হু হু করে বাড়বে টিআরপি, টলিউড অভিনেত্রীকে নিয়ে মিঠাইতে আসছে জমজমাট মোড়

ন্যাকা ফুলঝুরির মুখে ঝামা ঘষে দেবে মিঠাই, মিঠাই বন্ধ হওয়া রূখতে টলিউডের অভিনেত্রী এবার মনোহরাতে

গত কয়েক দিন ধরেই মিঠাই (Mithai) ভক্তরা চরম আশঙ্কা উদ্বেগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। পরিস্থিতি এমনই যে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার জো নেই এতটুকু। কারণ স্টুডিও পাড়াতে হাওয়ায় এখন ভাসছে মিঠাই বন্ধ হওয়ার খবর। এখনই যদি ধারাবাহিকের টিআরপি না বাড়ে তাহলে বেজায় বিপাকে পড়ে যাবে মিঠাই। তবে আর আশঙ্কার কারণ রইল না। মিঠাইতে আসছে এক বড় চমক।

গত কয়েকদিন ধরেই গল্পের নিত্য নতুন মোড় এনে দর্শকদের টুইস্ট দেওয়ার অবিরাম চেষ্টা করে যাচ্ছেন লেখিকা। ধারাবাহিকে একের পর এক নতুন চরিত্রের আবির্ভাব হয়েছে। মোদক বাড়ির উপর বিপদ দেখিয়ে পুরো সাসপেন্স বজায় রাখার চেষ্টা কিছু কম হয়নি। এত বিপদের মাঝেও সিদ্ধার্থ-মিঠাইয়ের রোমান্স ও দর্শকদের নজর টেনেছে।

Mithai Music Video Bole De Bole De

কিন্তু কোনও কিছুই টিআরপিতে মিঠাইকে সেরার আসন ফিরিয়ে দিতে পারেনি। বরং প্রতিসপ্তাহেই ভক্তদের নিরাশ করে পিছিয়ে পড়েছে মিঠাই। তবে এবার মিঠাইয়ের মরা গাঙে বান নিয়ে আসছেন টলিউডের অভিনেত্রী। খুব শীঘ্রই ধারাবাহিকে পা রাখবেন তিনি। চ্যানেলের তরফ থেকে অফিশিয়ালি কিছু জানানো না হলেও অভিনেত্রী ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে এই খবর প্রচার করেছেন।

ইনি হলেন প্রখ্যাত মডেল অভিনেত্রী তথা সঞ্চালিকা ঐন্দ্রিলা ব্যানার্জী। কিছুদিন আগেই জি বাংলার ‘পিলু’ ধারাবাহিকে তাকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল। তিনিই এবার মিঠাইতে নতুন গল্পে নতুন চমক নিয়ে আসছেন। ইনস্টাগ্রামে তিনি জানিয়েছেন জি বাংলার মিঠাই ধারাবাহিকে শীঘ্রই পা রাখবেন। দর্শকদের তাই মিঠাই দেখার অনুরোধ করেছেন তিনি।

বড় পর্দার এই অভিনেত্রী বিভিন্ন ধারাবাহিকে ছোটখাটো চরিত্রে অভিনয় করেন। সেই সঙ্গে টলিউডের নানা সিনেমাতেও তিনি অভিনয় করেছেন। তবে মিঠাইতে তিনি কোন চরিত্রে আসবেন তা জানা যায়নি। কিন্তু তার আসার খবরে মিঠাই ভক্তরা খুশি হয়েছেন। তার কারণ শোনা যাচ্ছিল পুজোর পরেই মিঠাই নাকি বন্ধ হয়ে যাবে। ধারাবাহিকে নতুন চরিত্র আসছে মানে মিঠাই এবার নতুন মোড় নেবে।

ভক্তরা মিঠাইতে এমনই কিছু নতুন মোড় দেখতে চেয়েছিলেন। আসলে কয়েকদিন ধরেই ধারাবাহিকের গল্প তাদের কাছে একঘেয়ে মনে হচ্ছে। একই সেই ছদ্মবেশের গল্প দেখতে দেখতে বিরক্ত হয়ে পড়েছেন তারা। ঐন্দ্রিলার আগমনে নতুন করে আশা জাগছে তাদের মনে।