১ কোটি টাকার রং, ২০ লাখ টাকার রেজিস্ট্রেশন! দেশের সবথেকে দামি গাড়ি কিনলেন মুকেশ আম্বানি

দেশের সবথেকে দামি গাড়ি কিনলেন মুকেশ আম্বানি, গাড়ির দাম শুনলে চোখ উঠবে কপালে

Mukesh Ambani Brings Home New Rolls Royace Cullian worth Rs 13 Crore

ভারতের তথা এশিয়ার শ্রেষ্ঠ ধনকুবের মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani)। তার এবং তার পরিবারের লাইফস্টাইলের বিলাসিতা রাজা-রাজড়াদের থেকে কম নয়। দামি দামি গাড়ি, রাজ প্রাসাদের মতো আবাসন, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে তার সম্পত্তি। স্ত্রী-পুত্র-কন্যাকে নিয়ে বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন তিনি। তার বিলাসবহুল লাইফ স্টাইলের মাঝে এবার জায়গা করে নিল নতুন কাস্টমাইজড Rolls Royce Cullinan। এই গাড়ি নিয়ে চারদিকে চর্চা এখন তুঙ্গে।

এই গাড়িটি চলতি বছরেই কিনেছেন মুকেশ আম্বানি। এতদিনে গাড়িটি হাতে পেলেন তিনি। এই নতুন গাড়ির যা দাম তার থেকেও বেশি খরচ হয়েছে গাড়ির কাস্টমাইজেশনে। রিলায়েন্স গোষ্ঠীর কর্ণধার নিজের মনের মতো করে গড়ে নিয়েছেন তার নতুন গাড়িটিকে। গাড়ির রং থেকে শুরু করে রেজিস্ট্রেশনের খরচ, সবই চড়া। ভারতের বাজারে গাড়ির এক্স শোরুম প্রাইস হল ৬.৮ কোটি টাকা। তবে কাস্টমাইজেশনের পর খরচ হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ।

Rolls Royce Cullinan

সদ্য অতিরিক্ত সুরক্ষা বাহিনীসহ মুকেশ আম্বানির এই নতুন গাড়িটিকে দেখা গিয়েছে রাস্তায়। তারপর থেকেই গাড়ির ছবি এবং ভিডিও ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। টাসকান সান রংয়ের গাড়িটি নজর কাড়ছে। এই গাড়িটিকে রং করাতেই শুধু খরচ হয়েছে ১ কোটি টাকা। গাড়িতে ব্যবহার করা হয়েছে ২১ ইঞ্চির চাকা। এই চাকার দাম অনলাইনে খুঁজে জানা যায়নি। কেবল গাড়ির এক্স শোরুমেই জানা যাবে দাম।

নতুন গাড়ির জন্য 0001 নম্বরটিকে বেছে নিয়েছেন মুকেশ আম্বানি। VIP নম্বরের জন্য RTO অফিসে ৪ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। মুকেশ আম্বানির নতুন গাড়ির নম্বর আনার জন্য পরিবহন দপ্তরকে নতুন সিরিজের নাম্বার প্লেটের ব্যবস্থাও শুরু করতে হয়েছে। ট্রান্সপোর্ট কমিশনারের কাছ থেকে লিখিত অনুমতি নিয়ে চালু করা হয়েছে এই সিরিজ। স্বভাবতই রেজিস্ট্রেশনের খরচ বেড়ে গিয়েছে তিনগুণ। নম্বর রেজিস্ট্রেশনের জন্য খরচ হয়েছে ১২ লক্ষ টাকা! গাড়ির জন্য ২০ লাখ টাকার এককালীন করও দিতে হয়েছে আম্বানিকে।

গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ২০৩৭ সালের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত বৈধ থাকবে। গাড়ির সুরক্ষার জন্য অতিরিক্ত খরচ হয়েছে ৪০ হাজার টাকা। এর ফলে গাড়িটি হাতে পেতে সর্বমোট ১৩.১৪ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। এটিই এই দেশের সবথেকে দামি গাড়ি বলে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে তরফ থেকে দাবি করা হচ্ছে। আম্বানিদের গ্যারেজে অবশ্য Rolls Royce এর একাধিক মডেল রয়েছে। Rolls Royce Phantom Drophead Coupe ও Phantom Extended Wheelbase ও Rolls Royce Cullinan এরই দুটি মডেল রয়েছে আম্বানি পরিবারের কাছে।