রান্নাঘরের চাকরি ছেড়ে নাচ ধরেছেন সুদীপা! ‘মোটা সুদীপার নাচ’ দেখেই চরম ট্রোল নেটিজেনদের

মোটা সুদীপার নাচের থেকে রানু মন্ডল ভাল! রান্নাঘরের সুদীপার নাচ দেখে ঠাট্টা শুরু নেটপাড়ায়

রান্নাঘরের রানী তিনি! তাকে ছাড়া জি বাংলার (Zee Bangla) রান্নাঘর (Rannaghor) মোটেও ভাল লাগে না দর্শকদের। তবে শুধু রান্না ঘরের সঞ্চালিকা হওয়াটাই সুদীপার (Sudipa Chatterjee) একমাত্র পরিচয় নয়, সেই সঙ্গে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী। শাড়ি-গয়নার ব্যবসা রয়েছে তার। প্রতিদিন রান্নাঘরের সঞ্চালনা সেরে ঘরে ফিরে ব্যবসার কাজে মন দেন তিনি। তবে এবার রান্নাঘরের রানীর আরও একটি গুণের পরিচয় পেলেন দর্শকরা।

এর আগে রান্নাঘরে কিংবা সোশ্যাল মিডিয়াতে ইনস্টাগ্রাম রিলে মাঝেমধ্যে সুদীপার গান শুনেছেন নেটিজেনরা। তবে এবার সোশ্যাল মিডিয়াতে গানের তালে তালে নেচেও দেখালেন সুদীপা। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে তিনি একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন। সেখানে লাল পাড় সাদা প্রিন্টের শাড়ি পরে তাকে একটি বাংলা গানের সঙ্গে রিল ভিডিও বানাতে দেখা যায়।

শাড়ির সঙ্গে মানানসই সোনার গয়না এবং ফুল দিয়ে খোপা সাজিয়ে মোবাইলের ক্যামেরার সামনে ধরা দিয়েছেন তিনি। ক্যাপশনে লিখেছেন ‘আগমনী শাড়ি বাই সুদীপা চ্যাটার্জী’। অর্থাৎ তার এই ভিডিওটি ছিল তার শাড়ির ব্যবসার প্রচারের একটি অংশ। সুদীপা যে শাড়িটি পরে রয়েছেন সেটা তার বুটিকের শাড়ির কালেকশন থেকে নেওয়া।

সুদীপার এই ভিডিওটি অনেকেই পছন্দ করেছেন। তবে কমেন্ট বক্সে মিশ্র প্রতিক্রিয়া মিলেছে। কেউ কেউ তার পরনের শাড়ির প্রশংসা করেছেন। আবার অনেকেই তার নাচ নিয়ে তার কটাক্ষ করেছেন। ভিডিওটি তিনি শেয়ার করেছিলেন পুজোর আগে। রান্নাঘরের সেট থেকেই সময় বের করে টুক করে নাচের ভিডিওটি করেন তিনি। তাই দেখে কেউ লিখেছেন, শাড়ি-গয়নার বিজ্ঞাপন দিতে এসেছেন সুদীপা!

কেউ আবার লিখছেন, “নাচের পর আপনি মেঝেটা দেখে নিয়েন। ওটাতে মনে হয় চিড় ধরেছে।” কেউ সুদীপাকে কটাক্ষ করে লিখছেন, “অসহ্যকর! নাচটাও পারে না ঠিকঠাক কি না কি ভাবে নিজেকে!” কেউ লিখছেন, “মোটা মহিলা নাচতে তো পারে না, এর থেকে রাণু মন্ডল অনেক বেটার।”

সোশ্যাল মিডিয়াতে সুদীপা চ্যাটার্জীকে এর আগেও অনেকবার এভাবেই কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে। কিছুদিন আগেই সুইগী ডেলিভারি বয়দের নিয়ে সুদীপার মন্তব্য জেরে তাকে কথা শুনতে হয়। শাড়ি গয়না নিয়ে তার দেখনদারী কিংবা অহংকারী মানসিকতা অনেকেই পছন্দ করেন না। এমনকি এই কারণে তাকে বহুবার রান্নাঘর থেকে সরানোর দাবিও উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।