হুবহু কিয়ারা আডবানির মতো দেখতে, নকল কিয়ারাকে দেখে ধরতে পারছে না কেউ

এই সমগ্র পৃথিবীতে একই রকম দেখতে নাকি ৭ জনের হদিস মেলে! সোশ্যাল মিডিয়ার সুবাদে ইতিমধ্যেই এই প্রবাদ সত্যি করে বলিউডের একাধিক তারকার ‘হামশকল’ এর খোঁজ মিলেছে। শাহরুখ খান, সালমান খান, ঐশ্বর্য রায়ের পর এবার নতুন প্রজন্মের অভিনেত্রী কিয়ারা আডবানীরও (Kiara Advani) হামশকলের (Lookalike) দেখা মিললো নেট মাধ্যমে। এক নজরে তাকে দেখে কেউ ধরতেই পারছেন না যে ইনি কিয়ারা নন! দুজন মানুষের চেহারার মধ্যে এমন হুবহু সাদৃশ্য কিভাবে থাকতে পারে?

সম্প্রতি সিদ্ধার্থ মালহোত্রা এবং কিয়ারা আডবানী অভিনীত ‘শেরশাহ’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। কারগিল যুদ্ধে শহীদ বিক্রম বাত্রার বাগদত্তা ডিম্পলের লুকে কিয়ারাকে মানিয়েছে বেশ। একথা সমালোচকেরাও অস্বীকার করছেন না। কিয়ারার সেই লুক রিক্রিয়েট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও আপলোড করলেন ডাঃ ঐশ্বর্য নামের জনৈক তরুণী। তাকেই কার্যত কিয়ারা বলে ভুল করছেন নেটিজেনদের একাংশ।

সাদা রঙের সালোয়ার, দুধে আলতা রঙের দুপাট্টা, চোখে টানা কাজল, কানে ঝোলা দুল, এমনকি ছবিতে কিয়ারাকে যেমন হেয়ার স্টাইলে দেখা গিয়েছিল, ঠিক তেমনই হেয়ার স্টাইল বানিয়ে ক্যামেরার পর্দার সামনে ধরা দিয়েছেন ওই তরুণী। ইনস্টাগ্রামে তার বানানো সেই রিল ভিডিওতে ব্যাকগ্রাউন্ডে বাজছে ‘শেরশাহ’ ছবিরই একটি রোমান্টিক গান। কে বলবে তিনি কিয়ারা নন? খুব ভালো করে বেশ কয়েকবার লক্ষ্য না করলে কেউ ধরতেই পারবেন না ডাঃ ঐশ্বর্য কিয়ারার হামশকল!

এই ভিডিওর সঙ্গে কিয়ারার একটি ডায়লগও শেয়ার করেছেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে এই ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই রীতিমতো ভাইরাল হতে শুরু করেছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ডাঃ ঐশ্বর্যের ফ্যান ফলোয়ার্সের সংখ্যাটা। ইতিমধ্যেই ইনস্টাগ্রামে তার ফ্যান ফলোয়ার্সের সংখ্যাটা ৪৩ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। লাইক, কমেন্টে ভরে উঠছে কমেন্ট বক্স। প্রায় সাড়ে চার লক্ষ মানুষ এই ভিডিওটি দেখেছেন। কিয়ারার অনুরাগীরা তো এই ভিডিও দেখে রীতিমতো ভিরমিই খেয়ে গিয়েছেন!

নেটিজেনদের মন্তব্য, “কিয়ারা নিজেও চিনতে ভুল করবে এই ভিডিয়ো দেখলে”। কেউ আবার ডাঃ ঐশ্বর্যকে বলছেন, “কিয়ারা আডবানি ২.০”। উল্লেখ্য, ডাঃ ঐশ্বর্য একজন দাঁতের চিকিৎসক। তবে এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় তার জনপ্রিয়তা কোনও বলিউড তারকার থেকে কম নয়। আগে না দেখে থাকলে আপনিও সেই ভাইরাল ভিডিওটি দেখে নিন এই প্রতিবেদন থেকে। দেখুন তো, কিয়ারা আর ঐশ্বর্যের মধ্যে কোনও পার্থক্য খুঁজে পান কিনা?