‘গাঁজাও যে মাদক আমি জানতাম না’, অনন্যা পান্ডে

'গাঁজাও যে মাদক আমি জানতাম না', আরিয়ান মামলায় সাফাই দিলেন অনন্যা পান্ডে

মাদক মামলায় (Drug Case) শাহরুখপুত্র আরিয়ানের নাম জড়ানোর পর এবার বলিউড (Bollywood) অভিনেতা চ্যাঙ্কি পান্ডে কন্যা অনন্যা পান্ডেও (Ananya Pandey) রয়েছেন এনসিবির নজরে। অনন্যার বিরুদ্ধে অভিযোগ, আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট খতিয়ে নাকি দেখা গিয়েছে মাদক নিয়ে সেখানে চর্চা করেছেন অনন্যা। এমনকি আরিয়ানের জন্যও মাদক আনিয়ে দেওয়ার আশ্বাসও দিয়েছেন অভিনেত্রী।

আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট খতিয়ে দেখার পরই অনন্যাকে দপ্তরে তলব করে পাঠায় এনসিবি। নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর আধিকারিকদের মুখোমুখি বসে অনন্যা দাবি করেছেন, গাজা যে এক প্রকারের মাদক, সে কথা নাকি তার জানা ছিল না। একই সঙ্গে তিনি দাবি করেছেন, আরিয়ানকে ‘মজা করে’ মাদক আনিয়ে দেওয়ার কথা বলেছিলেন তিনি। তিনি আরও দাবি করেন, যে কথোপকথন নিয়ে কথা হচ্ছে তা আসলে এক বছরের পুরনো।

এনসিবির তরফ থেকে তলব পেয়ে অনন্যা পান্ডে শুক্রবার তার বাবা চ্যাঙ্কি পান্ডেকে নিয়ে এনসিবির দপ্তরে হাজির হয়েছিলেন। এদিন এনসিবির দপ্তরে সমীর ওয়াংখেড়ের দপ্তরের বাইরে বসেছিলেন চ্যাঙ্কি। চার কন্যা অনন্যা তখন দপ্তরের মধ্যে ঢুকে এনসিবির প্রশ্নের জবাব দিচ্ছিলেন। বৃহস্পতিবার প্রশ্ন উত্তর পর্ব শেষ হলে এনসিবি একটি কথোপকথন তুলে ধরে। সেখানে আরিয়ানকে গাঁজার যোগান দেওয়ার কথা বলেছিলেন অনন্যা।

এনসিবির রিপোর্ট অনুসারে, ওই কথোপকথনে অনন্যা লিখেছিলেন, ‘আমি ব্যবস্থা করব।’ যদিও এনসিবির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে অনন্যার বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত গাঁজা সংগ্রহ অথবা সরবরাহ করার কোনও প্রমাণ মেলেনি। অনন্যাও পাল্টা দাবি করছেন, নিতান্তই রসিকতার ছলে তিনি আরিয়ানের সঙ্গে এই নিয়ে কথোপকথন করেছিলেন।

অনন্যা আরিয়ানকে মাদক জোগান দেওয়ার কথা যেমন অস্বীকার করেছেন, তেমনই দাবি করেছেন তিনি এর আগে কখনও মাদক নেননি। মাদক মামলায় তাকে জেরা করার জন্য পরপর দুইদিন এনসিবির দপ্তরে হাজিরা দিতে হয়েছিল তাকে। বৃহস্পতিবারের পর শুক্রবার সকাল ১১ টায় এনসিবি তাকে ডেকে পাঠিয়েছিল। তিনি উপস্থিত হয়েছিলেন দুপুর ২টোয়। তার আগে বৃহস্পতিবার তাকে টানা ২ ঘণ্টা জেরা করা হয়েছিল। একই সঙ্গে ওই দিনই তার বাড়িতেও তল্লাশি চালানো হয়।

মাদক মামলায় তাকে আরও জেরা করা হতে পারে বলে মনে করছেন অনন্যা। অনন্যার ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে খবর, এই মামলার তদন্তের জন্য আপাতত কিছুদিন নিজের শুটিং পিছিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। এনসিবির দাবি, আরিয়ানের সঙ্গে অনন্যার কথোপকথনে বারবার মাদকের প্রসঙ্গে উঠে এসেছে। এই নিয়ে তাকে জেরা করা হচ্ছে। তবে তিনি মাদক সংগ্রহ অথবা সরবরাহ করেননি বলেই জানাচ্ছে এনসিবি।