মহালয়ার দূর্গাকে দেখলে ভক্তি আসে না, নাম না করে ঋতুপর্ণা-শুভশ্রীকে ধুয়ে দিলেন শ্রীলেখা

Riya Chatterjee

Published on:

মহালয়ায় (Mahalaya) দিনের শুরুটা ভোরে উঠে বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের কন্ঠে ‘মহিষাসুরমর্দিনী’র চন্ডীপাঠ শুনে এবং টিভিতে দূর্গার হাতে মহিষাসুর বধ দেখে করাটাই বাঙালির বহুদিনের অভ্যাস। দূরদর্শনের আমল থেকে হালফিলের নতুন নতুন চ্যানেলগুলিও প্রতিবছর দর্শকদের সামনে টিভির পর্দায় উপস্থাপন করে চলেছে মহালয়ার অনুষ্ঠান। তবে দর্শকদের দাবি আগে দূরদর্শনের মহালয়া দেখে তারা যেরকম শিহরিত হতেন এখনকার মহালয়াতে তেমন কোনও আকর্ষণ তারা অনুভব করেন না।

টিআরপিতে একে অপরকে টেক্কা দিতে চ্যানেলে চ্যানেলে ঝাঁ চকচকে গ্রাফিক্স, উঁচু মানের ভিএফএক্স সেই সঙ্গে দূর্গা এবং মহিষাসুরের সাজপোশাক থেকে চড়া মেকআপ চোখে লাগলেও মনের মধ্যে দাগ কাটতে পারে না। এই নিয়ে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে নিজের মতামত তুলে ধরেছিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। দূর্গা সাজে এখনকার অভিনেত্রীদের দেখে রীতিমত হতাশ তিনি।

শ্রীলেখার কথায়, এখনকার যুগের মহালয়ের অনুষ্ঠানগুলো সিম্প্লিসিটি বা সাধারণত্বকেই ভুলে গিয়েছে। আগে যখন এত চ্যানেলের বাহার ছিল না তখন মহালয়ার অনুষ্ঠান মানেই ছিল দূরদর্শনের ‘মহিষাসুরমর্দিনী’। তখন এত বাহারি মেকআপ, অপ্রয়োজনে দেবী দেবতা ও অসুরদের নাচ গান, দাপাদাপি হত না। ভিএফএক্স ছিল না তবে দূর্গা থেকে অসুরের এক্সপ্রেশন, অভিনয় ছিল যেন খাঁটি সোনার মত।

এই বছরের মহালয়ার পর শ্রীলেখা তার সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টে দূরদর্শনের মহালয়ার অনুষ্ঠানের একটি ইউটিউব ভিডিও লিঙ্ক শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছেন, “মা দূর্গা সাজতে গেলে ডিজাইনার শাড়ি, গয়না লাগে না আর স্পেশ‍্যাল এফেক্টস দিয়ে ‘খামতি’ গুলো পূরণ করা যায় না। চ‍্যানেল এবং বাকিরা বুঝবেন কবে? আমাদের ছোটবেলার মা দূর্গা সেজেছিলেন সংযুক্তা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায় দূরদর্শনে। তাঁকে মানাত, তাঁর মুখের শ্রী ছিল মায়ের মতো। আপনাদের সেটা নেই।”

 

সেই সঙ্গে শ্রীলেখা আরও লিখেছেন, “দোষ আপনাদের নয়, সিস্টেমের। রাজনৈতিক এবং ক্ষমতার। আবার ভাববেন না দয়া করে আমাকে কোনোদিন মা দূর্গা হতে দেখেননি বলে আমি হিংসেতে বলছি আর ভাবলেও কী বা যায় আসে আমার আপনার বলুন? সাধারণত্বেরই সবসময় জয়জয়কার হয় এটা বুঝলে আমার ১৪ পুরুষের ভাগ‍্য।”

শ্রীলেখা সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছেন আগেকার সময়টাতে সবকিছুই ছিল খুব সাধারণ। তাই তখন মহালয়াও সাধারণ হত। এখন জাঁকজমক করে সবকিছু হলেও তার ভিতরেয সৌন্দর্যটাই থাকে না। এখনকার অভিনেত্রীদের মুখ দেখলে অন্তর থেকে ভক্তিভাব আসে না, এমনটাই বলেছেন টলিউডের এই অভিনেত্রী।