‘গানের মা-মাসি এক করে দিলেন’! ‘মহানায়িকা’ নুসরাতের গান শুনে পালাই পালাই করছেন শ্রোতারা

সুর-তালের পিন্ডি চটকে গান গাইলেন নুসরত! ‘মহানায়িকা’ গান শুনে পালাই পালাই দশা শ্রোতাদের

Nusrat Jahan Brutally Trolled For Her Singing

বাংলা সিরিয়াল এবং টলিউড (Tollywood) তারকাদের মাঝে মাঝেই বিভিন্ন স্টেজ শোতে অংশ নিতে হয়। এটাও তাদের উপার্জনের একটা বড় অংশ। টলিউডের বড় বড় তারকারাও স্টেজ শোয়ের মোটা টাকার অফার ফেরাতে পারেন না। কিন্তু সেখানে গিয়ে নাচ-গান করতে গিয়ে কার্যত তাদের বেহাল অবস্থা হয়ে যায়।

টলিউড তারকরা অভিনয় এবং নাচে পারদর্শী হলেও সকলেই যে ভাল গান গাইতে পারেন এমনটা নয়। অভিনেত্রী নুসরাত জাহানেরও (Nusrat Jahan) আবার গানটা ঠিক আসে না। তবুও তিনি চেষ্টা করলেন গান গাওয়ার। আর সেটা করতে গিয়েই ভাইরাল হয়ে গিয়েছেন নুসরাত। সম্প্রতি তার একটি স্টেজ শো’তে গান গাওয়া নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে চলছে তুমুল সমালোচনা।

NUSRAT JAHAN

টলিউডের এই অভিনেত্রীকেও ট্রোলের শিকার হতে হল তার গানের গলার কারণে। এমনিতেই নুসরাতের ফিগার থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত জীবন, মহানায়িকা সম্মান পাওয়ার যোগ্যতা থেকে শুরু করে রাজনীতিতে তার ভূমিকা নিয়ে নানা সময় কটাক্ষ ধেয়ে আসে। এবার নুসরাত ট্রোল হলেন গান গেয়ে।

দু’বছর আগে তার একটি গানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছিল। সেই ভিডিওটি আরও একবার সোশ্যাল মিডিয়াতে ঘুরতে শুরু করেছে। ডিজাইনার ডেনিম জ্যাকেট, টি-শার্ট এবং জিন্সের ক্যাজুয়াল সাজে এদিন সেজেছিলেন অভিনেত্রী। মঞ্চে উঠে বলিউডের পুরনো হিন্দি হিট গান গাইছিলেন তিনি।

NUSRAT JAHAN

‘তুমসে মিলে দিল মে উঠা দর্দ করারা’, ‘ধীরে ধীরে সে মেরে জিন্দেগি মে আনা’, এই দুটি গান গাইছিলেন নুসরাত। কিন্তু তার গান শুনে হেসে গড়াগড়ি খাচ্ছেন নেটিজেনরা‌। কেউ লিখছেন, “গানটার মা মাসি এক করে দিল।” কেউ আবার তাকে কটাক্ষ করে লিখছেন, “মহালায়িকা ফাটায় দিসে”।

NUSRAT JAHAN

আবার কেউ কেউ নুসরাতকে উপদেশ দিয়ে বলছেন সবাই সবকিছুতে পারফেক্ট হয় না। গানটা তার জন্য নয়। তিনি অভিনয়টাই মন দিয়ে করুন। কেউ আবার লিখছেন হয় গান আর নয়তো হাত-পা ছোঁড়ার মধ্যে যেকোনও একটা করুন। এর আগেও একাধিক জনপ্রিয় তারকাদের এমনই অবস্থা হয়েছিল গান গেয়েতে গিয়ে। নুসরাতের গান শুনেও পালাই পালাই করছেন শ্রোতারা।