শরীরী আবেদনে সানি লিওনকেও টেক্কা দেয় এই ভোজপুরি নায়িকা, আলাপ করুন সুন্দরীর সঙ্গে

শরীরী আবেদনে ঘুরিয়ে দেয় পুরুষদের মাথা, আলাপ করুন ভোজপুরি সিনেমার সানি লিওনের সঙ্গে

Meet Bhojpuri Sunny Leone Prachi Singh

সানি লিওন (Dunny Leone), মার্কিন পর্ন স্টার আজ বলিউডের সেরা সুন্দরী। সেক্স অ্যাপিলের নিরিখে তার সমকক্ষ নন কেউ। প্রাক্তন পেশা ছেড়ে দিলেও শরীরী আবেদনের নিরিখে আজও বহু পুরুষের হার্টথ্রব তিনি। বলিউডের বিভিন্ন আইটেম ডান্সে সানি লিওনের উপস্থিতি মুহূর্তের মধ্যেই মিউজিক ভিডিও ভাইরাল করে তুলতে পারে। রুপ-সৌন্দর্য্য এবং শরীরী আবেদনে বলিউডের ডিভারা সানি লিওনের ধারেকাছেও ঘেঁষতে পারেন না। তবে এমন একজন আছেন যাকে সানি লিওনের সমকক্ষ বলে মনে করেন অনেকেই।

তিনি বলিউডের কেউ নন, ভোজপুরি (Bhojpuri) ইন্ডাস্ট্রির একজন নায়িকা। নাম তার প্রাচী সিং (Prachi Singh)। ভোজপুরি সিনেমা জগতের বিখ্যাত নায়িকা প্রাচীকে তার ভক্তরা সানি লিওনের ডুপ্লিকেট বলে মানেন। ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রির সানি লিওন প্রাচী ইন্ডাস্ট্রিতে তাবড় তাবড় নায়িকাদের কড়া প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফেলে দিয়েছেন। ভক্তদের মধ্যে তাকে নিয়ে ক্রেজ সানি লিওনের মতই চড়া। সামাজিক মাধ্যমে তিনি একটি ছবি পোস্ট করলেই হল। হু হু করে লাইক-কমেন্ট বাড়তে থাকে পোস্টে।

আম্রপালি দুবে, আকসারা সিং, মোনালিসা, পুনম দুবেদের মতো ভোজপুরি নায়িকাদের অনেক পেছনে ফেলে দিয়েছেন প্রাচী। নিজের লুকস নিয়ে তিনি বেশ সচেতন থাকেন। তার গ্ল্যামারাস লুকে কাবু হয়ে থাকেন থাকেন ভক্তরা। শুধু সিনেমাতেই নয়, বহু মিউজিক ভিডিওতেও তিনি কাজ করেছেন। ভোজপুরি সিনেমাতে ‘মেরে পেয়ার সে মিলা দে’ ছবিতে অভিনয় করে তিনি তার কেরিয়ার শুরু করেন।

ভক্তদের মধ্যে প্রাচীর চাহিদা তুঙ্গে। সোশ্যাল সাইটে তার ছবি শেয়ার হওয়া মাত্রই তা ভাইরাল হয়ে যায়। যেন তাকে এক ঝলক দেখার জন্য মুখিয়েই থাকেন ভক্তরা। প্রাচী যে মিউজিক ভিডিওতে উপস্থিত থাকেন, সেগুলি সামাজিক মাধ্যমে ভীষণ জনপ্রিয় হয়। মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়। কাজে ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রিতে প্রাচীর চাহিদা তুঙ্গে। সানি লিওনকে ভক্তদের মধ্যে যেমন ক্রেজ লক্ষ্য করা যায়, প্রাচীকে নিয়েও তেমনি ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রি মেতে থাকে।

 Meet Bhojpuri Sunny Leone Prachi Singh

ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রির সানি লিওন বেড়াতে, ঘুরতে ভালোবাসেন। তিনি আবার কৃষ্ণভক্তও। তার সঙ্গে সব সময় থাকেন তার বালকৃষ্ণজি। তিনি যেখানেই যান না কেন, সঙ্গে থাকেন তার বালকৃষ্ণজি। অভিনয় ছাড়া সময় সুযোগ পেলে তিনি মানসিক প্রশান্তির খোঁজে কৃষ্ণের ভক্তি এবং আরাধনা করে থাকেন। তিনি যেখানেই যান না কেন, সেখানে আশেপাশে স্থানীয় কৃষ্ণ মন্দির থাকলে প্রাচী সেখান থেকে একবার ঘুরে আসবেনই। একদিকে গ্ল্যামার অপরদিকে কৃষ্ণভক্তি, এই দুয়ের মিশেল প্রাচীর প্রতি ভক্তদের শ্রদ্ধাও রয়েছে।