বলিউডের ৫টি সেরা সিরিয়াল কিলার সিনেমা যা দেখলে শিউরে উঠবে গা

রহস্য রোমাঞ্চে ভরা, সাসপেন্সে মোরা এই ৫ বলিউড সিরিয়াল কিলিং ছবি না দেখলে চরম মিস

বরফের মত ঠান্ডা মাথা, তুখড় বুদ্ধি, সকলের অজান্তে একের পর এক খুন করে যাচ্ছেন, অথচ ভাবলেশহীন! সিরিয়াল কিলারদের নিয়ে মনস্তত্ত্ববিজ্ঞানী থেকে অপরাধবিজ্ঞানীদের গবেষণার অন্ত নেই। তাদের নিয়ে সাধারণের আগ্রহও প্রবল। বলিউড, হলিউডের সর্বত্র সিরিয়াল কিলারদের নিয়ে রোমহর্ষক ছবি সিরিজ বানানো হচ্ছে। আজ এই প্রতিবেদনে বলিউডের এমন কিছু ছবির উল্লেখ রইল যেগুলো সিরিয়াল কিলারদের (Bollywood Movies Based On Sirial Killer’s Story) উপর বানানো এবং দর্শকদের বিচারের সেরা। এক নজরে দেখে নিন বলিউডের সেরা রহস্য রোমাঞ্চ নির্ভর ছবিগুলোর নাম।

কৌন (Kaun) : রাম গোপাল ভার্মা পরিচালিত এই ছবিটিকে বলিউডের সিরিয়াল কিলারধর্মী ছবির মাস্টারপিস বলা যায়। একটি বাড়িতে একা একটি মেয়ে ও সেই বাড়িতে আসা কিছু আগন্তুকদের নিয়ে ছবির গল্প সাজানো। গল্পের প্রতি পরতে রয়েছে চমক যা আপনাকে শেষ পর্যন্ত দেখেতে বাধ্য করবে। ছবিতে অভিনয় করেন উর্মিলা মাতন্ডকর এবং মনোজ বাজপেয়ী। যারা সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার পছন্দ করেন তাদের কাছে এই ছবি সেরা।

মার্ডার ২ (Murder 2) : ২০০৪ সালে মুক্তি পেয়েছিল সাইকোলজিক্যাল থ্রিলারধর্মী এই ছবিটি। ছবির সিরিয়াল কিলার কম বয়সী যৌনকর্মীদের নিজের বাড়িতে নৃশংসভাবে তাদের খুন করত। অভিনয় করেন ইমরান হাশমি, জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজরা। ওই সময় ছবিটি বক্স অফিসে তুমুল সাফল্য অর্জন করে।

দ্য স্টোনম্যান মাডার্স (The Stone Man Murders) : ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ২০০৯ সালে। এই ছবিতে অভিনয় করেন কে কে মেনন, আরবাজ খানরা। সম্পূর্ণ সত্য ঘটনার উপর নির্মিত এই ছবিটি দর্শকরা বেশ পছন্দ করেন। ৮০ দশকে এই স্টোনম্যান সিরিয়াল কিলার সারা দেশ জুড়ে শোরগোল ফেলে দিয়েছিল।

রমন রাঘব ২.০ (Raman Raghav 2.0) : সত্য ঘটনা অবলম্বনে এই ছবিটিও সিরিয়াল কিলার ধর্মী গল্পগুলির মধ্যে অন্যতম। এই ছবিতে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী সিরিয়াল কিলারের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। একজন পুলিশ অফিসারের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ভিকি কৌশল।

এক ভিলেন (Ek Villain) : শ্রদ্ধা কাপুর, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, রিতেশ দেশমুখ অভিনীত এই ছবিটির বক্স অফিস কালেকশন ছিল বেশ ভাল। ছবিতে রিতেশ দেশমুখ সিরিয়াল কিলারের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। সিরিয়াল কিলার হিসেবে ছবিতে তার অভিনয় ছবির অন্যতম আকর্ষণ ছিল।