বাবার অবৈধ প্রেম জেনে চোখ খুলেছে টিপুর, মা ছেলেকে মিলিয়ে বাহবা পাচ্ছে বরফি

সহচরীর গল্পে বড় টুইস্ট! সহচরীর পাশে টিপু, মা-ছেলেকে কাছাকাছি এনে বাহবা পেল বরফি

দারুণ চমক এল স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘আয় তবে সহচরী’ (Aay Tobe Sohochori) ধারাবাহিকে। দেবতুল্য বাবার আসল পরিচয় জেনে ফেলেছে টিপু। ছাত্রীর সঙ্গে বাবার অবৈধ সম্পর্কের কথা জেনে টিপুর যেন পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গিয়েছে। সে এবার তার মায়ের দিকটা বুঝতে পারছে। জানতে পেরেছে বাবার আসল রূপ। এখন যেন তার কাছে সত্যিটা অনেকটাই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। বাবা অর্থাৎ সমরেশ এবং বাবার ছাত্রী দেবিনাকে একসঙ্গে দেখে তার কাছে সবটাই জলের মতো স্পষ্ট হয়ে যায়।

বাবার এমন রূপ দেখে মনে মনে আঘাত পেয়েছে টিপু। তবে দর্শকরা এতে বেজায় খুশি। তারা সকলেই স্বীকার করছেন, এটা হওয়া আবশ্যক ছিল। বাবা এবং পরিবারের অন্য সকলের কথায় বিশ্বাস করে টিপু এতদিন মাকেই ভুল বুঝে এসেছে। প্রতিনিয়ত মায়ের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে। এমনকি দেবিনার হয়ে কথা বলে সহচরীকেই ছোট করে এসেছে। তাই টিপু কবে সত্যিটা জানতে পারবে সেই নিয়ে দর্শকের উৎসাহের অভাব ছিল না। দর্শক চান টিপু এবার তার মায়ের পাশে এসে দাঁড়াক। এর জন্য অবশ্য পুরো ক্রেডিটটাই দর্শক দিচ্ছেন বরফিকে। বরফির জন্যই সবকিছু সম্ভব হয়েছে।

দর্শক ‘আয় তবে সহচরী’ ধারাবাহিকটিকে দারুণ পছন্দ করছেন। বিশেষত শাশুড়ি-বউমার কেমিস্ট্রিটা সকলেরই মন ছুঁয়ে গিয়েছে। অসমবয়সী বন্ধুত্বের এমন নিদর্শন অভিনবত্ব তুলে ধরেছে দর্শকের সামনে। এই ধারাবাহিক তাই অন্যান্য সব ধারাবাহিকের থেকে আলাদাভাবেই মান্যতা পাচ্ছে দর্শকমহলে। এবার টিপু সহচরীর পাশে এসে দাঁড়ানোতে ধারাবাহিক অন্য মাত্রা পেল। রাগে-দুঃখে নিজেকে ঘরবন্দি করে ফেলে টিপু প্রতিজ্ঞা করে সে আর তার বাবার মুখ দেখবে না। বরফি তাকে প্রশ্ন করে, “আপনি বলবেন না আপনার বাবাকে দেবিনাকে বাড়ি থেকে বের করে দিতে?” টিপু উত্তর দেয়, “যে মানুষটাকে আমি দেবতুল্য ভাবতাম তার সাথে এরকম চিপ টপিকে কথা বলতে পারব না। এর চেয়ে ভালো আমি সারাজীবন আর বাবার মুখই দেখব না।”

তবে দেবিনা এবং সমরেশের সম্পর্কের কথা জেনে সহচরীর বাবা অসুস্থ হয়ে পড়াতেই সমরেশের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায় সহচরী। টিপুও এই পরিস্থিতি দেখে মুখ ফিরিয়ে থাকতে পারে না। সরাসরি বাবার সামনে এই প্রসঙ্গে কথা তোলে এবং জানিয়ে দেয় সে এতদিন যেভাবে মায়ের বিরুদ্ধে গিয়ে বাবাকে সমর্থন করে এসেছে এবার থেকে আর তেমনটা হবে না। এবার সে মাকেই সমর্থন করবে। টিপুর মধ্যে এই পরিবর্তন দেখে দর্শকরা বেজায় খুশি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

সহচরী এতদিন বাড়ির সকলের অবহেলা সহ্য করে নিজের স্বপ্নের গলা টিপে মুখ বুজে সব অত্যাচার সহ্য করেছে। এবার তার স্বপ্ন পূরণ হওয়ার পালা। সেই স্বপ্নপূরণের পথে তার সঙ্গী হয়েছে তার বউমা বরফি। বরফি এসে তার এবং তার সইমার শ্বশুরবাড়ির অসুরদের জব্দ করে সইমাকে কলেজে পাঠায়। দেবিনার বিরুদ্ধে এতদিন একা লড়াই করছিল সে। এবার তার সঙ্গী হলো টিপু। ধারাবাহিকের এই নতুন চমকে বরফির প্রশংসায় পঞ্চমুখ দর্শকরা।