২৭ বছরেও ভোলেননি প্রথম প্রেম, দেবশ্রীকে আবার ফিরে পেতে চান প্রসেনজিৎ

২৭ বছর কথা নেই! মান অভিমান ভুলে প্রথম স্ত্রী দেবশ্রীকে আবার ফিরে পেতে চান প্রসেনজিৎ

What are the Reason behind Prosenjit Chatterjee and Debashree Roy Divorce

প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী (Prasenjit Chatterjee) এবং দেবশ্রী রায়ের (Debashree Roy) অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি যতটা জনপ্রিয় ছিল অফস্ক্রিনে তাদের প্রেমের রসায়নটাও ছিল ঠিক ততটাই গাঢ়। ছোটবেলার প্রেম বলে কথা, দুজনের কাছেই সেটা ছিল প্রথম প্রেম। বড় হয়েও তাদের সম্পর্ক অটুট থেকে যায়। ১৯৯২ সালে প্রেম পায় পরিণতি। দেবশ্রী এবং প্রসেনজিতের বিয়েটা বেশ ধুমধাম করেই হয়েছিল। কিন্তু বিধি বাম। এত বছরের প্রেম বিয়ের পর মাত্র ৩ বছরই টিকেছিল।

বিয়ের পর তিন বছরের মধ্যেই প্রেম-বন্ধুত্বের বিচ্ছেদ হয়ে যায় প্রসেনজিৎ এবং দেবশ্রীর। ‘দেবীবরণ’ থেকে ‘১৯শে এপ্রিল’, একসময় টলিউডে চুটিয়ে কাজ করেছিলেন দুজনে। শোনা যায় ‘১৯শে এপ্রিল’ ছবি পরই নাকি দুজনের মধ্যে মন কষাকষি চরম আকার নেয়। যাই হোক, এই তারকা জুটির বিচ্ছেদের পর কেটে দিয়েছে ২৭ টা বছর। এখনও কি দুজনের মনের মধ্যে একে অপরকে নিয়ে কোনও অনুভূতি লুকিয়ে আছে?

Debashree_Roy_in_Juddho

শোনা যায় বিচ্ছেদের পর নাকি একে অপরের সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্কটাও ঘুঁচিয়ে দিয়েছিলেন তারা। প্রসেনজিৎ তার আত্মজীবনী ‘বুম্বা শট রেডি’তে দেবশ্রী রায় ও তাপস পালের সঙ্গে তার বন্ধুত্বের ব্যাপারে লিখেছিলেন। সেখানে দেবশ্রীর সঙ্গে তার প্রেম, বিয়ে, সম্পর্কের অবনতি, বিবাহ-বিচ্ছেদের উল্লেখ ছিল। ২৭ বছর পর ‘কাছের মানুষ’ ছবির প্রচারে প্রসেনজিৎ ফাঁস করেন বিচ্ছেদের পর তিনি চরম হতাশায় নিজেকে গৃহবন্দী করে ফেলেন।

অবশ্য দেবশ্রী তার জীবন থেকে চলে যাওয়ার পর নতুন সম্পর্কেও আবদ্ধ হয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। একবার নয়, পরপর তিনবার তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। দেবশ্রীর পর অপর্ণা গুহ ঠাকুরতাকে বিয়ে করেন। যদিও সেই সম্পর্কও টেঁকেনি বেশিদিন। এরপর টলিউড নায়িকা অর্পিতা চ্যাটার্জীকে বিয়ে করেন প্রসেনজিৎ। এক পুত্র সন্তান নিয়ে তৃতীয় বৈবাহিক জীবনে সুখেই আছেন তিনি।

Here is Why Arpita Chatterjee Stepped back from Acting after Her Marriage With Prasenjit Chatterjee

তবে আক্ষেপ কিন্তু তার মনে রয়েই গিয়েছে। হাজার হলেও দেবশ্রী ছিলেন তার প্রথম প্রেম, ছোটবেলার বান্ধবী। বিবাহ-বিচ্ছেদের কারণে ‌জীবন সঙ্গিনীকে হারানোর পাশাপাশি তিনি হারিয়ে ফেলেন তার বান্ধবীকেও। দীর্ঘ ২৭ বছর তাদের দেখা হয়নি, কথা হয়নি। তাই সুযোগ পেলে, অতীতে ফিরতে পারলে তিনি ফিরিয়ে আনতেন তাদের বন্ধুত্বের সম্পর্কটাকে। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে তিনি এমনটাই মন্তব্য করেন।

Debashree_Roy_in_Juddho

‘কাছের মানুষ’ ছবির প্রচার চলাকালীন নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রথমবার অকপট হয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। তাকে প্রশ্ন করা হয় তিনি যদি অতীতে ফিরতে পারতেন তাহলে কোন সম্পর্ককে আবারও ঠিক করতে চাইতেন? উত্তরে তিনি বলেন, “আমার জীবনে সম্পর্ক গড়েছে, ভেঙেছে। এখন এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে মনে হয়, আমার প্রথম স্ত্রী দেবশ্রীর সঙ্গে অনেকদিন কথা নেই, দেখাও নেই। দেখা হয়নি বলেই হয়তো কথা হয়নি। আমরা ছোটবেলার বন্ধু, আমি চাইব একবার দেখা করে বলতে যে, যাতে আমরা অন্তত বন্ধুত্বের জায়গায় চলে আসতে পারি।”