বাংলা টেলিভিশনে এই প্রথম, জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে স্টার জলসা, রইল টিজার

জন্মাষ্টমীতে মহাচমক, শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব নিয়ে স্টার জলসায় আসছে বিশেষ পর্ব, রইল টিজার

Star Jalsha Is Going To Telecast Jonmastomi Special A Film On Shree Krishna's Birth

হাতে আর খুব বেশি দেরি নেই, আসছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় উৎসব জন্মাষ্টমী (Jonmastomi)। এই বিশেষ দিনটিতে ভারতবর্ষ এবং ভারতবর্ষের বাইরেও হিন্দুরা ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্ম উৎসব পালন করবেন। এখন থেকেই ঘরে ঘরে শুরু হয়ে গিয়েছে তার প্রস্তুতি। ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টম দিনে বা অষ্টম তিথিতে গোকূলে দেবকীর অষ্টম গর্ভে জন্ম নেন বিষ্ণুর অষ্টম অবতার শ্রীকৃষ্ণ। শ্রীকৃষ্ণের জন্ম কাহিনী এবার ফুটে উঠবে স্টার জলসার (Star Jalsha) পর্দায়।

ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের প্রবল ঝড়-ঝঞ্ঝার রাতে দেবকীর কোল আলো করে মর্ত্যে পা রেখেছিলেন শ্রীকৃষ্ণ। তবে তার জন্মটা হয়েছিল দুরাচারী রাজা কংসের কারাগারে। কংস জানতেন দেবকীর সন্তানের হাতেই তার মৃত্যু লেখা আছে। তাই তিনি কারাগারের মধ্যেই দেবকীর গর্ভজাত সাত শিশুকে হত্যা করেছিলেন। অষ্টমবারে দৈববাণী অনুসারে বাসুদেব তার সন্তানকে রক্ষা করতে সমর্থ হন।

কথিত আছে, যে রাতে শ্রীকৃষ্ণের জন্ম হয় সেই রাতে কংসের কারাগারের দরজা আপনা আপনিই খুলে গিয়েছিল। দৈববলে কারাগারের প্রহরীরা ছিলেন নিদ্রামগ্ন। বাসুদেব তাই তার সন্তানকে নিয়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে সোজা তার বন্ধু নন্দের বাড়িতে চলে আসেন। সেই রাতেই নন্দের গৃহে এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। নিজের সন্তানকে নন্দের ঘুমন্ত স্ত্রী যশোদার পাশে রেখে বাসুদেব শিশু কন্যাটিকে নিয়ে চলে আসেন কারাগারে।

বাসুদেব ভেবেছিলেন কংস কন্যা শিশু হত্যা করবে না। তবে তিনি ছিলেন ভুল। দুরাচারী কংস শিশু কন্যাকে হত্যার জন্য আছাড় মারতে যেতেই অদৃশ্য হয়ে যায় সেই শিশু। আসলে তিনি ছিলেন দেবী দুর্গার অংশ। ওই সময় দৈববাণী হয়, “তোমারে বধিবে যে, গোকুলে বাড়িছে সে।” আদতেই গোকুলে নন্দ-যশোদার লালন পালনে বড় হচ্ছিলেন শ্রীকৃষ্ণ। পরে তিনিই কংসের বিনাশ করেন।

শ্রীকৃষ্ণের জন্ম কাহিনী বছরের পর বছর, প্রজন্মের পর প্রজন্মে পরেও কখনও যেন পুরনো হয় না। এবার স্টার জলসা এই আধ্যাত্মিক কাহিনীর উপর নির্ভর করে বানিয়েছে একটি ছবি। যেখানে দেখানো হবে শ্রীকৃষ্ণের জন্ম কাহিনী। বাংলা টেলিভিশনের নামিদামি তারকারা থাকছেন এই ছবিতে। সদ্য মুক্তি পেয়েছে তার টিজার।

টিজারে দেখানো হয়েছে সব্যসাচী চৌধুরীকে, যিনি বাসুদেবের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। যশোদা মায়ের ভূমিকায় রয়েছেন ‘খুকুমণি হোম ডেলিভারি’ খ্যাত অভিনেত্রী দীপান্বিতা রক্ষিত। নন্দ মহারাজের ভূমিকায় রয়েছেন ‘গঙ্গারাম’ খ্যাত অভিনেতা অভিষেক বোস‌। দেবকীর ভূমিকায় আছেন অনামিকা চক্রবর্তী। কাস্টিংয়ে প্রত্যেককেই দারুণ মানিয়েছে, বলছেন নেটিজেনরা। তাই আগামী ১৯শে আগস্ট জন্মাষ্টমীতে রাত ১০ টায় দেখতে ভুলবেন না যেন শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব দিবস উপলক্ষে এই বিশেষ ছবি।