সর্দি-কাশি, জ্বর নয়, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেখা দিচ্ছে নতুন ৩টি উপসর্গ

26825

লকডাউন শিথিল হতেই সামাজিকও সচেতনতা, দূরত্ব বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মাস্ক ছাড়া যত্রতত্র ঘুরে বেড়ানোর ফল হাতেনাতে পেল ভারত। আগের থেকেও আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে এলো করোনা। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার ফলে প্রতিদিন করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে।

কিন্তু এই সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত করোনা ভাইরাসের নয়া স্ট্রেনের কারনে হচ্ছে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে বিশেষজ্ঞরা জোর দিয়ে জানাচ্ছে, মানুষের অসচেতনতা ও করোনাকে তোয়াক্কা না করায় বাড়ছে সংক্রমণ। যার জেরে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত লক্ষাধিক।

করোনার  দ্বিতীয় ঢেউ উপসর্গ

১) করোনার প্রথম ঢেউয়ের মতো দ্বিতীয় ঢেউয়ের ক্ষেত্রেও উপসর্গ মোটামুটি এক, সংক্রমিতের মধ্যে জ্বর শ্বাসকষ্ট থেকে শুরু করে স্বাদ গন্ধের পরিবর্তন হ‌ওয়ার মত লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।

২) পুরনো উপসর্গের পাশাপাশি কিছু কিছু নতুন উপসর্গ দেখা যাচ্ছে।

Corona Second Wave Symptoms

ক) গোলাপি বর্ণের চোখ (Pink Eyes) : চিনের সাম্প্রতিককালের একটি সমীক্ষায় উঠে এসেছে যে এই ক্ষেত্রে চোখের মধ্যে একটি ফোলাফোলাভাব দেখা যাচ্ছে। চোখে জল আসছে এছাড়া চোখ গোলাপি অথবা লাল বর্ণ ধারণ করছে।

খ) শ্রবণ ক্ষমতার হ্রাস (Hearing loss/ impairment) : করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নতুন উপসর্গগুলির মধ্যে শ্রবণ ক্ষমতা হ্রাস হওয়া একটি অন্যতম লক্ষণ। ৫৬ জন সংক্রমিতের মধ্যে সমীক্ষা করা হয়েছিল তার মধ্যে ২৪ জন শ্রবণ ক্ষমতা হারিয়েছেন।

গ) হজম সমস্যা (Gastrointestinal Symptoms) : সাম্প্রতিককালে যারা করোনা সংক্রমিত হচ্ছেন তাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষের‌ই হজমজনিত সমস্যা দেখা যাচ্ছে। ডায়রিয়া, বমি ভাব, পেটে ব্যাথার মত লক্ষণগুলি করোনার ক্ষেত্রে নতুন উপসর্গ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এই সকল হজমের সমস্যা জনিত কারণ দেখা গেলে বিশেষজ্ঞরা তৎক্ষণাৎ করোনা পরীক্ষা করার পরামর্শ দিচ্ছেন।