হাতে নেই কাজ, ‘পেট চালাতে’ মনোকিনিতে আবেদন ছড়াচ্ছেন, ইষ্টিকুটুমের বাহামণিকে ধুয়ে দিল নেটিজেনরা

'হাতে কাজ নেই তাই শরীর দেখাচ্ছেন', ইষ্টিকুটুমের বাহামণিকে ধুয়ে দিল ভক্তরাই

বাংলা ধারাবাহিকের (Bengali Mega Serial) নায়িকাদের অন স্ক্রিন শুধুই শাড়ি পরতে দেখা গেলেও অফস্ক্রিন তারা কিন্তু বেশ বোল্ড। টেলিভিশনের নায়িকারা মাঝেমধ্যেই মনোকিনি, বিকিনিতে উষ্ণতা ছড়াতে হাজির হন সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঠিক যেমনটা ধরা দিলেন ‘ইষ্টিকুটুম’ (Istikutum) ধারাবাহিকের ‘বাহামণি’ ওরফে রানিইতা দাশ (Ranieeta Dash)। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে তিনি ধরা দিয়েছেন মনোকিনি পোশাকে। যা দেখে বিষম খাচ্ছেন তার ভক্তরা।

‘ইষ্টি কুটুম’ ধারাবাহিকের পর আর কোনও সিরিয়ালেই মুখ দেখাননি রনিতা। কাজেই আদিবাসী মেয়ে ‘বাহা’ হিসেবেই তিনি থেকে গিয়েছেন দর্শকদের মনে। ২০১১ সালে শুরু হয়েছিল এই ধারাবাহিকের সম্প্রচার। ঋষি কৌশিকের বিপরীতে রনিতার দুর্দান্ত অভিনয় দর্শকদের মনে দাগ কেটেছিল। ‘বাহা’ চরিত্রটিও এখনও দর্শকদের মনে জীবন্ত।

তবে রনিতা কিন্তু বাহার লুক ছেড়ে বেরিয়ে এসেছেন বহুদিন আগেই। সোশ্যাল মিডিয়াতে ক্রমাগত বোল্ড ছবি শেয়ার করেন তিনি। তবে এবার বোল্ডনেসের মাত্রা ছাড়িয়ে গেলেন তিনি। সমুদ্রসৈকতে মনোকিনি পোশাক পড়ে ছবি এবং ভিডিও তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেছেন রনিতা। যাকে কেন্দ্র করে এখন তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া।

তার বোল্ডনেস দেখে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছেন ভক্তরা। কালোর উপর সাদা পোলকা ডট দেওয়া এই পোশাকে রনিতাকে দেখবেন আশা করেননি নেটিজেনরা। বিস্ময় প্রকাশ করে কেউ লিখছেন, “এটাই কি বাহামণি! চেনাই যাচ্ছে না!’’ কেউ বাহার ভাষাতেই রনিতার প্রশংসা করে লিখছেন, “অনেক হট লাগছিস বটেক’’। তবে কটাক্ষ করতেও ছাড়ছেন না কেউ কেউ।

রনিতাকে দেখে ট্রোলাররা লিখছেন, “বাহামণির কী হাল! পেট চালাতে এদের কী না করতে হয়!’’ তবে নিন্দুকদের কথায় কান দিচ্ছেন না অভিনেত্রী। তিনি তার এই বোল্ড ফটোশুটের ভিডিওটিও শেয়ার করে নিয়েছেন। উল্লেখ্য, রনিতা এখন অভিনয়ের পাশাপাশি একটি প্রযোজনা সংস্থাও খুলেছেন।

রনিতা তার বিশেষ বন্ধু সৌপ্তিক চক্রবর্তীর সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় খুলে ফেলেছেন প্রযোজনা সংস্থা। সেই সঙ্গে সৌপ্তিকের পরিচালনায় নিজে একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয়ও করেছেন। সেই সঙ্গে সামলাচ্ছেন রাজনীতির কাজ। তিনি এখন শাসকদলের রাজনীতি মঞ্চের সক্রিয় সদস্যা। তৃণমূলের মিটিং, মিছিল, সভাতে মাঝেমধ্যেই তাকে দেখা যায়।