জাতীয় স্তরে বাংলার মুখ রাখল এই চার কন্যা, জিতে নিল ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চ

Riya Chatterjee

Published on:

শুরু হয়ে গিয়েছে ইন্ডিয়ান আইডলের (Indian Idol) এক নতুন প্রতিযোগিতা। প্রত্যেক সিজনের মত এই সিজনেও ইন্ডিয়ান আইডলের প্রতিযোগিতা থেকে ভারতের নানা প্রান্ত থেকে প্রতিভাদের খুঁজে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। ইদানিং জাতীয় স্তরের প্রায় সমস্ত প্রতিযোগিতাতেই বাংলা থেকে প্রতিযোগিরা সুযোগ পাচ্ছেন এবং এদের মধ্যে অনেকেই প্রতিযোগিতার বিজেতা হচ্ছেন। ইন্ডিয়ান আইডলের নতুন সিজনে পৌঁছে গেলেন বাংলা থেকে চার প্রতিনিধি।

এর আগের নানা সংগীত প্রতিযোগিতায় বাঙালি গায়ক এবং গায়িকাদের গান শুনে মুগ্ধ হয়েছে গোটা দেশ। কুমার শানু, শ্রেয়া ঘোষাল, অরিজিৎ সিং, মোনালি ঠাকুর থেকে শুরু করে ইমন চক্রবর্তী, অরুনিতা কাঞ্জিলালসহ অনেকেই বাংলার মুখ উজ্জ্বল করেছেন। এইবার যেমন ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে বাংলার হয়ে প্রতিনিধিত্ব করছেন চার বাঙালি কন্যা। আজ এই প্রতিবেদনে রইল তাদেরই তালিকা।

অনুষ্কা পাত্র (Anushka Patra) : জি বাংলার সারেগামাপার ফাইনালিস্ট ছিলেন অনুষ্কা। তিনি কালিকাপ্রসাদ স্মৃতি পুরস্কার এবং ভিউয়ার্স চয়েস পুরস্কার জিতেছিলেন। এবার অনুষ্কা ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে জিতে নিলেন বিচারকদের মন। অডিশন রাউন্ডে তিনি গেয়েছিলেন আর ডি বর্মনের ‘মেরি জান ম্যায়নে কাঁহা’‌। তার গান শুনে মুগ্ধ হয়ে যান বিশাল দাদলানি।

সঞ্চারী সেনগুপ্ত (Sanchari Sengupta) : ইন্ডিয়ান আইডলের বাঙালি প্রতিযোগিতার মধ্যে দ্বিতীয় জন হলেন সঞ্চারী। তিনি এর আগে সুপার সিঙ্গারের মঞ্চে বিজয়ী হয়েছিলেন। অডিশন রাউন্ডে গান গেয়ে তিনিও মুহূর্তের মধ্যেই বিচারকদের মন জয় করে নেন। হিমেশ রেশমিয়া, নেহা কক্কর থেকে শুরু করে বিশাল দাদলানিরা তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।

বিদিপ্তা চক্রবর্তী (Bidipta Chakraborty) : জি বাংলার সারেগামাপা প্রতিযোগিতায় অনুষ্কার পাশাপাশি বিদিপ্তাও অংশ নেন এবং বিচারকদের মন জয় করেন। বাংলার মানুষ তার গান শুনে মুগ্ধ। ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চেও এবার তার গান শুনবে গোটা দেশ। অডিশন রাউন্ডে ‘দিল দিওয়ানা বিন সাজনা’কে গানটি গেয়েছেন। ১৭ বছর বয়সী এই গায়িকার গানের গলার প্রশংসা করছেন সকলেই।

শীর্ষা রক্ষিত (Shirsha Rakshit) : টলিউডের আরেক অভিনেত্রী তথা গায়িকা হলেন শীর্ষা রক্ষিত। ইন্ডিয়ান আইডলের অডিশনের প্রোমোতে শীর্ষাকে গান গাইতে শোনা গেল। তার অসাধারণ গানের গলায় অভিভূত হয়ে পড়েছেন বিচারকরাও।