সূর্যোদয়ের আগেই কেন সবাইকে ফাঁসি দেওয়া হয়, জেনে নিন ৪ কারণ

সূর্যোদয়ের আগেই কেন সবাইকে ফাঁসি দেওয়া হয়, জেনে নিন ৪ কারণ

অবশেষে ৭ বছর তিন মাসের অপেক্ষার অবসান। ১৬ই ডিসেম্বর ২০১২ সালে ঘটেছিল সেই ভয়াবহ কাণ্ড যে ঘটনার পর এক সুরে আওয়াজ তুলেছিল ভারতবর্ষের সবকটি গ্রাম, সবকটি শহর। ফাঁসি চাই অপরাধীদের। ১৬ ডিসেম্বর ভারতীয় রাজধানীর বুকে চলন্ত বাসে নারকীয় ভাবে ধর্ষন করা হয় নির্ভয়াকে, মৃত্যু হয় তার। তার বন্ধুকে রক্তাক্ত অবস্থায় ছুড়ে ফেলে দাওয়া হয় চলন্ত বাস থেকে। বাস ড্রাইভার রাম সিংহ আগেই জেলে আত্মঘাতী হন। নাবালক হিসেবে ফাঁসির সাজা থেকে বেঁচে যায় আরেক ধর্ষক।আজ বাকি সেই অপরাধী চারজনকে ( মুকেশ সিং, পবন গুপ্তা, বিনয় শর্মা, অক্ষয় কুমার সিং) সকালে সূর্যোদয়ের আগেই ফাঁসি দিল পবন জল্লাদ।

এর আগেও আজমল কাসবের মতন ব্যাক্তিদের শাস্তি দাওয়া হয়। ভারতীয় দণ্ডবিধির অনুযায়ী ফাঁসি সর্বাধিক শাস্তি হিসেবে গণ্য হয়। কিন্তু আপনারা কি জানেন কেন সূর্যোদয়ের আগেই হয় ফাঁসি? এর পেছনে আছে কিছু কারণ।

প্রশাসনিক কারণ: ফাঁসির ক্ষেত্রে জেল কতৃপক্ষ কে অনেক ফর্মালিটি পূরণ করতে হয়। তাই সূর্যোদয়ের আগে এই প্রক্রিয়া শুরু হলে জেলের অন্যান্য কাজে সমস্যা হয় না। তাই জেলের দৈনন্দিন কাজকর্ম শুরু হওয়ার আগেই ফাঁসির বিষয়টি সেরে ফেলা হয়। ফাঁসি হয়ে যাওয়ার পরে জেল কর্তৃপক্ষকে অনেক দায়িত্ব পালন করতে হয়। যেমন, মৃতদেহের ডাক্তারি পরীক্ষা, বিভিন্ন নথিপত্র তৈরি, মৃতের পরিবারবর্গের হাতে মৃতদেহ হস্তান্তর ইত্যাদি। এই দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে জেলের অন্যান্য প্রশাসনিক কাজ যাতে বাধাপ্রাপ্ত না হয়, তা সুনিশ্চিত করার জন্যই সকাল সকাল সেরে ফেলা হয় ফাঁসি দেওয়ার কাজটি।

সামাজিক কারণ: ফাঁসির সাজার বিরুদ্ধে অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় কোনো জনমত তৈরি হয় অথবা কোনো বিশেষ গোষ্ঠী এর বিরোধিতা করতে চায়, তাই যাতে ফাঁসির প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কোনো বাধা না আসে, সেইজন্য ভোর রাতের দিকে যখন সবাই ঘুমোয় তখন ফাঁসির আদেশ সম্পূর্ণ করা হয়।

আরও পড়ুন :- নির্ভয়াকাণ্ডে দোষীদের ফাঁসি দিয়ে রেকর্ড ভাঙ্গা এই জল্লাদকে চিনে নিন

নৈতিক কারণ: ফাঁসির আগে অপরাধীর এমনিতেই মানসিক যন্ত্রণা থাকে। তাই সেই যন্ত্রণা যাতে তাকে বেশিক্ষণ ভোগ করতে না হয় তাই অপরাধীদের ঘুম থেকে তুলেই ফাঁসি দিয়ে দাওয়া হয়।

আরও পড়ুন :- বক্সার জেলে তৈরি দড়ি দিয়েই কেন ভারতে আসামীদের ফাঁসি দেওয়া হয়

আইনি কারণ: আইনে  দিনেআছে দিনের আলোর ফোটার আগেই ফাঁসি দিতে হবে। তাই সব ফাঁসি কিন্তু ভোর বেলাতেই দেওয়া হয়ে থাকে।