কুটকাচালি নেই, টিআরপিও নেই, ঘাড় ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেওয়া হল আয় তবে সহচরীকে

কুটকাচালি ছাড়া সিরিয়াল চলবে না, ঘাড় ধাক্কা দিয়ে সরানো হল আয় তবে সহচরীকে

যতই ট্রোল সমালোচনা হোক না কেন, কুটকাচালি ছাড়া ধারাবাহিক চলবে না এই বাংলায়। আরও একবার এই কথাটিই প্রমাণ করে দিল স্টার জলসা (Star Jalsha)। বদলে গেল আয় তবে সহচরীর (Aay Tobe Sohochori) স্লট। এই শিক্ষামূলক ধারাবাহিক ইদানিং টিআরপি তালিকাতে তেমন ভাল ফলাফল দেখাতে পারছে না। তাই শেষমেষ স্লট ছেড়ে দিতে হল সহচরীকে।

শুরুতে মধ্যবয়সী গৃহবধুর কলেজ যাওয়ার লড়াইয়ের গল্প নিয়ে যখন ধারাবাহিকটি শুরু হয় তখন টিআরপি তালিকাতে সেভাবে জায়গা করে নিতে পারছিল না সহচরী। শেষমেষ যেই সহচরীর স্বামীর পরকীয়ার গল্প ঢুকলো অমনি হু হু করে বাড়তে থাকে টিআরপি। ধারাবাহিকের দেবিনার এন্ট্রি হতেই দর্শক সংখ্যাও বাড়তে থাকে।

এরপর টিআরপির খাতিরে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ধারাবাহিক আর গল্পের মূলস্রোতে ফিরে আসতে পারেনি। পরকীয়া ছেড়ে যেই গল্প সহচরীর পড়াশোনা, কলেজের দিকে মোড নিচ্ছে অমনি কমে যাচ্ছে টিআরপি! এই নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের কাছে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এতকিছুর পরেও দর্শকদের রুচি পাল্টালো না।

আবার এদিকে স্টার জলসার হাতে এখন পরপর নতুন ধারাবাহিক রয়েছে। তাই চ্যানেলের কোপ এসে পড়লো আয় তবে সহচরীর উপরে। এতদিন রাত ৯.০০টায় সম্প্রচারিত হতো এই ধারাবাহিক। যা এরপর থেকে প্রতিদিন রাত ১০.০০টায় সম্প্রচারিত হবে। যদিও চ্যানেলের এই সিদ্ধান্তে সহচরীর ভক্তরা বিশেষ খুশি নন।

তবে তারা আশা রাখছেন রাতের দিকের স্লটেও ভালই ফল দেবে সহচরী। এইবার গঙ্গারাম বন্ধ হওয়ার সম্ভাবনা দেখে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন দর্শকদের একাংশ। ১৮ ই জুলাই থেকে সম্প্রচারিত হবে এই ধারাবাহিকটি। আবার ওইদিন থেকেই ৯.০০ টায় সম্প্রচারিত হবে নতুন ধারাবাহিক এক্কাদোক্কা।