অবশেষে ভক্তদের অনুরোধ রাখল জি-বাংলা, মিঠাই ধারাবাহিকে আসছে বড়সড় পরিবর্তন

দর্শকের দাবী মেনে মিঠাই সিরিয়ালে আসছে বড়সড় বদল, খুশি ধারাবাহিকের অনুরাগীরা

জি বাংলার (Zee Bangla) মিঠাই (Mithai) ধারাবাহিক নিয়ে মাঝে মাঝেই উত্তাল হতে দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়া। ধারাবাহিকে কোনও কিছু ঘটলেই তা নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে দেখা যায় মিঠাইয়ের সোশ্যাল মিডিয়া ভক্তদের। সোশ্যাল মিডিয়াতে মিঠাইয়ের ফ্যানবেস আর পাঁচটা ধারাবাহিকের তুলনায় এখনও অনেকটাই বেশি।

টিআরপি তালিকায় পিছাচ্ছে মিঠাই, তাই গল্পের উপর আরও একবার জোর দিয়ে এগোনোর কথা ভাবছেন নির্মাতারা। ধারাবাহিকের গল্পে এখন একের পর এক টুইস্ট আনা হচ্ছে। সব থেকে বড় টুইস্ট এরই মধ্যে এসে গিয়েছে। ধারাবাহিকের গল্পে এসে গিয়েছে জুনিয়র সিধাই। সদ্য পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছে মিঠাইরানী। তবে মিঠাই ভক্তদের জন্য রয়েছে আরও একটা বড় সুখবর।

যেমনটা জানা যাচ্ছিল মিঠাই ধারাবাহিক একটা বড়সড় লিপ নেবে। বেশ কয়েক বছর এগিয়ে যাবে মিঠাই এর গল্প। যে কারণে ধারাবাহিক থেকে বেশ কিছু চরিত্রকে বাদ দেওয়া হবে। এই তালিকায় নাম উঠেছিল দাদু-ঠাম্মির। সেই সঙ্গে শোনা যাচ্ছিল মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের সঙ্গে নাকি ঘটে যাবে অঘটন। এসব শুনে দারুণ মন খারাপ হয়ে গিয়েছিল ভক্তদের।

সোশ্যাল মিডিয়াতে মিঠাইয়ের ভক্তরা বারবার আবদার করছিলেন যেন দাদু-ঠাম্মিকে ধারাবাহিক থেকে সরিয়ে না দেওয়া হয়। চ্যানেলের বিভিন্ন পোষ্টের নিচে বারবার তারা সেই আবদার করছিলেন। অবশেষে ভক্তদের কথা মেনে নিল চ্যানেল। ধারাবাহিক থেকে দাদাই-ঠাম্মিকে বাদ দেওয়া হবে না আর। মিঠাই ভক্তদের অনুরোধ ফেলতে পারলো না চ্যানেল।

যতদূর জানা যাচ্ছে ধারাবাহিক লিপ নেবে এই কথা ঠিক। অর্থাৎ মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের ছোট্ট ছেলেকে বড় হতে দেখবেন দর্শকরা। ধারাবাহিক এখন যে গতিতে এগোচ্ছে তাতে মাত্র পাঁচ দিনের মধ্যেই মিঠাইয়ের প্রেগনেন্সি থেকে শুরু করে সাধ খাওয়ানো এমন কি ডেলিভারি পর্যন্ত হয়ে গেল। কাজেই মোদক বাড়ির ছোট্ট গোপাল আর বেশিদিন ছোট থাকবে না।

মিঠাইয়ের গল্প লিপ নিলে অর্থাৎ গল্প কয়েক বছর এগিয়ে গেলেও দাদাই-ঠাম্মির চরিত্র বাদ পড়বে না। বরং তাদের বয়স আরও কিছুটা বাড়িয়ে দেখানো হবে। আসলে এই গল্পের প্রতিটি চরিত্র দর্শকদের খুবই প্রিয়। মোদক পরিবারের একজন সদস্যকেও হারাতে চান না তারা। দাদাই-ঠাম্মি থেকে শুরু করে মিঠাই-সিদ্ধার্থ, রাতুল-শ্রীতমা, রাজীব-শ্রীনন্দা, রুদ্র-নিপা, প্রত্যেকটি জুটিই গল্পের খাতিরে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।