পাঞ্জাবি হয়েও ঋত্বিক আসলে মাছে ভাতে বাঙালি, শরীরে বইছে এই বাংলারই রক্ত

শরীরে বইছে বাংলার রক্ত, পাঞ্জাবি নয় ঋত্বিক আসলে এই বাংলারই ছেলে

Hrithik Roshan have a Strong Connection with Bengal

হৃত্বিক রোশন (Hrithik Roshan) বলিউডের (Bollywood) একজন নামী অভিনেতা। অসংখ্য ভারতীয় মহিলার হার্টথ্রব তিনি। রাকেশ রোশন পুত্র বাবার একজন যোগ্য উত্তরাধিকারী। অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি সারা দুনিয়ার মানুষের মন জয় করে নিয়েছেন। তবে জানেন কি বাংলার সঙ্গে তার রয়েছে বিশেষ সম্পর্ক? বাংলা এবং বাঙালির সঙ্গে হৃত্বিক রোশনের গভীর সম্পর্কে কথা জানা গেল এতদিনে।

হৃত্বিক রোশনকে বলিউডের গ্রীক গড বলা হয়। তার ডেবিউ ছবি থেকেই সারা ভারতের ক্রাশ রয়েছে তার উপরে। শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে তার অভিনীত ছবি ‘বিক্রম বেদা’। সেইফ আলি খানের সঙ্গে এই ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। আমির খানের লাল সিং চাড্ডাকে সমর্থন করার জন্য ছবিটিকে বয়কট করার ডাক দিলেও ভক্তরা কিন্তু নিরাশ করছেন না অভিনেতাকে।

 

এরই মাঝে তার সম্পর্কে যে অজানা তথ্যটি উঠে এল তাতে অবাক হয়েছেন বাঙালিরা। তিনি হলেন আংশিক বাঙালি। তার পরিবারের বাঙালি যোগ রয়েছে। তার ঠাকুমা ইরা ছিলেন বাঙালি। তিনি বিয়ে করেছিলেন মিউজিসিয়ান রোশন লাল নাগরথকে। অর্থাৎ হৃত্বিক রোশনের ঠাকুরদা ছিলেন পাঞ্জাবি।

এই তথ্য জানার পর থেকেই ভক্তরা বলছেন এই কারণেই তবে রসগোল্লা খেতে এত বেশি পছন্দ করেন হৃত্বিক! তিনি যখনই কলকাতায় আসেন তখনই রসগোল্লা খান। ২০০০ সালে তিনি প্রথমবার কলকাতাতে এসেছিলেন। আসলে ঠাকুমার ইচ্ছা পূরণ করতেই তিনি প্রথম স্টেজ শো করেছিলেন কলকাতাতে।

তার নতুন ছবিতে গ্যাংস্টার বেদার চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিনেতা। এই ছবিটি আসলে সুপারহিট দক্ষিণী সিনেমার রিমেক। ছবিতে সেইফ আলি খান পুলিশ অফিসারের ভূমিকায় অভিনয় করবেন। ১ মিনিট ৫৪ সেকেন্ডের টিজার ইতিমধ্যেই দর্শকদের নজর কেড়েছে। ছবির পরতে পরতে থ্রিলার, রোমাঞ্চ, অ্যাকশন রয়েছে। যা দর্শকদের ভাল লাগবেই।

ছবিতে বেদার চরিত্রের হৃত্বিককে বলতে শোনা যাচ্ছে “ভালো আর খারাপের মধ্যে বেছে নেওয়াটা সহজ। কিন্তু এই গল্পে তো দুজনেই খারাপ!” তার এই সংলাপ আগুনের মত কাজ করেছে। ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের অভিনয় করছেন রাধিকা আপ্তে এবং রোহিত শরফ। আগামী ৩০ শে সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে এই ছবিটি।