অমিতাভ বচ্চনের বউ বলেই কি এত ‘অহংকার, নিজের কুকীর্তির সাফাই দিলেন জয়া বচ্চন

অভদ্রতামির সীমা ছাড়িয়েও নির্বিকার, সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার নিয়ে দিলেন জবাব

বলিউড (Bollywood) সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চনের (Amitabh Bachchan) স্ত্রী জয়া ভাদুড়ি বচ্চন (Jaya Bhaduri Bachchan) নিজেও একজন বলিউডের নামী অভিনেত্রী ছিলেন। তিনি এখন সেভাবে আর অভিনয় করেন না ঠিকই, কিন্তু সাধারণ মানুষের কাছে এখনও তার জনপ্রিয়তা কিছু কম নয়। তবে জয়া আবার মাঝেমধ্যেই তার রগচটা স্বভাবের জন্য সংবাদমাধ্যমের শিরোনাম দখল করে বসেন। সাংবাদিকরা যেন তার চিরশত্রু। তাদের দুচোখে সহ্য করতে পারেন না বলিউডের এই বর্ষিয়ান অভিনেত্রী।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে তার একটি ভিডিও দেখে নিন্দায় সরব হয়েছিলেন সকলে। জয়া এমনিতেই কেউ তার বা তার পরিবারের ছবি তুলতে এলে বেজায় রেগে গিয়ে অপমান করে বসেন প্রকাশ্যে। তবে এবার তিনি পাপারাজ্জিদের সঙ্গে যা করলেন তা কার্যত অভদ্রতার সীমা ছাড়িয়েছে বলে অভিযোগ তুলছেন অনেকেই। যে কারণে অনেক কঠিন কঠিন প্রশ্নের মুখেও পড়তে হচ্ছে তাকে।

সম্প্রতি নাতনি নভ্যা নভেলি নন্দার সঙ্গে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন জয়া। সে সময় সাংবাদিকরা ঘিরে ধরে তাদের। সকলে তাদের ফটো তুলতে ব্যস্ত ছিলেন। আচমকাই এক চিত্র সাংবাদিক ভিড়ের মাঝে পা পিছলে পড়ে যাচ্ছিলেন। যা দেখে জয়া বলে ওঠেন, “আমি আশা করছি আপনি যেন উল্টে পড়েন।” অমিতাভ-পত্নীর এই ব্যবহারের চূড়ান্ত সমালোচনা হলে অবশেষে সাংবাদিকদের কাছে সাফাই দিলেন জয়া।

সাংবাদিকদের কাছে আবার এই বিষয়ে মুখ খুললেও কিন্তু নিজের কৃতকর্মের জন্য একটুও অনুতাপের সুর ছিল না তার কথায়। উল্টে তিনি এই ব্যাপারে সাংবাদিকদের ই দোষারোপ করেন। নাতনির পডকাস্ট শো-তে এসে যখন তাকে এই প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় তখন তিনি জবাব দেন, “আমার এই বিষয়টি একদম পছন্দ নয়। যারা কারও ব্যক্তিগত জীবনে নাক গলায় এবং তাদের ব্যবহার করে নিজেরা অর্থ উপার্জন করেন সেরকম মানুষদের আমি একদমই পছন্দ করি না।”

তিনি আরও বলেছেন, “আমি তো তাদের মুখের উপর বলি, আপনাদের কি লজ্জা লাগে না?” এরপর আরও স্পষ্ট করে জয়া জবাব দেন, “কেউ আমার ছবির সমালোচনা করতেই পারেন। আমি তা মাথা পেতে নেব। কিন্তু আমার ব্যক্তিগত পরিসরে তার নাক গলানোর কোনও অধিকার নেই। রাস্তায় হাঁটছি আর কেউ আমার ছবি তুলছে। আরে বুঝতে হবে আমিও তো একজন মানুষ।”

শুধু সাংবাদিকদের প্রতিই নয়, সাধারণ মানুষও যদি কেউ কখনও প্রকাশ্য রাস্তায় তার ছবি তুলতে যান তখনও একই ব্যবহার করেন জয়া। এর আগেও জয়া ভাদুড়িকে এয়ারপোর্ট থেকে বেরোতে দেখে একজন সাধারণ মানুষ তার ছবি তুলছিলেন ফোনে। জয়া তাকে ডেকে রীতিমত ধমকে দেন। আর সাংবাদিকদের প্রতি তার এমন আচরণ তো নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনায় দাঁড়িয়েছে।