IPL-এ চিয়ার লিডারদের উপার্জন জানলে অবাক হবেন

বিশ্বের সবথেকে ধনী ক্রিকেট লিগ আইপিএল। কোটি কোটি টাকা দিয়ে কেনা হয় ক্রিকেটার। যেখানে টাকার ছড়াছড়ি, সেই লিগ থেকে কত টাকা উপার্জন করেন চিয়ার লিডাররা? তাদের আয় কী ক্রিকেটারদের ধারে কাছে থাকে? জানলে অবাক হবেন।

কোটি কোটি টাকার খেলা এই আই পি এল।এখানে কোটি কোটি টাকা খরচ করে  খেলোয়াড় কেনাবেচা হয়।তাই আমাদের জানতে ইচ্ছা করে এই টি -২০ খেলার অন্যতম আকর্ষণ চিয়ার লিডাররা কত টাকা উপার্জন করে। আজ আমরা জানাবো বর্তমানের আই পি এল ম্যাচ গুলিতে প্রতি দলের চিয়ার লিডাররা কত টাকা উপার্জন  করে।

বর্তমানের ভিভো আই পি এলে যে আটটি দল  তাদের খেলা দ্বারা আমাদের মন জয় করেছে। তারা হলো কলকাতা নাইট রাইডার্স, চেন্নাই সুপার কিংস,  সানরাইজার্স হায়দারাবাদ,মুম্বাই ইন্ডিয়ান, রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু, রাজস্থান রয়েলস,কিংগস ইলেভেন পাঞ্জাব, ও দিল্লী ডেয়ারডেভিলস।তাদের ক্রিকেটারদের খেলা ও চিয়ার লিডারদের নাচ দুই মিলে সবটাই একটা জমাটি মশালা। জাতীয় ফুটবল ম্যাচের ক্ষেত্রে যেখানে চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচে ৭৫ -১০০ ডলার করে উপার্জন করে।সেখানে দশম আই পি এলের ক্ষেত্রে বিভিন্ন  দলের চিয়ার লিডাররা আলাদা আলাদা টাকা পায় সেই দলের মালিকদের কাছে থেকে।

কলকাতা নাইট রাইডার্স

যেহেতু এই দলের মালিক শাহরুখ খান, তাই খেলার সাথে সাথে এই দলে আছে গ্ল্যামার। আর তাই চিয়ার লিডার খুঁজতেও দেখা হয় তাদের রূপের ছটার সাথে শারীরিক কলাকৌশলের ক্ষমতা। অর্থাৎ  নাচের সহজাত ক্ষমতা। এই দলের চিয়ার লিডারদের দেওয়া হয় সবচেয়ে বেশি বেতন অন্যান্য দলের তুলনায়। প্রতি ম্যাচে তাদের পারফরম্যান্স অনুযায়ী টাকা দেওয়া হয় প্রায় ৬,০০০-১২,০০০ টাকা। এবং যে  ম্যাচে দল জেতে  সেই ম্যাচে বোনাস হিসেবে পায়  বাড়তি ৩,০০০ টাকা।বাড়তি কোনো অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার জন্য তাদের দেওয়া হয়  ৭,০০০-১২,০০০ টাকা ।এছাড়াও ফোটো শুট হলে তারা পায়  প্রত্যেকে ৫,০০০ টাকা।

রাজস্থান রয়েলস

প্রতিটি ম্যাচ অনুযায়ী প্রতিটি চিয়ার লিডার পায় ৯,০০০ টাকা।এছাড়াও দল জিতলে বোনাস পায় ,প্রতি ম্যাচ অনুযায়ী,৩,০০০টাকা।। এছাড়াও আই পি এল এর কোনো অনুষ্ঠান বা পার্টিতে উপস্থিত করলে, তাদের দেওয়া হয়  ৯,০০০টাকা থেকে ১০,০০০টাকা।

সানরাইজার্স হায়দারাবাদ

কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে এই দল  এই বছর আই পি এল  এ দুর্দান্ত পারফর্ম  করেছে।প্রায় সকল দলকেই এই দল তাদের দুর্দান্ত বোলিং দিয়ে হারের স্বাদ  দিয়েছে।ব্যাট হাতে  তার আই পি এল এর সেরা ফর্মে আছে ক্যাপ্টেন কেন উইলিয়ামসন ।তেমনি আগুনে স্পিন বোলিং এর ছোবল মারছেন রশিদ খান।এই দলের চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচ  ৮,০০০টাকা করে পান।দল ম্যাচ জিতলে  বোনাস হিসেবে প্রতি চিয়ারলিডার পান বাড়তি ৩,০০০টাকা।আই পি এল এর বিভিন্ন পার্টি হলে তারা প্রতি পার্টি ৮,০০০টাকা থেকে  ৯,০০০টাকা।

কিংগস ইলেভেন পাঞ্জাব

প্রীতি জিনটার মালিকানায় এই দলে এবছর সবচেয়ে বড় চমক ছিল ক্রিস গেইল। এইবারও এই দল তাদের ফ্যানদের হতাশ করেছে।এই দলের চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচ  ৮,০০০টাকা করে পান।দল ম্যাচ জিতলে  বোনাস হিসেবে প্রতি চিয়ারলিডার পান বাড়তি ৩,০০০টাকা।আই পি এল এর বিভিন্ন পার্টি হলে তারা প্রতি পার্টি ৮,০০০টাকা থেকে  ৯,০০০টাকা।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

যদিও  ভারতের আই পি এল দলগুলির ধনীতম দলগুলির মধ্যে মিতা আম্বানির মালিকানায় প্রথম থাকা এই দল গত বছর আই পি এল চ্যাম্পিয়ন ছিল।এই দলের চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচ  ৮,০০০টাকা করে পান।দল ম্যাচ জিতলে  বোনাস হিসেবে প্রতি চিয়ারলিডার পান বাড়তি ৩,০০০টাকা।আই পি এল এর বিভিন্ন পার্টি হলে তারা প্রতি পার্টি ৮,০০০টাকা থেকে  ৯,০০০টাকা।

দিল্লী ডেয়ারডেভিলস

এই দলের চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচ  ৮,০০০টাকা করে পান।দল ম্যাচ জিতলে  বোনাস হিসেবে প্রতি চিয়ারলিডার পান বাড়তি ৩,০০০টাকা।আই পি এল এর বিভিন্ন পার্টি হলে তারা প্রতি পার্টি ৮,০০০টাকা থেকে  ৯,০০০টাকা।

রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু,

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে এই দল বিশ্ব ক্রিকেটের সাউথ আফ্রিকা দলের মতো “চোকার্স”এ পরিণত হয়েছে।প্রতিবারের মতো এই দল উচ্চমানের খেলোয়াড় দিয়ে তৈরি হলেও তাদের যোগ্য সম্মান রাখতে পারে নি।বিরাট কোহলি, এ বি ডিভিলিয়ার্স ,এর মতো নামকরা ব্যাটসম্যান, চাহল এর মতো ভালো বোলার থাকার পর ও তারা এবছর প্লে অফ এ উঠতে পারে নি।তবে চিয়ার লিডারদের পরিশ্রম যে হয় নি তা একদম ই বলা যায় না।কারন একটানা না হলেও বিরাট ও ডিভিলিয়ার্স বেশ কিছু ম্যাচে ঝোড়ো ইনিংস খেলেছেন।আর সাথে সাথে চিয়ার লিডাররা নেচেছেন ভালোই।এই দলের চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচ  ১০,০০০টাকা করে পান। দল ম্যাচ জিতলে  বোনাস হিসেবে প্রতি চিয়ারলিডার পান বাড়তি ৩,০০০টাকা। আই পি এল এর বিভিন্ন পার্টি হলে তারা প্রতি পার্টি ৮,০০০ টাকা থেকে  ১০,০০০টাকা।

চেন্নাই সুপার কিংস

বারবার মহেন্দ্র সিং ধোনি তার অধিনায়কত্বের মাধ্যমে দেখিয়েছেন, কেন তিনি এখনও ভারতের সবচেয়ে  সফল ক্যাপ্টেন। এবার তার নিজের খেলারও উন্নতি হয়েছে চরম। দারুন ফর্মে আছেন তিনি।এই দলের চিয়ার লিডারদের বিশেষ কিছু পারিশ্রমিক দেওয়া হয়। এই দলের চিয়ার গার্লসের মধ্যে আছে কোলকাতা নাইট রাইডার্স ডলের প্রধান কোচ জাক কালিস এর ছোট বোন জেনি কালিস। এই দলের চিয়ার লিডাররা প্রতি ম্যাচ  ৯,০০০টাকা করে পান। দল ম্যাচ জিতলে  বোনাস হিসেবে প্রতি চিয়ারলিডার পান বাড়তি ৫,০০০ টাকা। আই পি এল এর বিভিন্ন পার্টি হলে তারা প্রতি পার্টি ৮,০০০টাকা থেকে ৯,০০০টাকা।