হিন্দি সিনেমার ইতিহাসে ৯ সবচেয়ে সুন্দরী অভিনেত্রী, যাদের সৌন্দর্যে পাগল গোটা দুনিয়া

বলিউডের সর্বকালের সেরা ৯ সুন্দরী অভিনেত্রী, যাদের রূপে মুগ্ধ গোটা দুনিয়া

বলিউডের সুন্দরী অভিনেত্রীরা (Bollywood Beautiful Actress) শুধু পুরুষদের নয়, মহিলাদেরও রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছেন। তাদের ছিপছিপে নির্মেদ শরীর, টানটান উজ্জ্বল ত্বক, ৪০ পেরোলেও এতোটুকু ভাঁজ পড়ে না চেহারাতে! এমন সুন্দরীদের মত রুপ পাওয়ার জন্য বহু সাধ্য সাধনার করেন মহিলারা। বলিউডের সেরা সুন্দরীদের মধ্যে ৯ জন হলেন দর্শকদের বিচারে সেরা (Bollywood Best Beautiful Actress)। দেখে নিন এই তালিকায় রয়েছেন কারা।

ঐশ্বর্য রাই বচ্চন (Aishwarya Rai Bachchan) : প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের রুপ সৌন্দর্যকে স্বীকৃতি দিয়েছে সারা দুনিয়া। ঐশ্বর্য তার সৌন্দর্য এবং গ্ল্যামারাস লুক দিয়ে এক লহমায় সকলের মন কেড়ে নিয়েছিলেন। নীল নয়না সুন্দরীর রুপের জাদু ছড়িয়েছে গোটা বিশ্বে। আজ এত বছর পরেও তার সৌন্দর্য এতটুকু কমেনি, উল্টে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যেন আরও বেশি গ্ল্যামারাস হচ্ছেন অভিনেত্রী।

দীপিকা পাডুকোন (Deepika Padukone) : ঐশ্বর্যের পর নিঃসন্দেহে এই তালিকায় জায়গা করে নিতে পারেন দীপিকা। এই মুহূর্তে দীপিকা হলেন বলিউডের এক নম্বর নায়িকা। তার মিষ্টি হাসি, মায়াভরা চোখের চাহনিতে কাবু গোটা বলিউড। বলিউডের মাস্তানির রুপ সৌন্দর্য লক্ষ লক্ষ পুরুষের রাতের ঘুম কেড়ে নেয়।

হেমা মালিনী (Hema Malini) : ৮০ এর দশকের ড্রিম গার্ল হেমামালিনীর সৌন্দর্যের বিবরণ আলাদা করে দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। রুপ-সৌন্দর্যের নিরিখে তার সমকালীন সময়ে তাকে টেক্কা দেওয়ার মতো ছিলেন না কেউই। কোটি কোটি মানুষের মনে অনুরাগের সঞ্চার ঘটিয়ে‌ তৎকালীন সময়ের সেরা অভিনেত্রী হয়ে উঠেছিলেন হেমা মালিনী।

মাধুরী দীক্ষিত (Madhuri Dixit) : মাধুরীর হাসি ভক্তদের অন্তর ছুঁয়ে যায়। সুন্দর হাসি, দুর্দান্ত নাচ এবং অভিনয় দিয়ে ‌ মাধুরী তার সমকালীন সময়ের নায়িকাদের বলিউডে টিকে থাকার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন। তৎকালীন সময়ে তিনি নাকি অভিনেতাদের থেকে অনেক বেশি পারিশ্রমিক নিতেন‌। আজও তার গ্ল্যামার আকর্ষণ করে সকলকে। তার থেকে বিউটি টিপস নিতে অপেক্ষা করে থাকেন কোটি কোটি মহিলা।

মধুবালা (Madhubala) : ৭০-৮০ এর দশকের বলিউড সেরা সুন্দরী ছিলেন মধুবালা। এই সুন্দরী বলিউডের আকাশে ক্ষণস্থায়ী হয়েছিলেন। কিন্তু মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই তিনি সকলের মনে জায়গা করে নেন। অভিনয় এবং অসাধারণ সৌন্দর্যের জন্য লক্ষ লক্ষ ভক্ত ছিল তার। বাংলার মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের চেহারার মধ্যে অনেকেই মধুবালার মিল খুঁজে পান।

Sridevi

শ্রীদেবী (Sridevi) : নাচ, অভিনয় আর সৌন্দর্য্যের নিরিখে শ্রীদেবীও কোনও অংশে কম যান না। ‘এক্সপ্রেশন কুইন’ শ্রীদেবী কোটি-কোটি দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন। তার মৃত্যুর পর এখনও ভক্তদের মধ্যে তার জায়গাটা রয়েই গিয়েছে। সেই স্থান অপূরণীয়।

নার্গিস (Nargis) : বলিউডের স্বর্ণযুগের নায়িকাদের মধ্যে নার্গিস ছিলেন সবার সেরা। রাজ কাপুর এবং নার্গিসের জুটি বলিউডের ইতিহাসে এভারগ্রীন হয়ে থেকে যাবে। তৎকালীন সময়ের এই রোমান্টিক জুটি প্রেম করতে শিখিয়েছিল দেশবাসীকে। নার্গিসের অপার সৌন্দর্য্য আজও ভক্তদের মনে গেঁথে রয়েছে।

নূতন (Nutan) : ৬০-৯০ দশক পর্যন্ত বলিউড কাঁপিয়ে অভিনয় করেছেন নূতন। নূতনের সৌন্দর্য এবং অভিনয় দক্ষতা দর্শকদের মন জয় করে নিতে সহায়ক হয়েছিল।

সায়রা বানু (Saira Banu) : বলিউডের এই মিষ্টি নায়িকা মধুবালা, নূতনদের তুলনায় বয়সে অপেক্ষাকৃত ছোট ছিলেন। তবে তার সুন্দর চেহারা এবং সুন্দর অভিনয়ের জন্য তিনিও বলিউডের প্রথম সারির নায়িকাদের মধ্যে অনায়াসেই জায়গা করে নিতে পারেন। সেই যুগে কেবল সায়রা বানুর নামেই একাধিক ছবি সফল হয়েছে।