চূড়ান্ত পর্যায়ে বলিউডের নেপোটিজম, ইন্ডাস্ট্রির ষড়যন্ত্রে নষ্ট হয়ে গেল এই অভিনেত্রীদের কেরিয়ার

নেপটিজমের শিকার! দক্ষতা থাকতেও বলিউড থেকে চিরতরে হারিয়ে গিয়েছেন এই অভিনেত্রীরা

Bollywood's Popular Actresses who went Missing

বলিউডে (Bollywood) যদি জায়গা পেতে হয় বা টিকে থাকতে হয় তাহলে ইন্ডাস্ট্রির মাথাদের প্রিয়পাত্র হতেই হবে। নতুবা মাঝপথেই নষ্ট হয়ে যাবে কেরিয়ার। বলিউডের ইতিহাসে এমনটা বহু অভিনেতা এবং অভিনেত্রীর সঙ্গেই ঘটেছে। বলিউডের নেপোটিজমের (Nepotism) রাজত্বে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও হারিয়ে গিয়েছেন একাধিক অভিনেত্রী। আজ এই প্রতিবেদনে জেনে নিন অতুল সুন্দর্য এবং অভিনয় দক্ষতা থাকা সত্ত্বেও বলিউড থেকে হারিয়ে গিয়েছেন কোন কোন অভিনেত্রী।

সোমি আলি (Somi Ali) : এই পাকিস্তানি অভিনেত্রী নাকি সালমান খানের জন্য নিজের দেশ ছেড়েছিলেন! শুধুমাত্র সালমানকে প্রেম নিবেদনের জন্য পাকিস্তান ছেড়ে ভারতে চলে আসেন সোমি। সালমানের সঙ্গে তিনি প্রায় আট বছর সম্পর্কে ছিলেন। এই আট বছরে অর্থাৎ ১৯৯১ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত মোট ৯টি বলিউড ছবিতে তিনি অভিনয় করেন। এরপর সালমানের সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়ে যায়। বলিউড ছেড়ে তিনি চলে যান ফ্লোরিডাতে। তারপর থেকে বলিউডে তার আর দেখা মেলেনি।

ময়ূরী কঙ্গো (Mayuri Kango) : ৯০ এর দশকের অন্যতম সুন্দরী অভিনেত্রী ছিলেন ময়ূরী। ১৯৯৫ সালে ‘নাসিম’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে তার অভিষেক হয়। এই ছবিতে তার অভিনয় দেখে মহেশ ভাট খুব খুশি হয়েছিলেন এবং তাকে নিজের পরবর্তী ছবিতে অভিনয় করার প্রস্তাবও দেন। তৎকালীন সময়ে অল্প সময়ের মধ্যে অনেক পরিচিতি পেয়েছিলেন ময়ূরী। তবে বলিউডে খুব অল্পদিনের জন্যই তার দেখা মিলেছিল। ২০১৯ সালে গুগল ইন্ডিয়া কোম্পানিতে ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেড হিসেবে যোগদান করেন এই সুন্দরী।

অনু আগরওয়াল (Anu Agarwal) : ৯০ এর দশকেই বলিউডে তার আগমন ঘটেছিল। বলিউডের ব্লকবাস্টার ‘আশিকি’ ছবিতে অভিনয় করে তিনি সারা দেশে জনপ্রিয়তা পান। তার জন্য প্রশস্ত হয়েছিল বলিউডের পর। কিন্তু ১৯৯৬ এর পর কোনও এক অজ্ঞতার কারণে অভিনয় ছেড়ে দেন অনু।

সনু ওয়ালিয়া (Sonu Walia) : রাকেশ রোশনের ‘খুন ভারী মাঙ্গ’ ছবিতে রেখার পাশাপাশি নজর কেড়েছিলেন সনু। এই ছবির জন্য দারুণ জনপ্রিয়তাও পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ছবির পর কয়েকটি মাত্র টিভি শোতে মুখ দেখিয়েই তিনি ইন্ডাস্ট্রি ছেড়ে দেন।