ফুলে-ফেঁপে উঠছে শাড়ির ব্যবসা, দিদি নাম্বার ওয়ান ছেড়ে বিদেশে পাড়ি দিলেন রচনা

দিদি নাম্বার ওয়ান ছেড়ে নতুন পেশা বেছে নিলেন রচনা, দেশ ছেড়ে বিদেশে দিলেন পাড়ি

একসময় টলিউড (Tollywood) এবং ওড়িয়া ইন্ডাস্ট্রি জুড়ে নায়িকা হিসেবে চুটিয়ে কাজ করেছেন বাঙালি অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জী (Rachana Banerjee)। সেই সঙ্গে বলিউডে অমিতাভ বচ্চনের বিপরীতে কাজ করার সুযোগও এসেছিল তার হাতে। জীবনের প্রথম অধ্যায় তিনি উৎসর্গ করেন অভিনয়কে। তবে দীর্ঘ ১০ বছর আগেই রচনার জীবনের সেই অধ্যায়ের অবসান হয়েছে। তিনি ছিলেন নায়িকা নাম্বার ওয়ান, আর এখন তিনি দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi Number One)।

তবে এখন রচনার আরও এক নতুন পরিচয় হয়েছে। তিনি এখন সামাজিক মাধ্যমে শাড়ির ব্যবসা খুলে বসেছেন। ’রচনাস ক্রিয়েশন’ (Rachana’s Creation) নামের একটি ব্র্যান্ডও চালু করেছেন তিনি। এতদিন দিদি নাম্বার ওয়ানের সঞ্চালনার পাশাপাশি রচনাকে সামাজিক মাধ্যমে লাইভে এসে শাড়ির ব্যবসা করতে দেখেছেন নেটিজেনরা। এবার সেই শাড়ির ব্যবসার সুবাদেই বিদেশ পাড়ি দিলেন রচনা ব্যানার্জী।

এক বছর আগেই রচনা সামাজিক মাধ্যমকে হাতিয়ার করে শাড়ির ব্যবসা খুলে বসেন। ফেসবুক লাইভে তিনি নিজে গ্রাহকদের কাছে তার শাড়ির সম্ভার তুলে ধরেন। জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা সঞ্চালিকাকে শাড়ি বিক্রেতা হিসেবে দেখে প্রথমটা অনেকেই চমকে গিয়েছিলেন। রচনাকে বহু কটাক্ষও সইতে হয়েছিল এর জন্য।

তবে রচনা বরাবর নেতিবাচক সমালোচনাকে উপেক্ষা করে তার নিজের পথেই এগিয়ে গিয়েছেন বলেই আজ তিনি সর্বক্ষেত্রে এতটা সফল। তার শাড়ির ব্যবসা এখন আর শুধু বাংলার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। বাংলা পেরিয়ে এমনকি দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশের মাটিতেও বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে রচনার শাড়ির কালেকশন। সম্প্রতি তিনি তার শাড়ির ভান্ডার নিয়ে পৌঁছে যান দুবাইতে। সোশ্যাল মিডিয়াতে সেই ছবি শেয়ার করেছেন তিনি।

Tollywood Actress Rachana Banerjee Answered why She Opened Saree Business

রচনা ব্যানার্জীর অনুরাগী গোটা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন। দুবাইতে পৌঁছে তিনি তার অনুরাগীদের সঙ্গে বেশ কিছু ছবি তুলে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করেন। দুবাইতেও তার বেশ ভালো সংখ্যক ক্রেতা রয়েছেন। রচনার এই সাফল্যের জন্য তাকে সাধুবাদ দিচ্ছেন ভক্তরা। সেই সঙ্গে তার ব্যবসার আরও উন্নতি কামনা করছেন সকলে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rachna Banerjee (@rachnabanerjee)

গত ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে জি বাংলার দিদি নাম্বার ওয়ান অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করছেন রচনা। রচনাকে ছাড়া দিদি নাম্বার ওয়ানের কথা ভাবতেও পারেন না যেন দর্শকরা। বিকেল ৫.০০ টা থেকে ৬.০০ টা, শিশু থেকে বয়স্ক সকলেই টিভি খুলে বসে পড়েন রচনা ব্যানার্জিকে দেখবেন বলে। তবে শুধু সঞ্চালনা নয়, বাংলার দিদি নাম্বার ওয়ান তার সদ্য চালু করা শাড়ির ব্যবসাতেও বেশ ভালই সুনাম পাচ্ছেন।