কাজ নেই, ইচ্ছে থাকলেও নেই সুযোগ, কাজ না পেয়ে ভ্যানিশ হয়ে গেলেন শ্রেয়শ্রী

Riya Chatterjee

Published on:

জি বাংলার (Zee Bangla) একসময়ের জনপ্রিয় ধারাবাহিকগুলির মধ্যে অন্যতম ছিল ভানুমতীর খেল (Bhanumotir Khel)। শুধু তৎকালীন সময়ে নয়, ভানুমতীর খেল জি বাংলার সর্বোৎকৃষ্ট ধারাবাহিকগুলির মধ্যে আজও ধরা হয়। এই ধারাবাহিকে পর্দার সামনে ম্যাজিক দেখাতেন ভানুমতী ওরফে শ্রেয়শ্রী রায় (Shreyasri Roy)। তারপর আচমকাই কোথায় যেন ম্যাজিকের মতোই ভ্যানিশ হয়ে গেলেন শ্রেয়শ্রী। এখন আর খুঁজে পাওয়া যায় না তাকে।

অভিনেতা রুবেল দাস এবং অভিনেত্রী শ্রেয়শ্রী রায়ের যুগলবন্দিতে এই ধারাবাহিক টেলিভিশনের পর্দায় চলেছিল বহুদিন। ধারাবাহিকের এই জুটি দর্শকের ভীষণ পছন্দের ছিল। ধারাবাহিক শেষ হয়ে যাওয়ার পর রুবেলকে বহু ধারাবাহিকেই নায়কের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। তবে অভিনেত্রী শ্রেয়শ্রী দীর্ঘ দুই বছর যাবৎ আর ক্যামেরার সামনে আসেননি। অভিনেত্রীর অনুরাগীদের মনে তাই প্রশ্ন, কোথায় গেলেন শ্রেয়শ্রী? তিনি কি অভিনয় থেকে আজীবন অবসর নিয়ে নিলেন? নাকি আবারও তাকে দেখা যাবে বড় কোনও প্ল্যাটফর্মে?

অবশেষে খোদ অভিনেত্রীই দিলেন এই প্রশ্নের জবাব। অভিনেত্রী জানিয়েছেন তিনি অভিনয় থেকে দূরে সরে নেই। তিনি মনেপ্রাণে আবারও ধারাবাহিকে অভিনয় করতে চান। কিন্তু তার কাছে আর তেমন সুযোগ আসে না।শ্রেয়শ্রীর বক্তব্য ভানুমতীর খেল শেষ হয়ে যাওয়ার পর তার কাছে আর কোনও ধারাবাহিকের লিড চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব আসেনি। তাই বলে এই নয় যে তার কাছে এখন আর অভিনয়ের প্রস্তাব আসে না। কিন্তু তিনি চান লিড রোলে অভিনয় করতে। সেই জায়গায় ধারাবাহিকের নির্মাতারা তার কাছে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব নিয়ে হাজির হয়েছেন বহুবার। অভিনেত্রী তাই বারবার প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন।

শ্রেয়শ্রীর বক্তব্য তিনি জীবনে অনেক স্ট্রাগল করে ভানুমতীর খেল ধারাবাহিকের অভিনয়ের সুযোগ করতে পেরেছিলেন। এত কষ্ট করে ধারাবাহিকের মূল চরিত্রে অভিনয়ের যে সুযোগ তিনি পেয়েছিলেন সেই জায়গাটা তিনি ধরে রাখতে চেয়েছেন। তাই এখন পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয়ের কথা তিনি ভাবতে পারেন না। অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন, বহুবার তাকে মূল চরিত্রের প্রস্তাব দেওয়া হলেও শেষমেষ অন্য অভিনেত্রীকে তার জায়গাতে কাস্ট করা হয়েছে।

শ্রেয়শ্রীর কথায়, এখন টলিউডে অভিনয়টাই সব নয়। ভালো অভিনয় ছাড়াও এখন সকলের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক থাকা জরুরি। এটা তার পক্ষে করা সম্ভব হয় না। এই কারণে একের পর এক কাজ হাতছাড়া হয়েছে। ভবিষ্যতেও হয়তো হবে। তবে তা নিয়ে বিন্দুমাত্র ভাবছেন না শ্রেয়শ্রী। তিনি আশা করেন, একদিন তার অভিনয় দক্ষতার গুণেই তার কাছে ভালো সুযোগ আসবে। আপাতত তিনি সেই সুযোগের অপেক্ষা করছেন।