প্রয়াত অভিনেতা অভিষেককে খোলা চিঠি লিখল তাঁর ছোট্ট মেয়ে, চিঠি পড়ে চোখে জল নেটিজেনদের

বাবার স্মৃতির বেদনায় বিদ্ধ মেয়ে, অভিষেককে লেখা মেয়ের চিঠি পড়ে নেটিজেনদের চোখে জল

Abhishek Chatterjee`s Daughter Saina writes a Heartfelt Letter for Her Father on Father`s Day

ছোট্ট মেয়ে সাইনাকে তার মায়ের দায়িত্বে ফেলে রেখে তারার দেশে পাড়ি দিয়েছেন অভিষেক চ্যাটার্জী (Abhishek Chatterjee)। বাবাকে হারিয়ে আজ ভালো থাকার জন্য প্রতি মুহূর্তে চেষ্টা করছে অভিষেকের একরত্তি মেয়ে। বাবার মৃত্যুতে সেও যেন অনেকটাই বড় হয়ে গিয়েছে। মাকে নিয়ে ভালো থাকার দায়িত্বটা তার কাঁধেও রয়েছে যে! ফাদার্স ডে উপলক্ষে তার লেখা একটি চিঠি পড়ে কার্যত চোখের জল ধরে রাখতে পারলেন না নেটিজেনরা।

অভিষেক কন্যা সাইনা চ্যাটার্জী (Saina Chatterjee) ওরফে ডল তার বাবাকে উদ্দেশ্য করে আনন্দবাজারের কাছে লিখেছে, “এই প্রথম আজকের দিনটায় তুমি নেই। আমি আছি, মা আছে। সবই এক রয়ে গিয়েছে। শুধু তুমিই নেই। জানি তুমি এখন তারাদের মাঝে জ্বলজ্বল করছ। তবু মনে হচ্ছে, যদি তুমি আমার কাছে থাকতে।”

এর আগের প্রত্যেকটা বছর ফাদার্স ডে বিশেষভাবে পালন করতেন অভিষেক এবং তার পরিবার। এই দিনটা কোনও উৎসবের থেকে কম তো কিছু ছিল না। সাইনা জানিয়েছে, “এই দিনটায় তা হলে আমরা খেতে যেতাম। নিজের হাতে প্রতি বারের মতো কিছু একটা তৈরি করে উপহারও দিতাম। তোমার প্রিয় মাছ অর্ডার দিতে তুমি। আমিও তো তোমার মতোই পেটুক। একসঙ্গে সেই খেতে যাওয়া আর হবে না কখনও। তবু জানো, প্রতিটা মুহূর্তে মনে হয় তুমি যেন আশপাশেই কোথাও আছো।”

ছোট্ট মেয়েটা প্রতি মুহূর্তেই বাবার অভাব টের পাচ্ছে। সে লিখেছে, “আজকাল ভাবি, তুমি থাকলে এখন এটা করতাম, ওটা করতাম। তোমার মাথায় হেয়ারব্যান্ড পরিয়ে মেয়ে সাজিয়ে দিতাম। বাবা তোমার মনে পড়ে, সেই যে তোমার চুল বেঁধে দিতাম মেয়েদের মতো! এই বিশেষ দিনটায় সে সব কথাগুলোই বারবার মনে পড়ে যাচ্ছে।”

সাইনা আরও লিখেছে, “তুমি নেই বলে এখন আগের থেকে অনেকটা কম দুষ্টুমি করি, জানো? মা সারা ক্ষণ চেষ্টা করে যাচ্ছে আমাকে ভাল রাখার। তুমি কি দেখতে পাচ্ছ? রাতে ঘুমোতে যাওয়ার সময়ে তোমায় বড্ড বেশি করে মনে পড়ে। সেই গল্প বলা, মাথায় হাত বুলিয়ে ঘুম পাড়িয়ে দেওয়া! নিজে হাতে খাবার পরিবেশন করে সবার শেষে খেতে বসতে তুমি। কী করে ভুলব সেই কথাগুলো? বাড়ির যে কোনও ছোট-বড় সিদ্ধান্ত তো তুমিই নিতে। এখন সেই সব কিছু মা ঠিক ঠিক ভাবে ভাবে পালন করার চেষ্টা করছে।”

ভবিষ্যতে বাবার মত বড় মাপের অভিনেতা হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে ডল। তাই এই খোলা চিঠির শেষে সে বাবা কে উদ্দেশ্য করে লিখেছে, “আমি তোমার মতো হতে চাই বাবা। তোমার মতো অভিনয় করব, শ্যুটিংয়ে যাব। শট দেব ক্যামেরার সামনে। আমার চোখে তুমিই কিন্তু সেরা অভিনেতা।”