রেলের চাকরি ছেড়ে অভিনয়, ঋতুপর্ণার বিপরীতে ব্যর্থ হলেও টেলিভিশনের সুপারস্টার মোহরের শঙ্খ

ঋতুপর্ণার সহঅভিনেতা হয়েও টলিউডে মেলেনি সুযোগ, আজ তিনিই বাংলা সিরিয়ালের হার্টথ্রব প্রতীক সেন

আজ বাংলা টেলিভিশন (Bengali Telivision) ইন্ডাস্ট্রিতে মহিলাদের হার্টথ্রব বলা চলে প্রতীক সেনকে (Pratik Sen)। স্টার জলসাতে (Star Jalsha) ‘সাহেবের চিঠি’ (Saheber Chithi) ধারাবাহিকের নায়কের জনপ্রিয়তা বিগত কয়েক বছর ধরেই তুঙ্গে। বাংলার একাধিক সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে তাকে সব থেকে বেশি জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে ‘মোহর’ ধারাবাহিকের শঙ্খ চরিত্রটি। তবে জানেন কি সিরিয়ালের আগে সিনেমা দিয়ে শুরু হয়েছিল প্রতীক সেনের কেরিয়ার?

প্রতীক সেনকে নিয়ে আজ সোশ্যাল মিডিয়াতে মাতামাতির কোনও শেষ নেই। সামাজিক মাধ্যমে তার প্রচুর ফ্যানবেস রয়েছে। এখন একের পর এক ধারাবাহিকে অভিনয় করলেও প্রতীক কিন্তু ছোটবেলাতে অভিনেতা হতে চাইতেন না। তখন বক্সার হওয়াটাই ছিল তার ধ্যান জ্ঞান। তবে ভাগ্যের ফেরে তাকে অভিনয়ের পথটাই বেছে নিতে হল।

Pratik Sen Sona Moni Saha Mohor Serial

আসলে প্রতীক সেনের পরিবারের সঙ্গে অভিনয়ের যোগ আছে। তার বাবা প্রতাপ সেন এবং মা অনুরাধা সেন দুজনেই অভিনয় জগতের সঙ্গে যুক্ত। তা ঠাকুরদা ছিলেন বিশিষ্ট চিত্র পরিচালক জলীবরণ সেন। প্রতীকের দাদুও জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা ছিলেন। দেবগী কুমার বসু হলেন প্রতীকের আত্মীয়। এহেন পরিবারের ছেলে প্রতীকের কিন্তু অভিনয়ে ঝোঁক ছিল না।

প্রতীক বক্সার হতে চাইতেন। তিনি একসময় রাজ্য চ্যাম্পিয়নও হয়েছিলেন। অভিনয়ে আসার আগে ভারতীয় রেলে চাকরি পেয়েছিলেন তিনি। তবে মায়ের উৎসাহে পরে চাকরি ছেড়ে দিয়ে অভিনয় শুরু করেন প্রতীক। তার অভিনয় জীবনের শুরুটা অবশ্য হয়েছিল বড় পর্দা থেকে। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর সঙ্গে ছবিতে অভিনয় করে শুরু হয় তার অভিনয় যাত্রা।

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর ‘অতিথি’ ছবিতে টলিউডে অভিষেক হয়েছিল প্রতীক সেনের। তবে শুরুটা ভালভাবে হলেও টলিউডে সেভাবে তার পরিচিতি গড়ে উঠলো না। তবে তিনি হার মানেন নি। টলিউডের বদলে বাংলা টেলিভিশনকেই বেছে নেন প্রতীক। তাকে প্রথম সুযোগটা দেয় স্টার জলসা। স্টার জলসার ‘খোকাবাবু’ ধারাবাহিকই ছিল টেলিভিশনের পর্দাতে তার প্রথম কাজ।

‘খোকাবাবু’র পর আর ফিরে তাকাতে হয়নি প্রতীককে। একটার পর একটা ধারাবাহিকের সুযোগ এসেছে তার হাতে। ‘খোকাবাবু’র পর তার ‘মোহর’ও হয়েছে সুপারহিট। এখন ‘সাহেবের চিঠি’ ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন তিনি। টলিউডে তিনি ব্যর্থ হতে পারেন কিন্তু টেলিভিশনের পর্দাতে তিনি তার সফল সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছেন।