হইচইয়ের সেরা ৫ টি বাংলা ছবি এল পুজোর আগে, না দেখলে চরম মিস

পুজোর আগে হইচইতে মহাধামাকা, ৫ দিনে দেখুন ৫ স্বাদের বাংলা ছবি

হলিউড, বলিউড, কলিউড ছবি এবং সিরিজের ভিড়ে ঠাসা ওটিটি প্ল্যাটফর্মের মাঝে ভাল বাংলা সিনেমা (Bengali Movie) দেখতে চান? আপনাকে সেই সুযোগ এনে দিচ্ছে বাংলা ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই। এখানে আপনি পূজোর আগে ১৪ দিনে ১৪ টা আনকোরা নতুন ছবি দেখার সুযোগ পাবেন। কারণ সেপ্টেম্বর মাসেই শুরু হচ্ছে হইচই (Hoichoi) মুভি ম্যারাথন। এই ছবিগুলোর মধ্যে ৫টি ছবি (Best Bengali Movie On Hoichoi) কখনও মিস করা যাবে না। দেখে নিন সেই তালিকা।

মন্দবাসার গল্প (Mondobasar Golpo) : করে তথাগত বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন পাওলি দাম, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়রা। সেই সঙ্গে অন্যান্য চরিত্রে রয়েছেন কৌশিক সেন, ইন্দ্রাশিস রায়। ছবিতে পাওলি বিখ্যাত পরিচালক ‘অহনা’র চরিত্রে অভিনয় করছেন যিনি তাঁর জীবনের ট্রমা কাটাতে মনোবিদ পরমব্রতর দ্বারস্থ হয়েছেন।

এক ফালি রোদ (Ek Phali Rod) : বিপদের মুহূর্তে মানুষের ব্যবহার কীভাবে বদলে যায় তা এই ছবিতে ফুটিয়ে তুলেছেন পরিচালক অতনু ঘোষ। ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন অপরাজিতা ঘোষ, ঋত্বিক চক্রবর্তী। এছাড়া অন্যান্য চরিত্রে রয়েছেন ঋতিমান চট্টোপাধ্যায় যীশু সেনগুপ্ত এবং রুদ্রনীল ঘোষ।

কাঙাল মালশাট (Kangal Malshut) : নবারুণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা পলিটিকাল স্যাটায়ারধর্মী উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে সুমন মুখোপাধ্যায়ের পরিচালিত এই সিনেমাটিও থাকছে হইচইয়ের আসন্ন লিস্টে। এই ছবিতে শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, কৌশিকী গাঙ্গুলী, কবীর সুমনরা অভিনয় করেছেন। অশ্লীল শব্দের ব্যবহার এবং যৌনতা সংক্রান্ত বিষয়বস্তুর জন্য ছবিটিকে নিয়ে বেশ বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

হ্যাপি পিল (Happy Pill) : মৈনাক বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচালিত ফ্যান্টাসি কমেডি নির্ভর এই গল্পটি নিঃসন্দেহে দর্শকদের ভাল লাগবে। এখানে এক মেডিকেল কলেজের স্টুডেন্টকে আচমকা কলেজ ছেড়ে প্রয়াত বাবার মিষ্টির দোকানে এসে বসতে হয়। আচমকাই সে পেয়ে যায় খুশি থাকার সিক্রেট ফর্মুলা। তারপর কী হয় জানার জন্য দেখতে হবে ছবিটি। ছবিতে অভিনয় করছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী, পার্নো মিত্র, সোহিনি সরকাররা।

পুনশ্চ (Punoscho) : প্রয়াত টলিউড অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে আরও একবার দেখা যাবে এই ছবির মারফত। ছবিতে তিনি একজন বিখ্যাত সাহিত্যিকের ভূমিকায় অভিনয় করছেন। তার বিপরীতে রয়েছেন রূপা গাঙ্গুলী। রূপা বিশ্বভারতীর অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপিকার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। এছাড়াও একটি বিশেষ ভূমিকায় রয়েছেন সায়নী ঘোষ।