আগামী বছর তাড়াতাড়িই আসছেন মা দুর্গা, রইলো ২০২২-এর পুজোর নির্ঘন্ট

এক বছরও অপেক্ষা করতে হচ্ছে না, আগামী বছর তাড়াতাড়িই আসবেন মা দুর্গা

মায়ের এই বিদায় বেলায় মন না চাইলেও অশ্রুসজল চোখে মাকে বিদায় জানাতেই হয়। একইসঙ্গে শুরু হচ্ছে আগামী একটি বছরের প্রতীক্ষা। দুর্গাপূজার শেষে বিজয়া দশমীর এই তিথিতেই জেনে নিন আগামী বছরের পুজোর নির্ঘণ্ট। জানুন ২০২২ সালে কবে থেকে পূজার (Durga Puja 2022) উৎসব শুরু হচ্ছে।

উৎসব প্রেমী বাঙালিদের জন্য রয়েছে সুখবর। কারণ ক্যালেন্ডারের হিসেব মিলিয়ে যা দেখা গেল তাতে এক বছরও অপেক্ষা করতে হবে না। তার আগেই মায়ের আগমনীর ঢাক বেজে উঠবে। ২০২১ এর তুলনায় আগামী বছর দুর্গাপুজো বেশ কিছুদিন এগিয়ে এসেছে। পুজোর ছুটি শুরু হচ্ছে ২ রা অক্টোবর থেকে।

আগামী বছর পয়লা অক্টোবর ষষ্ঠী। ওই দিন শনিবার পড়েছে। এদিকে সপ্তমীতে আবার গান্ধী জন্ম জয়ন্তী। তার উপর আবার রবিবার। অতএব একই দিনে তিন তিনটে ছুটি! দুটো ছুটি কার্যত মাঠে মারাই যাচ্ছে। কিন্তু ষষ্ঠী-সপ্তমীতেও যাদের অফিস ছুটি থাকে না, তাদের জন্য এ কিন্তু সুবর্ণ সুযোগ। শনি-রবি পরপর দুদিন ছুটি পেয়ে যাবেন তারা।

সোম, মঙ্গল, বুধ, অর্থাৎ ৩রা, ৪ঠা ও ৫ই অক্টোবর পড়ছে অষ্টমী নবমী এবং বিজয়া দশমী। এদিকে আবার দূর্গা পূজার পর লক্ষ্মীপুজো পড়েছে ৯ই অক্টোবর। সেই দিনটি আবার রবিবার। কাজেই সরকারি চাকরিজীবীরা লক্ষ্মী পূজার জন্য আলাদা করে ছুটি পাচ্ছেন না। বেসরকারি চাকরিজীবীদের মধ্যে যারা লক্ষ্মীপুজোর আলাদা ছুটি পান না তারা রবিবারে বাড়িতে পূজো সেরে নিতে পারবেন।

তবে কালীপুজোর আনন্দে কিন্তু কোনও টানাপোড়েন নেই। ২৪শে অক্টোবর কালীপুজো। সেই দিনটি সোমবার। তাই শনি, রবি, সোম একসঙ্গে পরপর তিনদিন ছুটি পেয়ে যাবেন সরকারি চাকরিজীবীরা। কালীপুজোর ঠিক পরদিনই দীপাবলি। দীপাবলিতে বাংলাকে ছুটি না থাকলেও উৎসবের আমেজ তো থাকছেই!