ভারতে Z+, Z, Y, ও X ক্যাটাগরির নিরাপত্তা কারা পায়? কেন  পায়, কখন পায়?

ভারতের মতো বিশাল জনসংখ্যাযুক্ত দেশে প্রত্যেক মানুষকেই আলাদা করে নিরাপত্তা দেওয়া কোন দিনই সম্ভব নয়। কারা কারা VIP তা সাধারণত তাদের জনপ্রিয়তা এবং প্রাণহানির হুমকির উপর ঠিক করা হয়ে থাকে। তাই খেলোয়াড় থেকে শুরু করে অভিনেতা,অভিনেত্রী, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, যোগগুরু, বিজ্ঞানী, শিল্পপতি, বিভিন্ন আমলা, বিচারপতি, বিধায়ক, সাংসদ সবাই পড়ে VIP দের মধ্যে।

ভারতের  গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিবিশেষকে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য আছে চারটি ক্যাটাগরি বা শ্রেণী। এই চারটি শ্রেণীতে গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিদের ভাগ করে নেওয়া হয় প্রথমে। তারপর শ্রেণী অনুযায়ী দেওয়া হয় তাদের নিরাপত্তা। এই চারটি শ্রেণী হল, Z+ শ্রেণী, Z শ্রেণী, Y শ্রেণী এবং  X শ্রেণী।

বিশেষ নিরাপত্তা কখন দেওয়া হয়?

যখন কোন ব্যক্তি রাষ্ট্রের কোন উচ্চ পদে অধিষ্ঠিত থাকে তখন সরকারি নিয়মে তাদের  বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়া হয়ে থাকে। যেমন প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, প্রাপ্তন প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতি , উপরাষ্ট্রপতি ,সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ও তাদের পরিবার। এছাড়াও লোকসভার বিরোধী দলের নেতা নেত্রী, বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং অন্যান্য মন্ত্রীরাও পেয়ে থাকে এই সুরক্ষা।

এছাড়াও যদি কোন বিশেষ ব্যক্তি বা শিল্পপতি বা অভিনেতা বা অন্য কোন ব্যক্তি প্রাণ নাশের হুমকি পেয়ে থাকে তাহলে তিনি তা নিকটবর্তী থানায় জানাতে পারেন এবং  পরবর্তীতে তা গুপ্তচর বিভাগের কাছে পাঠানো হয়  ঘটনার সত্যতা জানার জন্য।ঘটনার সত্যতা প্রমান হলে একটি কমিটি গঠন করা হয়। যে কমিটিতে থাকেন সাধারণত কেন্দ্রীয় সরকারের গৃহ মন্ত্রকের সচিব পর্যায়ের কোন আমলা, রাজ্য পুলিশের ডিজি এবং  রাজ্য মুখ্য সচিব। তারা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলে যে ব্যক্তিকে নিরাপত্তা দেওয়া হবে তার সম্পর্কিত তথ্য কেন্দ্রীয় গৃহ মন্ত্রকে পাঠানো হয় অন্তিম অনুমোদন নেওয়ার জন্য।

কারা থাকে এই সুরক্ষার দায়িত্বে ?

ভারতের বিভিন্ন ব্যক্তিদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য আছে নানা প্রশিক্ষিত পুলিশ বাহিনী, সেনা বাহিনী এবং আধা সেনা বাহিনী। শুধুমাত্র ব্যক্তিদের জন্য নয় এরা বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান, বিমানবন্দর, বাসভবন থেকে শুরু করে হেরিটেজ সাইটের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে। এইসব  বিশেষ বিশেষ ব্যক্তিদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য আছে এস পি জি বা স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রূপ (SPG), এন এস জি বা ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড(NSG), আই টি বি পি বা ইন্দো টিবেটিয়ান বর্ডার পুলিশ (ITBP), সি আর পি এফ  বা সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স(CRPF) এবং সি আই এস এফ বা সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্স (CISF) এবং রাজ্য পুলিশের দক্ষ বাহিনী।

কারা পায় Z+ নিরাপত্তা?

সাধারণত এই নিরাপত্তা হল দেশের সর্বোচ্চ স্তরের নিরাপত্তা। তাই এই নিরাপত্তা দেওয়া হয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের।যেমন প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ন মন্ত্রীরা। এইসব গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিদের সমস্ত জায়গার সফরে দেওয়া হয় এই বিশেষ নিরাপত্তা। তাদের সফরসূচি ঠিক করা হয় সকল নিরাপত্তা মাথায় রেখে। এমনকি তারা যদি বিদেশেও যায় তাহলে তাদের সঙ্গে থাকে বেশ কিছু দক্ষ মানের কামান্ডো। আর বাকি দায়িত্ব থাকে তিনি যে দেশে যাচ্ছেন সেই দেশের সরকারের। এদের সফরসূচির যাত্রাপথের পুরো অংশটাই গোপনীয় রাখা হয়।

Z+ নিরাপত্তার বজ্র আটুনি

Z+ নিরাপত্তা হল ভারতের কোন ব্যক্তিকে দেওয়া সর্বোচ্চ স্তরের নিরাপত্তা।  এই পর্যায়ের নিরাপত্তা বলয়ে ৫৫ জনের মতো নিরাপত্তাকর্মী বিশেষ ব্যক্তির  নিরাপত্তায় নিযুক্ত থাকে। যাদের মধ্যে  ১০ জনের বেশি থাকে NSG কমান্ডো এবং বাকিরা হয় পুলিশ বাহিনীর বিশেষ দক্ষ  নিরাপত্তা কর্মী।

এই নিরাপত্তায় যেসব NSG কমান্ডো থাকে তারা প্রত্যেকেই  অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র চালাতে দক্ষ এবং মার্শাল আর্টে  এবং হাতিয়ার ছাড়া লড়াই করতেও তারা উচ্চ প্রশিক্ষিত।এই সমস্ত কমান্ডোদের কাছে থাকে অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র।যেমন MP5 বন্দুক ,এবং তাছাড়াও থাকে প্রযুক্তিগত উন্নত মানের যোগাযোগ রক্ষাকারী যন্ত্র।

বর্তমানে যারা এই নিরাপত্তা পায়?

সারা ভারত জুড়ে  ১২ থেকে ১৭ জনের মতো বিশেষ বিশেষ গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিদের এই Z+ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়া হয়।বর্তমানে এই শ্রেণীর নিরাপত্তা দেওয়া হয় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদী, ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ,বি জে পি দলের সভাপতি অমিত শাহ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ,কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি ,কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী,সোনিয়া গান্ধী, মনমোহন সিং ,এবং আরও অনেকে।

Z শ্রেণীর নিরাপত্তা

এই শ্রেণীর নিরাপত্তা হল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্তরের নিরাপত্তা। এই শ্রেণীর নিরাপত্তা বলয়ে  মোট ২২ জনের মতো নিরাপত্তা কর্মী থাকে।যাদের মধ্যে ৪থেকে ৫ জন  NSG কমান্ডো থাকে।আর বাকিরা হয় পুলিশ বিভাগের দক্ষ কর্মী। এই শ্রেণীর নিরাপত্তা বলয়ে ITBP বা CRPF কর্মীরাও থাকেন ।তাছাড়া থাকে একটি এসকর্ট গাড়ি।

বর্তমানে ভারতে যারা পায় Z শ্রেণীর নিরাপত্তা

যোগগুরু  বাবা রামদেব, বলিউড অভিনেতা আমির খান এবং আরও অনেকেই এই শ্রেণীর নিরাপত্তা পান।

Y শ্রেণীর নিরাপত্তা বলয়

এই শ্রেণীর নিরাপত্তা বলয় হল তৃতীয় স্তরের নিরাপত্তা বলয়।এই শ্রেণীর নিরাপত্তায়  ১১জনের মতো নিরাপত্তা কর্মী নিযুক্ত থাকে যাদের মধ্যে ১থেকে দুই জন NSG কমান্ডো এবং বাকিরা হয় পুলিশের দক্ষ কর্মী। এই শ্রেণীর নিরাপত্তায় দুইজন ব্যক্তিগত নিরাপত্তা অফিসার নিযুক্ত থাকে। ভারতের এই শ্রেণীর নিরাপত্তা দেওয়া হয় অনেককেই।

X শ্রেণীর নিরাপত্তা

এই শ্রেণীর  নিরাপত্তা বলয় হল চতুর্থ শ্রেণীর নিরাপত্তা বলয়। এই শ্রেণীর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে ব্যক্তির নিরাপত্তায় ২জন নিরাপত্তা কর্মী থাকে। এক্ষেত্রে কোন NSG কমান্ডো থাকে না। তার বদলে পুলিশ কর্মী থাকে। এদের মধ্যে একজন ব্যক্তিগত নিরাপত্তা অফিসার হয়ে থাকে। ভারতে এই শ্রেণীর নিরাপত্তা অনেককেই দেওয়া হয়।