কাল থেকে কলকাতার এই ১৫ রুটে চালু হচ্ছে বাস, মানতে হবে ৩টি নিয়ম

তৃতীয়ত দফার লক ডাউনের মধ্যেই আজ ১২ মে থেকে প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালু হলো দেশে। দিল্লি থেকে ১৫ টি গুরুত্বপূর্ন রাজ্যে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। এবার কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় সরকারি বাস ও অ্যাপ ক্যাব চালু হতে চলেছে। তবে এক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট নিয়ম মেনেই চালু হবে পরিবহন।

বুধবার অর্থাৎ আগামীকাল ১৩ মে থেকে কলকাতার ১৫টি রুটে চালু হতে চলেছে সরকারি বাস পরিবহন। এমনটাই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবহন দফতর। তবে বাস চলাচল শুরু হলেও সেক্ষেত্রে কঠোরভাবে পালন করা হবে নিয়ম। বাসগুলিকে রুটে নামানোর আগে সম্পুর্নভাবে স্যানিটাইজ করা হবে, এমনটাই জানানো হয়েছে পরিবহণ দফতর সূত্রে।

জানা যাচ্ছে হাওড়া-নিউটাউন, হাওড়া-কামালগাজি, হাওড়া-গড়িয়া (এস-৭ ও এস-৫), হাওড়া ঠাকুরপুকুর, হাওড়া-বারুইপুর, এসপ্ল্যানেড-আমতলা, বালিগঞ্জ-ডানলপ, যাদবপুর-করুণাময়ী, টালিগঞ্জ-করুণাময়ী, বারাসত-গড়িয়া, বারাসত-জোকা এবং আরও তিনটি রুটে আগামীকাল থেকে সরকারি বাস চলাচল শুরু হচ্ছে। এক্ষেত্রেও কিছু নিয়ম এর কথা বলা হয়েছে।

  • নিত্য বাস স্যানিটাইজ করতে হবে।
  • বাসে সর্বাধিক ২০ জন যাত্রী নেওয়া যাবে।
  • যাত্রা করার সময় যাত্রীদের ফেস কভার ব্যাবহার করা বাধ্যতামূলক।

কারা অ্যাপ ক্যাব ব্যবহার করতে পারবেন

অন্যদিকে আজ থেকেই অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা শুরু হয়েছে কলকাতা, হাওড়া, সল্টলেক এবং ব্যারাকপুরে। পরিবহন দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে মূলত যারা দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে কোরোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছেন তাদের জন্য এবং সরকারি ও বেসরকারি জরুরি পরিষেবার সাথে যুক্ত ব্যাক্তিদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া কোরোনা সংক্রমন ছাড়া বাকি রুগী রা যাতে নিত্য চেকআপ বা কোনো ইমারজেন্সি পরিস্থিতিতে হাসপাতালে পৌঁছাতে পারেন সেই কথাও মাথায় রাখা হয়েছে।

মূলত জরুরি পরিষেবার সাথে যুক্ত ব্যাক্তিরা বা সাস্থ্য তথা পুলিশ কর্মীরা, এমারজেন্সি রুগী বা যাদের কেমো, ডাইলসিস ইত্যাদি প্রয়োজনীয় চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যেতে হয় তারা এবং করা সরকারি নির্দেশ পালন করে জরুরি পরিষেবা দিচ্ছেন তারা এই পরিষেবা ব্যবহার করতে পারবেন।তবে ক্যাব চালু হলেও এই পরিষেবা ব্যবহার করার ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

ক্যাব পরিষেবা ব্যাবহারের নিয়ম

  • একটি ক্যাবে সর্বাধিক ২ জন যাত্রী নেওয়া যাবে।কোনো রুগী থাকলে তার সাথে কেবল একজন ব্যাক্তি গাড়িতে উঠতে পারবেন।
  • কনটেইনমেন্ট এলাকায় এই ক্যাব ঢুকতে পারবে না। কেবলমাত্র কলকাতা, বিধাননগর, ব্যারাকপুর, হাওড়া সিটি পুলিসের এলাকায় এই ক্যাব চলাচল করতে পারবে।
  • এই পরিষেবা ব্যাবহারের জন্য যাত্রীদের কাছে ই-পাস ও প্রয়োজনীয় নথি থাকতে হবে।
  • গাড়ির চালক সম্পূর্ণ সময় ফেস কভার ও গ্লাভস পড়ে থাকতে হবে। মাস্ক বা ফেস কভার ব্যাবহার করতে হবে যাত্রীদেরও।
  • গাড়িতে স্যানিটাইজার মজুদ রাখতে হবে এবং গাড়িতে ওঠার আগে যাত্রীদের সেটি দিতে হবে।