মিলে গেল অনুব্রত মণ্ডলের ভবিষ্যদ্বাণী, করোনা ভেঙে দিল সমস্ত রেকর্ড

ভারতে উত্তরোত্তর বাড়ছে করণ আক্রান্তের সংখ্যা। প্রতি ঘন্টায় দেশজুড়ে আক্রান্ত হচ্ছেন কয়েক হাজার মানুষ। দেখতে দেখতে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পেরিয়ে গেল ৫০ লক্ষ।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৯০,১২৩। প্রাণ হারিয়েছেন ১২৯০ জন। আর এরপর এই দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫০ লক্ষ ২০ হাজার ৩৬০। মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৮২ হাজার ৬৬।

‘ভারতে ৫০ লক্ষ করোনা হবে’, জুন মাসে এই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। আর সেই ভবিষ্যদ্বাণীই সত্যি হল আজ।

ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ে যে পরিসংখ্যান দেখা যাচ্ছে তাতে মাত্র গত তিন মাসেই ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় ৪৭ লক্ষ। কারণ ১৪ই জুন ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩,২০,৯২২। আর বর্তমানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫,২০,৩৬০।

অনুব্রত মণ্ডল ঠিক কি বলেছিলেন?

জুন মাসের ১৪ তারিখ একটি কর্মীসভায় অনুব্রত মণ্ডল বলেছিলেন, “আজ ভারতে করোনা কত জানেন? মাত্র তিন লক্ষ। ৫০ লক্ষ করোনা হবে ভারতবর্ষে। ভারত এক ভয়ঙ্কর জায়গায় চলে যাবে।”

আর এই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য অনুব্রত মণ্ডল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দায়ী করে সেদিন বলেছিলেন, “এর জন্য একমাত্র দায়ী নরেন্দ্র মোদি। কোন নীতি নাই, সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শুধু মিথ্যা কথা বলে। একটাও সত্যি কথা বলে না।”

এর পাশাপাশি তিনি মমতা ব্যানার্জির প্রসঙ্গ টেনে জানিয়েছিলেন, “মমতা ব্যানার্জি বারবার বলেছিলেন বিদেশের বিমান বাতিল করতে। পাঁচ দিন সবরকম ট্রেন চালিয়ে লকডাউন করতে। যাতে করে অন্য রাজ্যে আটকে থাকারা বাড়ি ফিরতে পারেন। তাতে করোনা বাড়বে না। কিন্তু মাথামোটা প্রধানমন্ত্রী কথাটা শুনলে না। আজ ভারতবর্ষকে শেষ করে দিলো।”