খবর পড়তে গিয়ে চোখে জল সঞ্চালিকার, সঙ্গে কাঁদলো গোটা দেশ!

কাশ্মীর রক্তাক্ত হওয়ার খবর ইতিমধ্যেই দেশবাসীদের নাড়া দিয়েছে। পুলওয়াময়ের অবন্তীপোড়ায় সিআরপিএফ জাওয়ানদের কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলা, ইতিমধ্যেই শোকের ছায়া নামিয়ে এনেছে দেশবাসীদের কাছে। ঘটনায় শহীদের ৪০ ছড়িয়েছে। হামলার দায় ইতিমধ্যেই স্বীকার করেছে জৈশ-ই- মহম্মদ জঙ্গিগোষ্ঠী।

 

জঙ্গিহানার এই মর্মান্তিক ছবি দেখে ক্ষোভে ফুঁসছে ভারতবাসী৷দেশ জুড়ে শোকের ছায়া৷মর্মান্তিক জঙ্গি হানার পরে শোকস্তব্ধ গোটা দেশ। চোখের জলে ভাসছে নিহত জওয়ানদের পরিবার৷ দিন রাত টিভির পর্দায় ভেসে উঠছে কখনও সেই রক্তাক্ত ছবি কিংবা কখনও নিহত জওয়ানদের পরিবারের কান্নার ছবি৷ এমনই একটি খবর পড়তে গিয়ে লাইভ বুলেটিন পড়ার সময় কান্নায় ভেঙে পড়লেন সঞ্চালিকা৷

প্রতিদিনের মত স্টুডিও-তে বসে খবর পড়ছিলেন প্রীতি রঘুনন্দন৷ স্ক্রিনে ভেসে উঠছিল একের পর এক বিস্ফোরণের সেই মর্মান্তিক ছবি, শহিদদের পরিবারের হাহাকার, ছোট ছোট শিশুর কান্নার ছবি৷ তা দেখেই স্থির থাকতে না পেরে খবর পড়তে পড়তেই আবেগবিহ্বল হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন প্রীতি৷

কাঁদতে কাঁদতেই তিনি সহকর্মীকে বলতে থাকেন, ‘পিছনে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকটা আমাকে অনেক কিছু মনে করিয়ে দিচ্ছে৷ আমি যখন ছোট ছিলাম তখন সেনা জওয়ানদের দেখে হেসে টাটা করতাম৷ তা দেখে জওয়ানেরাও সায় দিতেন মৃদু হেসে৷ তাঁরাও আমাকে টাটা করতেন৷ কিন্তু আজ এঁদের কফিন বন্দি শবদেহ দিল্লির রাজপথ দিয়ে যখন যাবে….আমার ভাষা নেই সেইসমস্ত নিয়ে কথা বলার৷’

আরও পড়ুন : বড়সড় ঝটকা খেলো পাকিস্তান, ব্ল্যাকলিস্টে রেখে পাকিস্তানকে কড়া বার্তা আমেরিকার!

#কাঁদছে_নিউজ_অ্যঙ্কর শহীদ ভর্তি কনভয় যাবে সামনে দিয়ে এই অসহনীয় ব্যপার স্মরণ করেই টিভি স্ক্রিনে কেঁদে ফেললেন নিউজ অ্যঙ্কর।

অগ্রগতির পথে ভারত यांनी वर पोस्ट केले शुक्रवार, १५ फेब्रुवारी, २०१९