‘তোমার দ্বারা কিছু হবে না’, সমালোচকদের মুখ বন্ধ করে আজ বাংলা সিরিয়ালের নায়িকা আলতা ফড়িং

বারবার প্রত্যাখ্যাত হয়ে ছেড়ে দিয়েছিলেন অভিনয়, সমালোচকদের মুখ বন্ধ করে আজ নায়িকা আলতা ফড়িং

Star Jalsha Alta Phoring Actress Kheyali Mondal Unknown Fact's

স্টার জলসার (Star Jalsha) আলতা ফড়িং (Alta Phoring) নস্করকে তো এতদিনে দর্শকরা বেশ ভালমতই চিনে নিয়েছেন। ছোটখাটো মিষ্টি চেহারার মেয়েটির সারল্যে মাখা মুখ আর মায়ের জন্য তার লড়াইটা দেখে তাকে ভালোবেসে ফেলেছেন দর্শকরা। অনস্ক্রিন আলতা ফড়িংকে যেমন চরম স্ট্রাগল করে জিমনাস্টিকের ময়দানে সফল হতে হয়েছে, বাস্তবেও কিন্তু অভিনেত্রী খেয়ালী মন্ডলকে (Kheyali Mondal) ঠিক ততটাই কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে এগোতে হয়েছে।

স্টার জলসার এই নাবাগতা অভিনেত্রীর নাম খেয়ালী মন্ডল। তিনি এই চ্যানেলের নতুন মুখ হলেও আগেতে কিন্তু মাত্র ১০ বছর বয়স থেকেই শুরু হয়েছিল কাজের জগতে তার পথ চলা। কিন্তু শুরুতেই তিনি সফল হতে পারেননি। খেয়ালীকে তখন ব্যাক স্টেজে ডান্সার হিসেবে নেওয়া হত। তবে তার মনে স্বপ্ন ছিল অভিনয় করার। তার জন্য অনেক অডিশন দিতে হয় তাকে।

ছোট্ট বয়স থেকেই বারবার অডিশন দিয়ে ক্রমাগত রিজেক্ট হতে হয়েছিল খেয়ালিকে। কিন্তু তবুও তিনি হাল ছাড়েননি। ক্লাস ফাইভে পড়ার সময় থেকেই তিনি জিমন্যাস্টিক শিখেছেন। আসলে নাচের জন্য জিমন্যাস্টিক শিখতে হয়েছিল তাকে। তার সেই শিক্ষা আজ ধারাবাহিকে কাজে লাগছে। পর্দায় ফড়িংয়ের স্ট্যান্ট দেখলে সত্যিই অবাক হতে হয়।

খেয়ালী জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত নৃত্যশিল্পী। ২০২০ সালে ভোপালে তিনি ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন নাচের জন্য। তার কেরিয়ারের শুরুটা নাচ দিয়েই হয়েছিল, আজ তিনি বাংলা টেলিভিশনের একজন জনপ্রিয় নায়িকা। একসময় অডিশন দিয়ে বারবার প্রত্যাখ্যাত হলেও স্টার জলসার ‘আলতা ফড়িং’ প্রজেক্টের জন্য নিজে থেকেই সুযোগ গিয়েছিল তার কাছে।

Kheyali Mondal

টলি টাইম ইউটিউব চ্যানেলের কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে অভিনেত্রী জানিয়েছেন নির্মাতাদের তরফ থেকে তাকে ফোন করে অডিশনের জন্য ডাকা হয়। অডিশন দিতেই তিনি সিলেক্ট হয়ে যান। সবটা এত তাড়াতাড়ি হয়েছিল যে তিনি বিশ্বাসই করে উঠতে পারছিলেন না তার স্বপ্ন এবার পূরণ হতে চলেছে। ‘আলতা ফড়িং’ খেয়ালীর প্রথম কাজ নয়। এর আগে কালার্স বাংলার একটি ধারাবাহিকে তিনি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। 

নায়িকার চরিত্র জন্য বারবার অডিশন দিয়ে যখন ব্যর্থ হয়ে পড়েন তখন হতাশার কারণে অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার কথাও ভেবেছিলেন খেয়ালী। বদলে শুধু পড়াশোনা আর নাচ নিয়েই থাকতে চেয়েছিলেন। শুধু প্রত্যাখ্যান নয়, তাকে এটাও শুনতে হয়েছে “তুমি কখনও স্পটলাইটে আসতে পারবে না”! আজ নায়িকা হতে পেরে সেই সমস্ত মানুষ যারা তাকে অপমান করতেন, তাদের উপযুক্ত জবাব দিতে পেরেছেন খেয়ালী।