বয়কট করেও রোখা গেল না আমিরকে, অস্কারের বিচারে ‘সেরা’ লাল সিং চাড্ডা

দেশে ফ্লপ কিন্তু অস্কারের নজরে সুপারহিট, ‘লাল সিং চাড্ডা’ পেল সেরা সম্মান

আমির খান (Aamir Khan) ও করিনা কাপুর খানের ‘লাল সিং চাড্ডা’ (Laal Singh Chadda) ছবিটিকে নিয়ে গোটা ভারতবর্ষ এখনও উত্তাল হয়ে রয়েছে। ভারতীয় দর্শকরা ১৮০ কোটি টাকা বাজেটের এই ছবিটিকে ফ্লপ করানোর জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন। মুক্তির চার দিন পর্যন্ত মেরে কেটে ৩০ কোটি টাকার কাছাকাছি আয় করতে পেরেছে ‘লাল সিং চাড্ডা’। আমিরের উপর রাগবশত ছবিটি দেখতে চাইছেন না দর্শকরা, তবে বিদেশে কিন্তু ব্যাপক প্রশংসা পাচ্ছে এই ছবিই।

এতদিনে সকলেই জেনে গিয়েছেন যে ৯০ এর দশকে অস্কার পুরস্কার প্রাপ্ত ছবি ‘ফরেস্ট গাম্প’ এর অনুপ্রেরণায় এই ছবিটি বানিয়েছেন আমির খান। হিন্দি রিমেক এই ছবিটিও সদ্য অস্কার কর্তৃপক্ষের প্রশংসা পেয়েছে। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করে সব থেকে বেশি প্রশংসা পেয়েছেন আমির খান। এতে আপ্লুত হয়েছেন আমির খান।

The Academy এর সোশ্যাল মিডিয়া পেজ থেকে জানানো হয়েছে, “ভারতীয় প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে Robert Zemeckis এবং Eric Roth এর দুর্দান্ত গল্পকে সুন্দর কায়দায় ফুটিয়ে তুলেছেন Advait Chandan এবং Atul Kulkarni। শুধুমাত্র দয়ার জোরে এক সাধারণ মানুষ বিশ্বকে বদলে দিতে পারে, সেই বিষয়টি দেখানো হয়েছে এই ছবিতে। Tom Hanks অভিনীত দুর্দান্ত চরিত্রে অভিনয় করেছেন Aamir Khan।”

উল্লেখ্য, Tom Hanks অভিনীত এই ছবিটি ১৩ টি অস্কারের মনোনয়ন পেয়েছিল। এরমধ্যে বেস্ট অ্যাক্টর, ডিরেক্টিং, ফিল্ম এডিটিং, বেস্ট পিকচার, ভিজুয়াল ইফেক্ট এবং অ্যাডাপটেড স্ক্রিন প্লে পুরস্কার পেয়েছিল ছবিটি। অস্কার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে ফরেস্ট গাম্প এবং লাল সিং চাড্ডার ছবির দৃশ্য মিক্স করে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে।

অস্কারের পাশাপাশি ফরেস্ট গাম্পের অফিসিয়াল পেজ থেকেও টম হ্যাঙ্কস এবং আমির খানের ছবির কোলাজ আপলোড হয়েছে। বিদেশে প্রশংসা পেলেও অবশ্য দেশের মানুষের মন জয় করতে ব্যর্থ লাল সিং চাড্ডা। ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশের সনাতন রক্ষক সেনা নামের একটি সংগঠন আমিরের ছবি ভারতে বন্ধই করে দেওয়ার ডাক দিয়েছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by The Academy (@theacademy)

এদিকে আবার ভারতীয় সেনার গরিমা নষ্ট করতে চাওয়ার অপরাধেও লাল সিং চাড্ডাকে নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ছবিতে একজন মানসিক অবসাদগ্রস্ত ব্যক্তিকে ভারতীয় সেনায় যোগদান করা এবং কার্গিল যুদ্ধে লড়াই করার দৃশ্য দেখানো হয়। ভারতীয় সেনায় যোগদানের আগে প্রত্যেককে ভাল করে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। সেই অংশটা এখানে এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে। তাই আমিরের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে প্রশাসনকে।