সোনার ভরির চেয়েও দামী অরিজিতের শোয়ের টিকিট! দাম শুনেই পিলে চমকাচ্ছে অনুরাগীদের

অরিজিতের এক সন্ধ্যার শোয়ের একটি টিকিটের দামেই সংসার খরচ চলে যায়, দাম জেনে অবাক ভক্তরা

আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে কলকাতাতে লাইভ শো করতে আসছেন অরিজিৎ সিং (Arijit Singh)। সেই নিয়ে তিন মাস আগে থেকেই প্রস্তুতি এখন তুঙ্গে। অরিজিৎ সিংয়ের লাইভ শো বলে কথা! ভক্তদের মধ্যে তাই উন্মাদনা তুঙ্গে। কিন্তু আদেও পছন্দের তারকাকে খুব কাছ থেকে দেখে তার গান শোনার মত ক্ষমতা হবে কি বাঙালির? সেটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন।

আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি কলকাতাতে অরিজিতের একটি লাইভ শোয়ের অনুষ্ঠান রাখা হয়েছে। একটি অনলাইন সংস্থাতে অরিজিতের শোয়ের টিকিট এখন থেকেই আগাম কেটে রাখতে পারবেন ভক্তরা। টিকিট বুকিং প্রক্রিয়াও এরই মধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু টিকিট কাটবেন কি? টিকিটের মূল্য দেখেই চোখ কপালে উঠছে যে ভক্তদের!

Who is the girl named on Arijit Singh's guitar

ইকো পার্কের খালি জায়গায় বড় করে অরিজিতের কনসার্টের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানা গিয়েছিল আগেই। অরিজিৎ আসবেন শুনে শহর কলকাতার মানুষরা বেশ উদগ্রীব হয়েই টিকিট কাটতে গিয়েছিলেন। এই শো’তে দশকের জন্য পাঁচটি বিভাগে আসন ভাগ করা হয়েছে। সেগুলি হল যথাক্রমে, ব্রোঞ্জ, সিলভার, গোল্ড, প্ল্যাটিনাম এবং ডায়মন্ড। প্রতিটি বিভাগের টিকিটের দাম শুনলেই চমকে যাবেন।

ব্রোঞ্জ বিভাগের জন্য টিকিটের মূল্য ২৫০০ টাকা। এরপর থেকে ক্রমশ দাম বাড়তে বাড়তে সাধারণের পকেটের নাগালের বাইরে চলে গিয়েছে। সর্বোচ্চ ডায়মন্ড বিভাগের আসনের মূল্য রাখা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা। যারা এই বিভাগের টিকিট কাটবেন তারা মূল স্টেজের একদম সামনে থেকে বসে অরিজিতের গান শোনার সুযোগ পাবেন। সেই সঙ্গে তাদের জন্য খাবার এবং পানীয়ের ব্যবস্থাও থাকবে।

এছাড়াও ডায়মন্ড বিভাগের টিকিট ক্রেতাদের জন্য বিনামূল্যে গাড়ি পার্কিংয়ের সুবিধা থাকছে। আর ব্রোঞ্জ বিভাগের টিকিট যারা কিনবেন তারা একেবারে পেছনের সারিতে বসার সুযোগ পাবেন। এই সারির দর্শকরা যেহেতু দূরে থাকবেন তাই তাদের জন্য বড় বড় এলইডি স্ক্রিনের ব্যবস্থা থাকবে। অর্থাৎ এলইডি স্ক্রিনে অরিজিৎকে দেখেই সন্তুষ্ট থাকতে হবে ব্রোঞ্জ বিভাগের ক্রেতাদের। বড় বড় সাউন্ড সিস্টেমে গান শুনতে পাবেন তারা।

যদিও অবশ্য অরিজিতের প্রকৃত অনুরাগীরা দাম দর নিয়ে বিশেষ চিন্তা করছেন না। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়াতে এই নিয়ে তুমুল চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। কেউ কেউ বলছেন অরিজিতের কনসার্টের একটি টিকিটের দামই তো সোনার ভরীর দাম ছাপিয়ে গিয়েছে। টিকিটের এত দাম দেখে পিলে চমকে যাচ্ছে নেটিজেনদের একাংশের।