মধুচক্র থেকে গোপন ভিডিও ফাঁস, বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রীদের তালিকা

গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের পিছনে যে একটা কালো দিক আছে তাও মোটামুটি কমবেশি সকলেরই জানা। ঠিক অনেকটা প্রদীপের তলায় অন্ধকারের মত। বলিউডের নামিদামি সুন্দরী অভিনেত্রী দের অনেকেরই নামের পিছনে অনেক রকম গল্প লুকিয়ে আছে। নানান বিতর্ক  দানা বেঁধে আছে।

বলিউডের অন্যতম কয়েকটি অভিনেত্রীর বিষয় নিয়ে আজকে আলোচনা করা হলো যাদের নামে নানা বিতর্ক ছড়িয়ে রয়েছে আশেপাশে। মধুচক্রে জড়ানো, গোপন এমএমএস ফাঁস, এক নজরে দেখে নিন বলিউডের এই বিতর্কিত অভিনেত্রীদের।

মমতা কুলকার্নি:- বলিউডের অন‍্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী মমতা কুলকার্নি, ‘আশিক আওয়ারা’, ‘ক্রান্তিবীর’ এর মত অসংখ্য হিট ছবির নায়িকা।১৯৯৩ সাল থেকে ২০০৩ সাল অবধি বলিউড জগতের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে ছিলেন মমতা। এরপর একদিন তিনি বিখ্যাত পরিচালক রাজকুমার সন্তোষীর বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার করে অভদ্রতার অভিযোগ আনেন। এরপর তাকে আর বলিউডে দেখা যায়নি, বলিউড থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তাকে।

বিপাশা বাসু :- বলিউডের বিখ্যাত বোল্ড নায়িকা বিপাশা বাসুকে অনেক বলিষ্ঠ হট চরিত্রে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। দীর্ঘ অভিনয় জীবনে বিপাশার সঙ্গে কখনো জড়িয়েছে জন আব্রাহামের নাম। কখনো আবার বাহুবলী খ‍্যাত রাণা দগ্গুবতী সহ অনেক তারকার সাথেই বিপাশার নাম জড়িয়েছিলো। ফুটবল তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সঙ্গেও বিপাশার সম্পর্কের কথা শোনা গেছিল।

তবে এই সমস্ত কিছুকে ছাপিয়ে উঠেছিল একটি ফোন কল। রাজনীতিবিদ অমর সিং এর সাথে বিপাশা বসুর একটি বিতর্কিত ফোন কলের রেকর্ডিং ফাঁস হয়ে যায়। সেই নিয়ে টেলিভিশন থেকে খবরের কাগজ  সর্বত্র তোলপাড় হয়ে যায়। বিপাশার নাম চলে আসে হেডলাইনে। রেকর্ডিংয়ে শোনাগেছিলো বিপাশা ফোন করেছিলেন অমর কে। বিপাশার ফোন রেখে অমর সিং জিজ্ঞাসা করেন-তার মতো বয়স্ক মানুষকে এখনো মনে রেখেছেন বিপাশা? এটা দেখে বেশ ভালো লাগছে। এর উত্তরে বিপাশাকে বলতে শোনা যায় যে তার কাছে বয়সটা গুরুত্ব পায় না। তিনি সব সময় অমরকে মনে রাখেন। অমর বলেন-পায়ের ফাঁকে বয়স অবশ্যই গুরুত্ব পায়। পরবর্তীকালে জানা গিয়েছিল যে ফোন কলটি ভুয়ো।

মনীষা কৈরালা :- বলিউডের সুপারহিট অভিনেত্রী দের মধ্যে একজন তিনি। জন্মসূত্রে নেপালি হলেও বলিউডে তিনি বেশ দাগ কেটেছেন। ১৯৪২ এর লাভ স্টোরি সাওদাগার ,আকেলে হাম আকেলে তুম, সহ অনেক জনপ্রিয় ছবিতে মনিষাকে সাথে দেখা হয়েছিল। মনীষার মা একসময় অভিযোগ করেছিলেন যে বিখ্যাত পরিচালক সুভাষ ঘাই নাকি মনীষার সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার চেষ্টা করছিলেন। এরপরই তার হয়ে কাজ করা বন্ধ করে দেন মনীষা।

রিয়া সেন :- সুচিত্রা সেনের নাতনী রিয়া সেন কে সকলেই এক নামে চেনেন। ঝঙ্কারবিট্স ,সাদি নাম্বার-১ এর মতো ছবিতে তার দক্ষ অভিনয় সকলের নজর কাড়ে।

২০০৭ সালে অভিনেতা অস্মিত প‍্যাটেলের সাথে রিয়ার একটি চুম্বনের এমএমএস রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিগবসের একটি অনুষ্ঠানে  অস্মিত স্বীকার করেন যে এম এম এস টি আসল ছিল। এরপর তা পুনরায় ভাইরাল হয়।

শ্বেতা বসু প্রসাদ :- শিশুশিল্পী হিসেবে কাজ করেছিলেন মাকড়ি ছবিতে।এই ছবির জন্য তিনি জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছিলেন। পরবর্তীকালে মধুচক্রের জড়িত থাকার বিষয়ে এই অভিনেত্রীর নাম জড়িয়ে যায়। ২০১৪ সালে হায়দ্রাবাদে একটি হোটেল থেকে শ্বেতাকে গ্রেপ্তার করা হয় যৌন ব্যবসায়  যুক্ত থাকার অভিযোগে। দু’মাস পুনর্বাসন কেন্দ্রে থাকার পরে আবার ফিরে আসেন অভিনয়ে।

শ্বেতা বসু প্রসাদকে ‘মাকড়ি’ ছবির জন্য চেনেন সবাই। এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছিলেন তিনি। ‘কুটুম্ব’, ‘কহানি ঘর ঘর কি’-র মত শো-তে শিশু শিল্পী হিসেবে অভিনয় করেছেন তিনি। সম্প্রতি, ‘বদ্রিনাথ কি দুলহানিয়া’, ‘মর্দ কো দর্দ নেহি হোতা’, ‘তাশকেন্ট ফাইল’-এর মত ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।

করিনা কাপুর খান‌ :- শাহিদ কাপুর ও কারিনা কাপুর খান বলিউডের অন্যতম একটি জুটি।২০০৪ এ কারিনা কাপুরের সাথে শাহিদ কাপুরের ঘনিষ্ঠ  মুহূর্তের একটি এমএমএস সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল গতিতে ভাইরাল হয়। যদিও উভয়েই এই কথা অস্বীকার করেন।