কেউ পেরয়নি স্কুলের গন্ডি, কেউ যায়নি কলেজ, বলিউডে সবচেয়ে কম শিক্ষিত কে

কেউ স্কুলেই যাননি, কেউ টেনেটুনে মাধ্যমিক, বলিউডে সবচেয়ে কম শিক্ষিত কে

পড়াশোনা করে কেরিয়ার গড়ার কথা ভাবার সময় কোথায় তাদের? তার চেয়ে বরং মার্শাল আর্ট, নাচ, অভিনয় শিখলে অনেক বড় তারকা হওয়া যায়। এই কথা ভেবেই বলিউডের বহু তারকা নির্দিষ্ট সময়ের আগেই পড়াশোনার পাট চুকিয়ে দিয়েছিলেন। বলিউডে সবথেকে কম শিক্ষিত বলা ভাল অশিক্ষিত তারকা কারা জানেন? আজ এই প্রতিবেদনে রইল বলিউড তারকাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা (Bollywood Stars Educational Qualification)।

কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut) : ইনি অভিনয় করবেন বলে স্কুলে থাকাকালীন পড়াশোনা ছেড়ে দেন। বলিউডে আসার আগে চন্ডিগড়ের ডিএভি স্কুলে পড়াশোনা করতেন তিনি। কিন্তু ১২ ক্লাস পাস করতে পারেননি। রসায়নবিদ্যায় অকৃতকার্য হয়ে পড়াশোনা ছেড়ে, বাড়ি ছেড়ে সোজা মুম্বাইতে চলে আসেন কঙ্গনা।

ক্যাটরিনা কাইফ (Katrina Kaif) : বলিউড তারকাদের মধ্যে ক্যাটরিনা কাইফ সেই অর্থে কখনও প্রথাগত শিক্ষা পাননি। মাত্র ১৪ বছর বয়সে তিনি মডেলিং করার প্রস্তাব পেয়েছিলেন। পড়াশোনা ছেড়ে তিনি মডেলিং নিয়েই ব্যস্ত হয়ে পড়েন। স্কুলের গণ্ডি টুকুও পেরোতে পারেননি। বাড়িতেই পড়াশোনা করতেন।

দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone) : খুব কম বয়সে মডেলিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন দীপিকা। তিনিও খুব কম পড়াশোনা করেছিলেন তবে উচ্চ মাধ্যমিকটা পাশ করেই তবে অভিনয়ে পা রেখেছিলেন। তবে ১২ ক্লাস উত্তীর্ণ হয়ে পড়াশোনা ছেড়ে দেন তিনি।

সালমান খান (Salman Khan) : সালমান খানও এই তালিকায় পড়েছেন। যদিও তিনি ১২ ক্লাস পার করতে পেরেছিলেন। ১৯৮৮ সালে তিনি কলেজে ভর্তি হন বটে কিন্তু বলিউডের টানে পড়াশোনা ছেড়ে দেন।

ঐশ্বর্য রাই বচ্চন (Aishwarya Rai Bachchan) : ঐশ্বর্য ছোটবেলাতে পড়াশোনাতে বেশ ভালই ছিলেন। তিনি পড়াশোনা করে ডাক্তার হতে চেয়েছিলেন। তবে স্কুল পাশ করার পর তার কাছে একের পর এক প্রস্তাব আসে। তিনি বিজ্ঞাপনের কাজ শুরু করেন। পুরাতত্ত্ব নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেছিলেন তিনি। তবে বিশ্বসুন্দরী পড়াশোনা ছেড়ে দেন খুব তাড়াতাড়িই।