাজা’কে দেখার জন্য এতদিন অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিলেন তারা। তবে ‘রাজা-মাম্পি’র সম্পর্ক বারংবার ভাঙ্গনের মুখে পড়েছে। অধৈর্য হয়ে জনৈক অনুরাগী তো ফটো এডিট করে তাদের একত্রে বিয়ের মণ্ডপে এনেও ফেলেছিলেন! তবে এবার প্রকৃতপক্ষেই ‘রাজা-মাম্পি’র মিলন হতে চলেছে।