নিরামিষ খেলে লাভ লাইফে কতটা প্রভাব পড়ে, গবেষণায় চাঞ্চল্যকর তথ্য

How Veg Food affects your Love Life according to new Research

অনেকেই আছেন যারা নিরামিষ খেতে পছন্দ করেন আর আমিষ জাতীয় খাবার বর্জন করে চলেন। খাদ্যদ্রব্য সবসময় মানুষের চরিত্রের উপর প্রভাব বিস্তার করে।তাই নিরামিষ খাওয়া মানুষদের ব্যবহার পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে বিস্তর আলোচনা হয়। সম্প্রতি নিরামিষভোজীদের লাভ লাইফ নিয়ে একটি গবেষণা করা হয়েছিল। সেই গবেষণার ফল একটি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

জার্নাল অফ সোশ্যাল সাইকোলজি নামে একটি পত্রিকায় নিরামিষভোজীদের লাভ লাইফ সম্পর্কিত গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণায় উঠে এসেছে নানা রকম চঞ্চল্যকর তথ্য। নিরামিষভোজীদের লাভ লাইফ কেমন হয় তারা ঠিক কতখানি বন্ধুত্বপূর্ণ হন, কতখানি রোমান্টিক হন ও সর্বোপরি ডেটিংয়ের জন্য তারা কী ধরনের সঙ্গী পছন্দ করেন ইত্যাদি চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে গবেষণায়।

১। পছন্দের ক্ষেত্র :- গবেষণায় প্রকাশিত ফলাফল অনুযায়ী নিরামিষভোজীরা নিরামিষভোজীদের সঙ্গেই বন্ধুত্ব করতে পছন্দ করেন।

২। সামাজিক পরিচয় :- অন্য একটি গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে যে নিরামিষ ভোজন শুধুমাত্র একটি ডায়েট নয়,এটি একটি সামাজিক পরিচয়ের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। অর্থাৎ তারা নিজেদেরকে নিরামিষাশী বলে পরিচয় দিতে বেশী পছন্দ করেন।

৩। অপছন্দ :- অন্য একটি গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে যে নিরামিষাশীরা সর্বভুক অর্থাৎ যারা ভেজ ও ননভেজ উভয়ে ধরণের খাবারই খান তাদের পছন্দ করেন না।

৪। লাভ লাইফ :- নিরামিষভোজীদের লাভ লাইফ নিয়ে গবেষণা করে বলে জানা যায় যে বেশির ভাগ নিরামিষভোজী ডেটিংয়ের ক্ষেত্রে নিরামিষভোজীদের পছন্দ করেন। তাই তারা তাদের ব্যক্তিগত জীবনে নিরামিষাশী মানুষদেরকেই জীবনসঙ্গী হিসেবে গ্রহণ করে থাকেন।

৫। বন্ধুত্বপূর্ণ :- নিরামিষাশী রা কিন্তু খুব ভালো বন্ধু হয়। হ্যাঁ একটি গবেষণায় জানা গেছে যে নিরামিষাশীরা আমিষাশীদের চেয়ে তিনগুণ বেশি বন্ধুত্বপূর্ণ স্বভাবের হয়।

৬। রোমান্টিক :- যারা নিরামিষ ভোজন করেন তারা অতিরিক্ত পরিমাণে রোমান্টিক হন। অন্যদিকে অপর একটি গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে যে নিরামিষাশী লোকেরা সর্বভুক লোকেদের চেয়ে ১২ গুণ বেশি রোমান্টিক হয়।