দর্শকের বিচারে এবছরের সেরা ১০ সিরিয়াল, যা বছরভর রাজ করল দর্শক মন

দর্শকের বিচারে এবছরের সেরা সিরিয়াল কোনটি, বছর শেষে সামনে এলো রিপোর্ট কার্ড

শুধু জি বাংলা (Zee Bangla) নয়, গোটা বাংলার প্রত্যেক বাংলা টেলিভিশন চ্যানেলের মধ্য থেকে সেরার সেরা মিঠাই রানী (Mithai)। তাকে টেক্কা দেবে এমন সাধ্যি নেই কারও। টিআরপি তালিকাতে দীর্ঘ ৩৮ সপ্তাহ ধরে বাজিমাত করে রেখেছে মিঠাই। সৌমিতৃষা কুন্ডু এবং আদৃত রায়ের কেমিস্ট্রি এতটাই জোরদার যে প্রতিদিন রাত ৮-৮.৩০ টা দর্শক টিভির সামনে থেকে নড়তে পর্যন্ত পারেন না। যার ফলাফল দেখা যায় টিআরপিতে প্রত্যেকবার।

তবে একা মিঠাই নয়, মিঠাই ছাড়াও দর্শকের বিচারে এই মুহূর্তে সেরা ধারাবাহিকের তালিকাতে রয়েছে আরও বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক। তবে এখানে কিন্তু স্টার জলসার তুলনায় জিবাংলা অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। এই তালিকায় রয়েছে অপরাজিতা অপু (Aparajita Apu)। এক সাধারণ ঘরের মেয়ের বিডিও হওয়ার স্বপ্ন পূরণের গল্পটাও বেশ আলাদা তাই ছাপ ফেলেছে দর্শকের মনে। রক্ষণশীল পরিবারের মেয়ে অপু, তার বিয়েও হয় রক্ষণশীল পরিবারে যেখানে বাড়ির মেয়ে-বউদের বাইরে কাজ করতে যাওয়া মানা। তবে অপু নিজগুণে অদম্য জেদ এবং সাহস নিয়ে বিডিও হয়েছে। অপু-দিপু জুটিতে এই ধারাবাহিক মিঠাইয়ের থেকে সামান্য পিছিয়ে।

 

পরের স্থানে রয়েছে ‘যমুনা ঢাকি’ (Jamuna Dhaki)। বিভিন্ন কারণে যমুনাকে নিয়ে ট্রোল হলেও দর্শকের কাছে কিন্তু আজও অটুট ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা। শ্বেতা ভট্টাচার্য এবং রুবেল দাসের জুটিতে এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তাও এখন কিছু কম নয়। টিআরপি তালিকাতে প্রত্যেকবার সেরা তিনে থাকে যমুনা ঢাকি। ইচ্ছের জোরে সাধারণ ঘরের মেয়ের সফলতার কাহিনী দর্শকের নজর কাড়ে।

চলতি বছরেই টলিউড অভিনেত্রী দেবশ্রী রায় কামব্যাক করেছেন জি বাংলার নতুন ধারাবাহিক সর্বজয়ার (Sarbojaya) হাত ধরে। সর্বজয়ার রিপোর্ট কার্ড প্রথম থেকেই ভালো। প্রথম সপ্তাহ থেকেই টিআরপি তালিকাতে জায়গা ধরে রেখেছে সর্বজয়া। যদিও শুরুতে অবশ্য অনেকেই সর্বজয়াকে স্টার জলসার শ্রীময়ী ধারাবাহিকের ডুপ্লিকেট বলে দাবি করছিলেন অনেকেই। তবে শেষমেষ তাদের ভুল ভেঙেছে।

বছরের একেবারে শেষের দিকে শুরু হওয়া ২ নতুন ধারাবাহিক উমা (Uma) এবং খুকুমণি হোম ডেলিভারির (Khukumoni Home Delivery) রিপোর্ট কার্ডও বেশ ভালো। বলতে গেলে এই মুহূর্তে এই দুটি ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। খুকুমণি তো আবার চ্যানেল টপার। তবে এই দৌড়ে বেশ অনেকখানি পিছিয়ে পড়েছে স্টার জলসার আরেক ধারাবাহিক খড়কুটো (Khorkuto)। শুরুতে এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তাও ছিল আকাশছোঁয়া। কিন্ত ক্রমে দর্শকের বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সৌজন্য, গুনগুন আর তিন্নির ত্রিকোণ প্রেমের একঘেয়েমি গল্প। ধারাবাহিক বন্ধের ডাক তুলছেন দর্শকরা।