দেবের নায়িকা হতেই ভোলবদল, একঘেয়ে সিরিয়াল আর করবেন না, মুখ খুললো যমুনা ঢাকি

একঘেয়ে বাংলা সিরিয়ালে কাজ করতে চান না, শ্বেতাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড়, মুখ খুললেন অভিনেত্রী

জি বাংলার (Zee Bangla) যমুনা ঢাকি (Jamuna Dhaki) শ্বেতা ভট্টাচার্য (Sweta Bhattacharya) এখন বড় পর্দার নতুন মুখ। দেবের ছবিতে অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। ইতিমধ্যেই ‘প্রজাপতি’ ছবির শুটিংটাও শেষ হয়েছে। অভিনেত্রী হাতে তাই এখন অনেকটাই সময় বাকি। বলতে গেলে এখন ফাঁকাই বসে রয়েছেন শ্বেতা। তাই ভক্তদের মনে আশা জাগছে যে অভিনেত্রী হয়তো আবার শীঘ্রই ছোট পর্দায় নতুন কোনও সিরিয়ালে ফিরতে পারেন।

‘যমুনা ঢাকি’ শেষ হওয়ার পরই দেব এবং মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে সিনেমার পর্দায় প্রথম কাজের সুযোগ এসে যায় শ্বেতার হাতে। তবে তিনি বেশ ভালমতই জানেন যে ধারাবাহিকভাবে উপার্জন কেবল বাংলা ধারাবাহিক থেকেই সম্ভব। তাই তো শুধু সিনেমার অপেক্ষায় তিনি বসে নেই। শীঘ্রই আবার নতুন সিরিয়ালে কাজ করার ইচ্ছে তার মধ্যে প্রবল।

এরই মধ্যে আবার তাকে নিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন গুজব রটেছে। তিনি নাকি স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর প্রযোজনা সংস্থা ছেড়ে সুশান্ত দাসের সংস্থায় নাম লিখিয়েছেন। শুধু তাই নয়, তাকে নাকি বলতে শোনা গিয়েছে তিনি একই ধরনের গল্পে কাজ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। তাই নাকি তিনি এখন স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর ধারাবাহিকে কাজ করতে চান না।

যদিও শ্বেতা এই গুজবের তীব্র প্রতিবাদ করেছেন। সম্প্রতি আনন্দবাজারের কাছে একটি সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় অভিনেত্রী জানিয়েছেন এমন কোনও কথাই তিনি বলেননি। একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর হাত ধরেই তিনি বাংলা টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ করতে পেরেছিলেন। তাই তিনি কখনও তাকে অগ্রাহ্য করতে পারবেন না।

শ্বেতা আরও বলেছেন তার মাথার উপরে সংসারের দায়িত্ব রয়েছে। তাই শুধু ছবির ভরসায় বসে থাকলে তার চলবে না। আপাতত শোনা যাচ্ছে নতুন ধারাবাহিকের হাত ধরে আবারও নাকি পর্দায় ফিরতে চলেছেন অভিনেত্রী। তবে স্টুডিওপাড়ায় খবর, এখনও ধারাবাহিকের চুক্তিতে সই করেননি তিনি। শ্বেতার পারিশ্রমিক নিয়ে এখনও কোনও কথা হয়নি। পারিশ্রমিক ঠিক হলে তবেই তিনি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানা গিয়েছে।

বাংলা টেলিভিশনের এই অভিনেত্রী ইন্ডাস্ট্রিতে দাপটের সঙ্গে কাজ করছেন। তবে এতদিনে তার হাতে টলিউডের সুযোগ এসেছে ভাবলে ভুল হবে। শ্বেতা চাইলে রাজ চক্রবর্তীর ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’ ছবি দিয়ে কেরিয়ার শুরু করতে পারতেন। তবে সেই সময় তিনি রাজি হননি। এছাড়াও শ্বেতার আর কিছু নিজস্ব আদর্শ রয়েছে। যেমন তিনি ছোট পোশাক বা ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে পারবেন না। এই দুই শর্তে যদি তাকে ধারাবাহিক দিয়েই এগিয়ে যেতে হয় তাহলে তিনি তাতেও রাজি।