নেতাজির কিছু বিখ্যাত উক্তি, যা আজও দেশবাসীকে অনুপ্রেরণা দেয়

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। নামটার মধ্যেই যেন উহ্য আছে ” দেশপ্রেম ” শব্দটা।ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের এই অন্যতম নেতা গঠন করেন আজাদ হীন ফৌজ, অনেকেই মনে করেন বর্তমান স্বাধীন ভারতের নাগরিক হিসেবে থাকার যে সুযোগ আমরা পাচ্ছি তা এনারই দান। ভারতের অন্যতম বীর এই সন্তান ছিলেন এককালীন ভারতের জাতীয় দলের প্রেসিডেন্ট এবং একইসাথে ছিলেন লড়ে আদায় করে নাওয়ার সূত্রে বিশ্বাসী। তবে স্বাধীনতা সংগ্রাম ছাড়াও যুগ যুগ ধরে তার আরও একটি অবদান থেকে যাবে ভারতের মানুষদের কাছে, বিশেষত বাঙালিদের কাছে, কারন বাঙালিদের কাছে নেতাজি – নামটাই এক আলাদা মানে নিয়ে আসে। তার এই অবদান হলো যুগ যুগ ধরে মানুষকে হেরে না যাওয়ার প্রেরণা জোগানো। হ্যা,সুবক্তা নেতাজী কিছু বিখ্যাত উক্তি দেশবাসীর উদ্দেশ্যে রেখে গেছেন যা প্রতি যুগে তাদের উৎসাহ দেবে।

• তোমরা আমাকে রক্ত দাও, আমি তোমাকে স্বাধীনতা দেব।

• স্বাধীনতা কেউ দেয় না, অর্জন করে নিতে হয়।

• শুধুমাত্র চিন্তার জন্য কোনও ব্যক্তির মৃত্যু হতে পারে। কিন্তু, সেই চিন্তা আজীবন অমৃত থাকে এবং তা একজন থেকে আরেকজনের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

• যদি জীবনে সংগ্রাম, ঝুঁকি না থাকে, তাহলে বেঁচে থাকা অনেকটা ফিকে হয়ে যায়।

• জীবনকে এমন একটি ভাবধারার মধ্যে তুলে ধরতে হবে, যাতে সত্যতা পূর্ণমাত্রায় থাকে ।

• বাস্তব বোঝা কঠিন। তবে, জীবনকে সত্যতার পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। সত্যকে গ্রহণ করতে হবে।

• স্বাধীনতার জন্য নিজের রক্ত ​​দিয়ে মূল্য প্রদান করা আমাদের কর্তব্য।

• একটা আদর্শকে খাড়া করতে একজন মারা যেতে পারে, কিন্তু তার মৃত্যুর পর সেই আদর্শ নিজে থেকেই হাজার হাজার মানুষের অধ্মত্যিক চেতনাকে জাগিয়ে তোলে।

• রক্ত দিয়ে স্বাধীনতার জন্য লড়াই করাটা আমাদের কর্তব্য। যে স্বাধীনতা আত্মত্যাগ ও শারীরিক পরিশ্রমের মধ্যে দিয়ে অর্জন করা যাবে তাকে আমরা আমাদের শক্তি দিয়ে রক্ষা করার মতো সাবলম্বী হবো।

• শক্তিশালী প্রতিপক্ষকে তখনই হারানো সম্ভব যখন একটা বাহিনী নিজেকে উদ্বুদ্ধ করতে এবং ভয়ডর হীনতা এবং আপরাজেয় হওয়ার মতন মানসিকতা তৈরি করতে পারবে।

আরও পড়ুন : নেতাজির প্রিয় মহিলা ‘স্পাই’-এর অজানা কাহিনী

•আমাদের জীবনকে এমন একটা তত্ত্বের ওপর ভিত্তি করে গড়তে হবে যেখানে অনেক বেশি সত্য রয়েছে। কিন্তু তার মানে এই নয় যে চূড়ান্ত সত্যের সম্পর্কে ধারণা নেই বলে চুপ করে বসে থাকবো

•একজন সৈনিক হিসেবে সবসময় তিনটি জিনিসের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে – আনুগত্য, দায়িত্ব এবং বলিদান।

• যদি কিছু পেতে হয়, তাহলে তোমাকে দিতে হবে।

• ইতিহাসে আজ পর্যন্ত কোনো পরিবর্তন আলোচনার মাধ্যমে সাফল্য অর্জন করতে পারেনি।

আরও পড়ুন : পিঠে গুলি খেয়ে নেতাজিকে বাঁচিয়েছিলেন কর্নেল নিজ়ামুদ্দিন

•একটা আকাঙ্খাকে আজই আমাদের মধ্যে জাগিয়ে তুলতে হবে যেটি হলো আত্মবলিদানের , যা ভারতকে বাঁচিয়ে রাখবে।

• ভারত ডাকছে, রক্ত আহ্বান করছে, উঠে দাড়াও।কোনো কিছু হারানোর সময় নেই।